• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মমতার বাংলা ফের দেশ-সেরা, ‘জলস্বপ্ন’-এ মোদী-যোগীর রাজ্যকে ফেলল বহু পিছনে

Google Oneindia Bengali News

বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর 'জলস্বপ্ন' প্রকল্পকে পাথেয় করে ফের একবার টেক্কা দিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর গুজরাট ও যোগী আদিত্যনাথের উত্তরপ্রদেশকে। এমনকী অন্য কোনও রাজ্যও বাংলার ধারেকাছে নেই। বাংলা আবার দেশ সেরার তকমা পেল বাড়ি বাড়ি নলবাহিত পানীয় জল প্রকল্পের বাস্তবায়ন ঘটিয়ে।

যার মাথায় দিদির হাত সেই খাবে জেলের ভাত,তীব্র কটাক্ষ সুজন চক্রবর্তীর

পশ্চিমবঙ্গ দেশের সেরা

পশ্চিমবঙ্গ দেশের সেরা

২০২১-২২ অর্থবর্ষে সারা দেশে ‘জলস্বপ্ন' প্রকল্পে বাড়ি বাড়ি জল পৌঁছে দিয়ে পশ্চিমবঙ্গে দেশের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছে। প্রথম দুয়ে নেই বিজেপিশাসিত কোনও রাজ্য। প্রথম দুই রাজ্য হল মমতার বাংলা, নবীন পট্টনায়কের ওড়িশা। আর বিজেপির জোটসঙ্গী নীতীশ কুমারের বিহার রয়েছে তৃতীয় স্থানে। চতুর্থ স্থানে রয়েছে কর্নাটক।

বাংলার ‘জলস্বপ্ন' প্রকল্পের টেক্কা মোদীকে

বাংলার ‘জলস্বপ্ন' প্রকল্পের টেক্কা মোদীকে

২০১৯ সালের ১৫ অগাস্ট ‘জল জীবন মিশন' নামে একটি প্রকল্প ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর বাংলায় ছিল একইরকম এক প্রকল্প ‘জলস্বপ্ন'। দুই প্রকল্পেরই উদ্দেশ্য ছিল গ্রামে গ্রামে পানীয় জল পৌঁছে দেওয়া, বাড়ি বাড়ি পানীয় জলের সংযোগ দেওয়া। সেই মহাযজ্ঞে বাংলার ‘জলস্বপ্ন' প্রকল্প সেরা হয়েছে।

মমতার স্বপ্নের প্রকল্প এই ‘জলস্বপ্ন'

মমতার স্বপ্নের প্রকল্প এই ‘জলস্বপ্ন'

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম স্বপ্নের প্রকল্প এই ‘জলস্বপ্ন'। এই প্রকল্পে ভর করে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের জনস্বাস্থ্য কারিগরি দফতর গ্রামবাংলায় পানীয় জল পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার সংকল্প নিয়েছে। বাংলার গ্রামাঞ্চলে উন্নয়নের জোয়ার আনতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের কাছে এই ‘জলস্বপ্ন' হয়ে উঠেছে প্রধান হাতিয়ার।

বাংলার ধারে কাছে কেউ নেই

বাংলার ধারে কাছে কেউ নেই

সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, সারা দেশের নিরিখে এই প্রকল্পের আওতায় বাংলার ধারে কাছে কেউ নেই। ২০২১-২২ অর্থবর্ষে বাংলায় মোট ২৩ লক্ষ ৩৭ হাজার ১৯৩টি বাড়িতে নতুন করে নলবাহিত পানীয় জল পৌঁছে দিয়েছে মমতার সরকার। আর ওড়িশায় পানীয় জলসংযোগ পেয়েছে ১৭ লক্ষ ৪৭ হাজার ৬২২টি পরিবার।

কোন রাজ্য কোন পজিশনে

কোন রাজ্য কোন পজিশনে

ত়ৃতীয় স্থানে থাকা বিহারে পানীয় জল পৌঁছেছে ১৭ লক্ষ ৩৯ হাজার ৮৫৯টি বাড়িতে। বিজেপিশাসিত কর্নাটকে ১৭ লক্ষ ৩৯ হাজার ২১৫ বাড়িতে সংযোগ দেওয়া হয়েছে পানীয় জলের। এই তালিকায় অনেক পিছনে মোদীর গুজরাট ও যোগীর উত্তরপ্রদেশ। ফলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মোদী ও যোগীকে টেক্কা দিয়ে এগিয়ে গিয়েছে ‘জলস্বপ্ন' প্রকল্পে।

মার্চের নিরিখে কোন অবস্থানে কে

মার্চের নিরিখে কোন অবস্থানে কে

শুধু মার্চ মাসে অন্ধ্রপ্রদেশে ৪ লক্ষ ৭ হাজার ৫৯৮টি বাড়িতে পানীয় জল পেয়েছে। আর এই তালিকায় পশ্চিমবঙ্গ রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। মোট ২ লক্ষ ৬৩ হাজার ২২৯টি বাড়িতে পানীয় জল সংযোগ দেওয়া হয়েছে। তৃতীয় ও চতুর্থস্থানে অসম ও ওড়িশা।

বাংলার কোন জেলা কোন পজিশনে

বাংলার কোন জেলা কোন পজিশনে

আর পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে মার্চে মাসে সবথেকে বেশি নদিয়ার বাড়িতে বাড়িতে জল পৌঁছেছে। নদিয়ায় জল পৌঁছে দেওয়া হয়েছে ৪৬ হাজার ৩৮৭টি পরিবারে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মুর্শিদাবাদ। আর তিন ও চার নম্বর স্থানে রয়েছে যথাক্রমে উত্তর ২৪ পরগনা ও বাঁকুড়া। যথাক্রমে এই তিন জেলায় পানীয় জল সংযোগ পেয়েছে ৩৯ হাজার ২৩৭, ২৭ হাজার ৫২৭ ও ২২ হাজার ৮০৯টি পরিবার। জনস্বাস্থ্য কারিগরি মন্ত্রী পুলক রায় বলেন, ২০২৪ সালের মধ্যে প্রত্যেকটি পরিবারে পানীয় জন পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁরা সেই লক্ষ্যপূরণে বদ্ধপরিকর।

English summary
Mamata Banerjee’s West Bengal takes first place having provided drinking water connection.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X