Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

হঠাৎই কুণাল ঘোষের বাড়িতে বিজেপি নেতা মুকুল রায়, 'মান অভিমান' নিয়ে হল কথা

  • Posted By: Dibyendu
Subscribe to Oneindia News

বুধবার রাতে কুণাল ঘোষের বাড়িতে গেলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। সেখানে বেশ কিছুক্ষণ কথা বলেন তাঁরা। বিষয়টিকে সৌজন্য সাক্ষাৎ বলেই বর্ণনা করেছেন তাঁরা।

হঠাৎই কুণালের বাড়িতে মুকুল, 'মান অভিমান' নিয়ে হল কথা

[আরও পড়ুন:বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর নারদ কাণ্ডে ইডির জেরা সামনে মুকুল]

দুর্গাপুজোর উদ্বোধনের কুণাল ঘোষের পাড়ায় দেখা গিয়েছিলেন মুকুল রায়কে। এর পরেই একাধিকবার মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন কুণাল ঘোষ। তিনি বলেছিলেন, অরুণ জেটলি না বাঁচালে জেলে থাকতে হত বলে মুকুল রায়কে। শুধু বিজেপি নয়, দলবদলের জন্য তিনি কংগ্রেসের সঙ্গেও কথা বলেছিলেন বলেও জানিয়েছিলেন কুণাল।

তৃণমূলে তৎকালীন দ্বিতীয় স্থানাধিকারীর একাধিক পদক্ষেপের কথা সামনে এনেছিলেন কুণাল ঘোষ। ২০১২ সালে ইউপিএ ছাড়ার সিদ্ধান্তের সময়ে কোর কমিটির বৈঠকের উল্লেখ করেছিলেন কুণাল ঘোষ। তাঁর দাবি, কোর কমিটির বৈঠকে ইউপিএ ছাড়ার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছিলেন সৌগত রায়, সুখেন্দুশেখর রায় এবং কুণাল ঘোষ নিজে। সেই সিদ্ধান্তের কোনও বিরোধিতা করেননি মুকুল রায়।

তৃণমূল ছেড়ে কংগ্রেস যেতে একসময়ে রাহুল গান্ধীর সঙ্গে দেখা করেছিলেন মুকুল রায়। যদিও বুধবার রাজ্যসভার সদস্যপদ ত্যাগের পর করা সাংবাদিক বৈঠকে রাহুল গান্ধী ও পরিবারতন্ত্র নিয়ে কটাক্ষ করেছিলেন মুকুল রায়। বিষয়টি নিয়ে কুণাল ঘোষের প্রশ্ন ছিল, যদি তখন রাহুল গান্ধী দলে নিতেন, তাহলে বিজেপির বিরুদ্ধে বলতেন মুকুল রায়। একইসঙ্গে পরিবারতন্ত্রের কারণেই মুকুল রায়ে পুত্র শুভ্রাংশু রায় এখন বিজপুরের বিধায়ক বলেও মন্তব্য করেছিলেন সাসপেন্ডেড তৃণমূল সাংসদ কুণাল ঘোষ। একই কারণে শুভ্রাংশুকে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কার্যনির্বাহী সভাপতিও করা হয় বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

মুকুল রায় কুণাল ঘোষের পুজোর উদ্বোধনে যাওয়ার পরেই, সেই পুজোতেও যায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শারদ শুভেচ্ছা। দলের সাসপেন্ডেড সাংসদ কুণাল ঘোষ আবার মুখ্যমন্ত্রীর পাঠানো শুভেচ্ছা-বার্তা ফেসবুকে পোস্ট করে ফলাও করে জানিয়েও ছিলেন সেই কথা।

বুধবার রাতে কুণাল ঘোষের বাড়ি থেকে বেরনোর পর বিজেপি নেতা মুকুল রায় জানা, সৌজন্য সাক্ষাতে এসেছিলাম। মান অভিমান হয়েছিল হয়তো। তাই বলে মুখ দেখাদেখি বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরিস্থিতি হয়নি বলেও মন্তব্য করেছেন মুকুল রায়।

অন্যদিকে, কুণাল ঘোষ পরে ফেসবুক পোস্টে বলেন,  দুজনের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। কিছু বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। উনি ওঁর জীবনে একটি নতুন রাজনৈতিক ইনিংস শুরু করেছেন। তিনি ব্যক্তিগতভাবে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। কিন্তু তাঁর কিছু রাজনৈতিক দ্বিমত আছে। একইসঙ্গে তিনি জানান, মুকুল রায় যা বলেছেন, তার একটি অংশ বাস্তবসম্মত। কিন্তু তিনি নিজেকে এখনও একজন পুরনো, কঠিন দিনের তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী বা সৈনিক বলে মনে করেন। তাঁর কিছু ইস্যুভিত্তিক বক্তব্য আছে। জীবনের খুব কঠিন দিনেও দল ছাড়ার কথা ভাবেননি বলে জানিয়েছেন কুণাল ঘোষ। অন্য কোনও দলে যাওয়ার চিন্তাভাবনা তাঁর নেই বলেই জানিয়েছেন কুণাল ঘোষ।

[আরও পড়ুন:ঋতব্রতর ধর্ষণ মামলায় জড়িয়ে গেল মুকুল রায়ের নাম, চারটি ধারায় মামলা দায়ের পুলিশের]

English summary
Mukul Roy meets Kunal Ghosh at his house in Kolkata. They talked for some times.
Please Wait while comments are loading...