• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বঙ্গ বিজেপি থেকে ‘আউট’ হয়ে গেলেন নেতাজির নাতি! ‘সহ সভাপতি’ বাদ কর্মসমিতিতেও

রাজ্য বিজেপি থেকে আউট হয়ে গেলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর নাতি চন্দ্র বসু। দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বাধীন বিজেপির রাজ্য কমিটি থেকে আগেই বাদ পড়ে ছিলেন চন্দ্র বসু, এবার তাঁকে ছেঁটে ফেলা হল দলের রাজ্য কর্মসমিতির পদ থেকেও। মঙ্গলবার বিজেপির তরফে রাজ্য কমিটির যে পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, সেখানে নাম নেই চন্দ্র বসুর।

কোনও তালিকাতেই নাম নেই চন্দ্র বসুর

কোনও তালিকাতেই নাম নেই চন্দ্র বসুর

মঙ্গলবার রাজ্য বিজেপির পূর্ণাঙ্গ রাজ্য কমিটি ঘোষণা করা হয়। ৯৬ জনের রাজ্য কমিটি ছাড়াও আমন্ত্রিতদের ১১০ জনের তালিকাও প্রকাস করা হয়। প্রকাশ করা হয় বিশেষ আমন্ত্রিতের ২১ জনের তালিকা। কোনও তালিকাতেই চন্দ্র বসুকে স্থান দেওয়া হয়নি। বঙ্গ বিজেপিতে তিনি এই মুহূর্তে একজন সাধারণ সদস্য স্রেফ।

মোদীর হাত ধরে বিজেপিতে প্রবেশ, তবু ব্রাত্য

মোদীর হাত ধরে বিজেপিতে প্রবেশ, তবু ব্রাত্য

এর আগে রাজ্য বিজেপিতে সাংগঠনিক রদবদল করে নেতৃত্বে নতুন মুখ নিয়ে আসা হয়। সেখানে দলত্যাগী তৃণমূল নেতা, সিপিএম নেতাদের ভিড় ছিল। কিন্তু ঠাঁই দেওয়া হয়নি বিজেপির সহ সভাপতি চন্দ্র বসুকে। নরেন্দ্র মোদীর হাত ধরে বিজেপিতে প্রবেশ যাঁর, সেই চন্দ্র বসু অপসারিত হন সহ সভপতি পদ থেকে।

একেবারে কমিটি থেকে আউট চন্দ্র বসুর নাম

একেবারে কমিটি থেকে আউট চন্দ্র বসুর নাম

সম্প্রতি বহু বিষয়ে তাঁর সঙ্গে বিজেপির মতপার্থক্য হয়েছিল। তিনি রাজ্য বিজেপির সমালোচনা করেছিলেন, রাজ্য বিজেপি সভাপতিকে অযোগ্য বলেছিলেন, সমালোচনা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদীরও। তারপরই চন্দ্র বসুর নাম বাদ পড়ে কমিটি থেকে। সহ সভাপতি থেকে অপসারণের পাশাপাশি একেবারে কমিটি থেকে আউট করে দেওয়া হল তাঁকে।

২৫ শতাংশেরও বেশি নতুন মুখ বিজেপির কমিটিতে

২৫ শতাংশেরও বেশি নতুন মুখ বিজেপির কমিটিতে

এবার যে পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হয়, তাতে ২৫ শতাংশেরও বেশি নতুন মুখ আনা হয়েছে। স্থান পেয়েছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়, শুভ্রাংশু রায়, শঙ্কুদেব পাণ্ডার মতো তৃণমূলত্যাগী নেতারা। কিন্তু চন্দ্রকুমার বসুকে বিজেপির বেঙ্গল ইউনিটে রাখা হয়নি।তাঁকে সংগঠনের কোনও পদ দেওয়া হয়নি। এবার কমিটিতেও স্থান দেওয়া হল না।

সমালোচনার খেসারত! অপসারিত চন্দ্র বসু

সমালোচনার খেসারত! অপসারিত চন্দ্র বসু

বঙ্গ বিজেপির সূত্র জানিয়েছে যে, চন্দ্র বসুর দলবিরোধী ক্রিয়াকলাপের কারণে দলের রাজ্য নেতৃত্ব বিচলিত ছিল। বিভিন্ন বিষয়ে, যেমন- সিএএ ইস্যুতে বিজেপির আক্রমণাত্মক অবস্থান থেকে শুরু করে লকডাউন দ্বারা অভিবাসীদের দুর্দশার দিকে নজর দেওয়া পর্যন্ত নানা ইস্যুতে তিনি তাঁর টুইটার হ্যান্ডেলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন।

দুর্গাপুজো নিয়ে যারা ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে তাদের কান ধরে ওঠবোস করান, নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

শোভন বিজেপিতেই! ২০২১-এর আগে নতুন চমকে 'বিরাট' ধাক্কা তৃণমূলকে

English summary
Netaji’s grandson Chandra Bose doesn’t get place in BJP’s state committee
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X