• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বাড়ি ফেরার আজব ফন্দি! ২৫ হাজার কেজি পিঁয়াজ কিনে হাজার কিমি পাড়ি লকডাউনে

করোনার মহামারী চলছে দেশজুড়ে। আর করোনা সংক্রমণ রুখতে লকডাউনের জেরে বিপদে পড়েছে দেশের গরিব-গুর্বরা, পরিযায়ী শ্রমিকরা। এই অবস্থায় একেবার নাটকীয় এক পদক্ষেপ নিলেন এক শ্রমিক। করোনভাইরাস মহামারীতে লকডাউনের নিয়ম ভেঙে বাড়ি আসতে ফাঁদলেন অভিনব এক ফন্দি। সত্যিই প্রশংসাযোগ্য সেই পরিকল্পনা।

বাড়ি ফেরার কাহিনি বেশ নাটকীয়

বাড়ি ফেরার কাহিনি বেশ নাটকীয়

নাম তাঁর প্রেমমুর্তি পান্ডে। সেই ব্যক্তিই করোনভাইরাস লকডাউন থেকে পালাতে নাটকীয় ফন্দি আঁটেন। শাকসবজি বিক্রেতা সেজে উত্তরপ্রদেশের নিজের বাড়িতে পৌঁছতে সক্ষম হন তিনি। তাঁর এই ঘরে ফেরার কাহিনি বেশ আকর্ষণীয় এবং অভিনবও বটে। পুরো দেশ যখন লকডাউনে রয়েছে, তখন ১০০০ কিলোমিটারেরও বেশি ভ্রমণ করে তিনি ফিরলেন বাড়ি।

২১ দিন লকডাউন কাটিয়ে হাজার কিমি পাড়ি

২১ দিন লকডাউন কাটিয়ে হাজার কিমি পাড়ি

প্রেমমূর্তি মুম্বই থেকে শুরু করে উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজে তাঁর বাড়িতে পৌঁছন। তিনি বলেন, লকডাউন চলাকালীন আমি মুম্বইয়ে ২১ দিন কাটিয়েছি। তবে শীঘ্রই লকডাউন শেষ হওয়ার কোনও লক্ষণ না থাকায়, বাড়িতে পৌঁছনোর একটি উপায় খুঁজেতে থাকি। পেয়েও যাই। তারপর পেঁয়াজ ব্যবসায়ী সেজে সটান হাজার কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে বাড়ি।

পেঁয়াজের ব্যবসায়ী সেজে বাড়ি

পেঁয়াজের ব্যবসায়ী সেজে বাড়ি

পান্ডে প্রথমে মুম্বই থেকে মহারাষ্ট্রের পিম্পলগাঁওয়ে হেঁটেছিলেন। তারপরে তিনি ১৩০০ কেজি তরমুজ কিনে মুম্বাইতে নিয়ে যান। তিনি ইতিমধ্যে মুম্বাইয়ের একটি ফল বিক্রেতার সাথে এই চুক্তি করেছিলেন। এরপর পিম্পালগাঁওয়ের পেঁয়াজের ব্যবসা পান্ডের নজর কেড়েছিল। তিনি সাবধানে বাণিজ্যটি পর্যবেক্ষণ করেন এবং দ্রুত লকডাউন থেকে বাঁচার জন্য তাঁর পরিকল্পনাটি বাস্তবায়িত করেন।

২৫ হাজার কেজি পেঁয়াজে ট্রাকভর্তি

২৫ হাজার কেজি পেঁয়াজে ট্রাকভর্তি

তিনি পিপলগাঁওয়ে ২৫ হাজার কেজি পেঁয়াজ কিনতে ২ লক্ষেরও বেশি ব্যয় করেছেন। একটি ট্রাকে পেঁয়াজ লোড করার পরে পান্ডে প্রয়াগরাজের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন। ট্রাকভর্তি শাকসবজি প্রয়োজনীয় সামগ্রীর আওতায় আসায় চেকপয়েন্টগুলি এড়ানো তার পক্ষে সক্ষম হয়েছিল। এই পরিকল্পনাই তাঁকে সাফল্যের পথ দেখায়।

প্রয়াগরাজে পৌঁছে পেঁয়াজ বিক্রির চেষ্টা

প্রয়াগরাজে পৌঁছে পেঁয়াজ বিক্রির চেষ্টা

পান্ডে ২৩ শে এপ্রিল প্রয়াগরাজে পৌঁছেছিলেন। তারপরে তিনি পেঁয়াজ বিক্রি করার জন্য সরাসরি বাজারের দিকে যাত্রা করেছিলেন। তবে স্থানীয় বাজারগুলি যেহেতু পেঁয়াজ মজুত ছিল, তিনি ভালো দাম পাচ্ছিলেন না। প্রেমমুর্তি পান্ডে এখন স্থানীয় বাজারের পেঁয়াজ শেষ হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন, যাতে তিনি পোঁয়াজ বিক্রি করতে পারেন। ভালো লাভ করতে তিনি আশাবাদী।

কাহিনি আকর্ষণীয় এবং মজাদার কিন্তু আইনবিরুদ্ধ

কাহিনি আকর্ষণীয় এবং মজাদার কিন্তু আইনবিরুদ্ধ

যদিও পান্ডের কাহিনি আকর্ষণীয় এবং মজাদার, কিন্তু তিনি যা করেছিলেন তা বর্তমানে লকডাউন নিয়মের বিরুদ্ধে ছিল। করোনাভাইরাস লকডাউনটি দেশে রয়েছে এবং সরকার সবাইকে যেখানে রয়েছে সেখানে থাকতে বলেছে। পান্ডে কর্তৃপক্ষকে তার ভ্রমণের বিষয়ে অবহিত করেছেন এবং বিচ্ছিন্ন থাকছেন। একটি মেডিকেল দল তাকে পরীক্ষা করেছে।

নিজের বাড়িতে অবস্থানে রাহুল সিনহা, করোনায় রাজনীতি নয় এই ইস্যুতে ৩ ঘন্টা অবস্থান

করোনা যুদ্ধে ভারত: লকডাউন উঠলেই কেন্দ্র কোন 'বড়সড়' ব্যবস্থা নিতে চলেছে! উঠছে প্রবাসী-প্রসঙ্গ

English summary
Man brews to escapes in lockdown buying 25,000 kg onions as a vegetable seller. He returns from Maharashtra to Uttar Pradesh almost 1000 km
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X