• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

হিংসুটে, রাজনৈতিক কোট বাবুরা এই কাজ করছেন! শিক্ষক নিয়োগে প্রক্রিয়াতে স্থগিতাদেশে বিস্ফোরক মমতা

পুজোর আগেই শিক্ষক নিয়োগ করা হবে বলে ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মতো পর্ষদকে নির্দেশও দিয়েছিলেন তিনি। আর সেই প্রস্তুতি শুরু হতেই ধাক্কা। নিয়োগে ভুরি ভুরি অভিযোগ তুলে কলকাতা হাইকোর্টর দ্বারস্থ হয়েছিলেন বেশ কয়েক
  • |
Google Oneindia Bengali News

পুজোর আগেই শিক্ষক নিয়োগ করা হবে বলে ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মতো পর্ষদকে নির্দেশও দিয়েছিলেন তিনি। আর সেই প্রস্তুতি শুরু হতেই ধাক্কা। নিয়োগে ভুরি ভুরি অভিযোগ তুলে কলকাতা হাইকোর্টর দ্বারস্থ হয়েছিলেন বেশ কয়েকজন আবেদনকারী। আজ বুধবার সেই সংক্রান্ত মামলার শুনানি হয় কলকাতা হাইকোর্টে।

দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের সমস্ত প্রক্রিয়ার উপর স্থগিতাদেশ দিয়ে দিয়েছে। যার ফলে ঝুলে রইল প্রায় ১৪ হাজার চাকরীপ্রার্থীদের ভাগ্য।

ক্ষুব্ধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ক্ষুব্ধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

আইনি জটিলতায় বারবার নিয়োগ আটকে যাওয়ার জন্যে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর প্রশ্ন, কারা এই ধরনের কাজ করছ? শুধু তাই নয়, মমতা বলেন, যখনও দেখি ছাত্র-ছাত্রীদের একটা নিয়োগের ব্যাপারে কাজ শুরু হচ্ছে তখনই একটা করে মামলা ঠুকে দিচ্ছে! এটা যারা করছে তাঁরা অন্যায় করছে বলে তোপ নেত্রীর। গত দুই থেকে তিন বছর ধরে আটকে রয়েছে নিয়োগ। শুধু আইনি জটিলতার কারণে করে ওঠা যাচ্ছে না। চাকরি পাবে ৩৫ হাজার ছেলে মেয়ে! সব তৈরি সেখানে হঠাত করে একটা মামলা করে দিচ্ছে। এটা অন্যায়।

ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ আগে ভাবা হোক

ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ আগে ভাবা হোক

আদালতের নির্দেশ নিয়ে আমি কিছু বলব না, মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রী মমতার বন্দ্যয়াপধায়ের। তবে ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যতের কথা ভাবা উচিৎ বলে দাবি তাঁর। হাইকোর্টের নির্দেশে নতুন করে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। ফের আবার গিয়ে মামলা করেছে। আইনজীবীদের না দাঁড় করিয়ে দফতরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারিকে আদালতে দাঁড়িয়ে শুনানিতে অংশ নেওয়ার নির্দেশ মমতার। সেখানে পরীক্ষারথীদের অবস্থার কথা তুলে ধরুন। দীর্ঘদিন ধীরে ৩৫ হাজার ছাত্রছাত্রী অপেক্ষা করে আছে। সব রেডি থাকা স্বত্বেও তাঁদের নিয়োগ করা যাচ্ছে না বলে অভিযোগ মমতার। শুধু তাই নয়, সঙ্গে সঙ্গে নিয়োগ প্রক্রিয়াটা করে ফেলার নির্দেশেও দেন মমতা তিনি।

হিংসুটে বলে আক্রমণ!

হিংসুটে বলে আক্রমণ!

এখন অনেক কোটবাবু হয়েছেন। রাজনৈতিক নেতারা কোট করে উকিল হয়েছেন। তাঁরা এই সব কাজ করছেন। কোর্টের কোনও দোষ নেই। সারাদিন একটা করে ক্ষুত খুঁজে বেরাচ্ছে আর মামলা করছে। পড়ুয়ারা চাকরি পাক ওরা চায় না। হিংসুটে, জেলাস ফিল করছে বলেও আক্রমণ মমতা বন্দ্যপাধ্যায়ের।

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পের সূচনা

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পের সূচনা

অন্যদিকে বুধবার স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পের সূচনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটের আগে কথা দিয়েছিলেন। ইস্তাহারে ছাত্রবন্ধু হওয়ার বার্তায় তিনি জানিয়েছিলেন, সরকারে ফিরলেই ছাত্রছাত্রীদের জন্য ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সহজ শর্তে শিক্ষাঋণ পেতে ক্রেডিট কার্ড চালু করবেন তিনি। সেই কথা রাখলেন। রাজ্যে চালু হল স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড।

English summary
mamta banerjee reaction on calcutta high court order on teacher job stay order
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X