• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মানুষের কাজ করতে গেলে কোনও পদ লাগে না! শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্যে জল্পনা তুঙ্গে

  • |

তৃণমূল কংগ্রেসে যদি জনসংযোগ সব থেকে বেশি হয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (mamata banerjee), তাহলে তারপরেই যার স্থান তিনি হলেন শুভেন্দু অধিকারী( Subhendu Adhikari)। কিন্তু অভিযোগ, দলে সেভাবে জায়গা পাননি তিনি। ফলে মন্ত্রিসভায় থাকলেও নিজের মতো করেই চলছেন তিনি। জনসেবায় নিজেকে ব্রতী করেছেন নিজেকে। কাজ করতে গেলে যে পদ লাগে না তাও বুঝিয়ে দিয়েছেন শুভেন্দু।

 জেলায় বিরোধী গোষ্ঠীর অখিল গিরিতে গুরুত্ব

জেলায় বিরোধী গোষ্ঠীর অখিল গিরিতে গুরুত্ব

নিজের জেলা পূর্ব মেদিনীপুর ছাড়িয়ে জঙ্গলমহল এমনকি উত্তরবঙ্গের কোনও কোনও জায়গায় শুভেন্দু অধিকারীর প্রভাব রয়েছে। কিন্তু নিজের জেলাতেই তাঁকে গুরুত্ব না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। পূর্ব মেদিনীপুরে তাঁর বিরোধী হিসেবে পরিচিত অখিল গিরিকে তৃণমূলের নেতৃত্ব গুরুত্ব দিয়েছে। যেই কারণে দলের ওপর তিনি যে ক্ষুব্ধ, তা আর কারও কাছেই অজানা নয়।

 মানুষের জন্য কাজ করতে গেলে পদ লাগে না

মানুষের জন্য কাজ করতে গেলে পদ লাগে না

শুভেন্দু অধিকারী এদিন যোগ দিয়েছিলেন এক বিজয়া সম্মিলনীতে। কোলাঘাটে দাদার অনুগামী আয়োজনে সেই বিজয় সম্মিলনী হয়। সূত্রের খবর অনুযায়ী, সেখানেই তিনি সরব হয়েছেন, দলের বিরোধী গোষ্ঠীর উদ্দেশে সরব হন। তিনি বলেন, লকডাউনে কোলাঘাট ব্লকের মানুষের পাশে সাধ্যমতো দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছএন তিনি। দুর্ঘটনায় মৃত অ্যাম্বুল্যান্স চালকের পরিবার ও মৃত রোগীর পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছেন। তিনি আরও বলেন, তিনি এসব করেও কিছু বলেন না। এবার বলছেন, কারণ কিছু ভোট পাখি লকডাউনের সময় সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ায়নি। এব্যাপারে তিনি বলেন, এটা কোনও রাজনৈতিক দলের উদ্দেশে তাঁর মন্তব্য নয়, ব্যক্তি বিশেষের উদ্দেশে মন্তব্য। তিনি বলেন, সত্যের পক্ষে ন্যায়ের পক্ষে থাকতে হবে। শুভেন্দু অধিকারী আরও বলেন, মানুষের কাজ করতে গেলে ছাড়পত্র লাগে না। কোনও পদও লাগে না।

বিরোধী গোষ্ঠীর নেতাদের কটাক্ষ

বিরোধী গোষ্ঠীর নেতাদের কটাক্ষ

দলের তাঁর বিরোধী গোষ্ঠীকে সজনেগাছি বাজারে মাস্ক বিলি করতে দেখা গিয়েছিল। এদিন সেই কথা উল্লেখ করে দলের তাঁর বিরোধী গোষ্ঠীকে কটাক্ষই করেছেন পরিবহণমন্ত্রী। অন্যদিকে তিনি বুঝিয়ে দেন কোনও গুরুত্বপূর্ণ পদ দেওয়া না হলেও মানুষের পাশে থাকা যায়, মানুষকে সাহায্য করা হয়। তবে শুভেন্দু অধিকারীর এই মন্তব্যে জেরে দলের সঙ্গে তাঁর দূরত্ব আরও বৃদ্ধি পেল বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

 দল বিরোধী কাজ করছেন শুভেন্দু

দল বিরোধী কাজ করছেন শুভেন্দু

মুখে শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্যকে গুরুত্ব না দেওয়ার কথা বললেও, জেলা তৃণমূলের কো-অর্ডিনেটক অখিল গিরির অভিযোগ, শুভেন্দু অধিকারী দল বিরোধী কাজ করছেন। যেখানে সেখানে বাজে মন্তব্য করছেন।

 পূর্ব মেদিনীপুরে করোনা হাসপাতালে সাহায্য

পূর্ব মেদিনীপুরে করোনা হাসপাতালে সাহায্য

করোনা কালে পূর্ব মেদিনীপুর-সহ তিন জেলার করোনা আক্রান্তদের কাছে ত্রাতার মতো হয়ে দাঁড়িয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তিন জেলা থেকে করোনা আক্রান্তদের পাঁশকুড়া বড় মা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কোনও সময়, বেড, কোনও সময় রোগীদের জন্য ফ্লাস্ক, কোনও সময় আবার থার্মাল গান, অক্সিমিটার দিয়ে সাহায্য করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। আর বিশেষ দিনে ফল মিষ্টিও পাঠিয়েছেন, হাসপাতালের রোগীদের জন্য।

 সভা থেকে বিজয়া সম্মিলনী সর্বত্রই দাদার অনুযায়ী

সভা থেকে বিজয়া সম্মিলনী সর্বত্রই দাদার অনুযায়ী

বর্তমানের শুভেন্দু অধিকারী যে সব সভা করছেন, কিংবা বিজয়া সম্মিলনীতে যোগ দিচ্ছেন, কোনওটাতেই তৃণমূলের কোনও নামগন্ধ নেই। সবেরই আয়োজন করছেন দাদার অনুগামীরা। যাঁরা শুধু পূর্ব কিংবা পশ্চিম মেদিনীপুরে ছড়িয়ে নেই, জঙ্গলমহলের একটা বড় অংশে এবং উত্তরবঙ্গের কোনও কোনও জায়গায় দাদার অনুগামীদের পোস্টার দেখা যাচ্ছে। যা নিয়ে যথেষ্টাই জল্পনা তৈরি হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

২০২২-র বিধানসভা ভোটের আগে বিজেপিকে সমর্থন! অখিলেশদের জব্দ করতে শপথ মায়াবতীর

English summary
Subhendu Adhikari says, it doesn't take any position to work for people
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X