• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

করোনায় অসতর্কতার মাশুল! বন্ধ এনআরএসের ওয়ার্ড, কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসক-নার্সরা

করোনায় অসতর্কতার মাশুল দিতে হল কলকাতার এনআরএস হাসপাতাল। অজান্তে করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তির চিকিৎসা করায় হোম কোয়ারেন্টাইনে চলে যেতে হল ৬৫ জন চিকিৎসক ও নার্সকে। রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর চিকিৎসক-নার্সদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর পাশাপাশি হাসপাতালের পুরুষ বিভাগ ও সিসিইউ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

 করোনায় অসতর্কতার মাশুল! বন্ধ এনআরএসের ওয়ার্ড, কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসক-নার্সরা

মহেশতলার বাসিন্দা বছর ৩৪-এর হিমোফিলিয়া রোগীর মৃত্যু হয় শনিবার। তারপর সোমবার ১৪০ বেডের পুরুষ বিভাগ ও সিসিইউ বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বন্ধ করে দেওয়া হয় রোগী ভর্তি। স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষে জানিয়ে দেওয়া হয় প্রত্যেক চিকিৎসক ও নার্সের করোনা পরীক্ষা করা হবে। সোমবার তা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

জেনারেল ওয়ার্ডে নিউমোনিয়া নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন একজন রোগী। তাঁর মৃত্যুর পর দেখা যায় তিনি করোনা পজিটিভ। তাই ডাক্তার ও নার্সদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। মুখ্যমন্ত্রী প্রত্যেকের উদ্দেশ্যে বলেন, ডাক্তার ও নার্স সবাই ভালো থাকুন। কোনও সমস্যা হলে লুকোবেন না।

এই ঘটনার পিছনে অনেকে আবার হাসপাতালের অসতর্কতাকে দায়ী করছে। নিউমোনিয়া নিয়ে যখন রোগী ভর্তি হয়েছিলেন, তাঁকে কেন আইসোলেশনে রাখা হল না। এই পরিপ্রেক্ষিতে জানানো হয় ওই রোগীর করোনার উপসর্গ ছিল না শুরুর দিকে। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ার পর সিসিইউতে স্থানান্তর করা হল। তখনই উপসর্গ প্রকট হতেই পরীক্ষা করা হয়। এবং পজিটিভ আসে পরীক্ষা রিপোর্ট।

English summary
NRS’s Doctors and Nurses are sent in home quarantine and closed Hospital. Hospital’s male ward and CCU are closed
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X