• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

পুরসভা-পঞ্চায়েতে ব্যালটে ভোট, ইভিএমে নয়! নির্বাচন কমিশনে সরব হবেন তৃণমূলনেত্রী মমতা

২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় বিজেপির উত্থান হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস ৪২-এ ৪২-এর টার্গেট পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। মাত্র ২২টি আসন পেয়েছে তৃণমূল। সেখানে বিজেপি ১৮টি আসন লাভ করে তৃণমূলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে। এই অবস্থায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাখ্যা বিজেপির এই জয় এসেছে চিটিং করে। অবিলম্বে ব্যালট ফেরাতে হবে।

পঞ্চায়েত ও পুরসভা ভোট ব্যালটে

পঞ্চায়েত ও পুরসভা ভোট ব্যালটে

এই মর্মেই তিনি পঞ্চায়েত ও পুরসভা ভোট ব্যালটে করার দাবি জানান। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের কাছে আমরা আর্জি জানাব ব্যালটে ভোট করার। পঞ্চায়েত ও পুরসভা ভোট ব্যালটে হবে। বিগত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি চিটিং করে জিতেছে। ইভিএম, সিআরপিএফ, কেন্দ্রীয় পুলিশ এবং নির্বাচন কমিশনের সহায়তা নিয়ে জয় পেয়েছে। নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়নি।

১৮টা আসনে জিতেই সাপের পাঁচ পা

১৮টা আসনে জিতেই সাপের পাঁচ পা

মমতার অভিযোগ, তাও মাত্র ১৮টা আসনে জিতেছে বিজেপি। তাতেই সাপের পাঁচ পা দেখেছে। আমরা ২৬টা সিট জিতেছিলাম ২০০৯-এ। তারপরও একটা পার্টি অফিসেও হাত দিইনি। বিজেপি চুরি করে ১৮টা আসনে জিতেই বদলা নিতে শুরু করেছে। বিজেপিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, তোমরা ১৮, বাকি ২৪টায় আমরা। তাই এমন কোরো না যাতে আমাদের ডেঞ্জার লেভেল ক্রস করতে হয়। তাহলে আমাদের থেকে ভয়ানক কেউ হবে না।

বিজেপি আগে ৩৪ বছর লড়াই কর

বিজেপি আগে ৩৪ বছর লড়াই কর

মমতা বিজেপিকে তোপ দেগে বলেন, আগে ৩৪ বছর লড়াই কর। তারপর বাংলায় ক্ষমতালাভের কথা ভাবো। বাইরের ধার করা নেতাদের অনে বাংলা জয় করত পারবে না। তাঁর অভিযোগ, আরএসএসের গুন্ডাদের নিয়ে এসে বিজেপি ভোট করেছে। ইভিএমে কারচুপি করে জয় পেয়েছে বিজেপি, টাকা ছড়িয়ে জিতেছে বিজেপি।

বিজেপি জিতলে ভাটপাড়া হয়

বিজেপি জিতলে ভাটপাড়া হয়

তিনি বলেন, বিজেপি জিতলে ভাটপাড়া হয়। আমরা জিতলে শান্তি থাকে। সাত বছর কোনও অশান্তি হয়নি। এখন বিজেপি আসার চেষ্টা করতেই রাজ্য অশান্ত হচ্ছে। আমরা শান্তির পক্ষে। আমরা বদলার রাজনীতি করি না। আমরা যদি পাল্টা দিতে শুরু করি বিজেপি উড়ে যাবে। বিজেপিকে সাবধান করে তিনি বলেন, আমাদের লিমিট ক্রস করতে বাধ্য করবেন না।

নোটবন্দির টাকায় বিজেপি ভোট করেছে

নোটবন্দির টাকায় বিজেপি ভোট করেছে

মমতা বলেন, বিজেপি নোটবন্দি করেছে, সেই টাকা আত্মসাৎ করে বিজেপি ভোট করেছে। নোটবন্দি করা হয়েছিল ব্ল্যাকমানি ফেরতের কথা বলে। একটাও ব্ল্যাকমানি ফেরেনি। ১৫ লক্ষ টাকা করে জনতার অ্যাকাউন্টে জমা পড়েনি। উল্টে মানুষ কাজ হারিয়েছেন। কর্মসংস্থানে প্রভাব পড়েছে।

English summary
Mamata Banerjee request EC to conduct Panchayat and Municipal Elections through Ballot Paper
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X