Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

মুকুল ঘনিষ্ঠতার মাশুল, প্রশাসনিক বৈঠকে মন্ত্রীর ডানা ছাঁটলেন মমতা

Subscribe to Oneindia News

প্রশাসনিক বৈঠকের শুরু থেকেই অগ্নিশর্মা মেজাজে ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কাউকে ছাড়েননি। জেলাশাসক থেকে শুরু করে পুলিশ সুপার, বিধায়ক, মন্ত্রী- জনে জনে দাঁড় করিয়ে ধমক দিয়েছেন। কেন তিনি উচ্চস্বরে বাজছিলেন এদিন, তা স্পষ্ট হল বৈঠকের পরই। শুধু ধমক দিয়েই ক্ষান্ত হলেন না তিনি। মন্ত্রী চূড়ামণি মাহাতোকে সরিয়ে দিলেন পদ থেকে।

কিন্তু কেন এই সিদ্ধান্ত? স্বাভাবিকভাবেই উঠে পড়েছিল সেই অমোঘ প্রশ্নটা। রাজনৈতিক মহল মনে করছে মুকুল ঘনিষ্ঠ হওয়ার কারণেই ঝাড়গ্রাম জেলা সভাপতির পদ থেকে অপসারিত হলেন মন্ত্রী চূড়ামণি মাহাতো। তাঁর স্থলাভিষিক্ত হলেন অজিত মাইতি। তিনিই এখন থেকে ঝাড়গ্রাম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন।

মুকুল ঘনিষ্ঠতার মাশুল, মন্ত্রীর ডানা ছাঁটলেন মমতা

মুখ্যমন্ত্রীর জঙ্গলমহল সফরের শুরুতেই মুকুল ছায়া তাড়া করে বেড়াতে শুরু করল তৃণমূলকে। মুকুল রায় দল থেকে বহিষ্কৃত হওয়ার পরই পুজোর পর জঙ্গলমহল সফরে যাওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জঙ্গলমহলে মুকুলপন্থীদের উচিত শিক্ষা দিয়ে দলের সংগঠনকে মজবুত করাই এই সফরের উদ্দেশ্য ছিল বলে মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

আর সেই কাজ মমতা জেলা সফরের প্রথম থেকেই শুরু করে দিয়েছেন। প্রশসানিক বৈঠকে মন্ত্রী চূড়ামণি মাহাতোকে দাঁড় করিয়ে ধমক দেন তিনি। মন্ত্রীকে ধমক দিয়ে তিনি বলেন, 'বাড়িতে বসে থাকলে চলবে না। মানুষের সঙ্গে মিশতে হবে। জনসংযোগ তৈরি করতে হবে।'

এখানেই শেষ হয়নি মন্ত্রীকে ধমক। তিনি সকলের সামনেই মন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন, 'আগে তো চাষ করতে, এখন কী কর। বিধায়ক হয়েও এলাকার উন্নয়নে লক্ষ্য নেই কেন। আমার কাছে সব খবর আছে। এখনও সময় আছে, সাবধান হও। আমি এসব বরদাস্ত করব না।'

এরপরই চূড়ামণি মাহাতোকে জেলা সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় দলের তরফে। তাঁর জায়গায় অজিত মাইতিকে সভাপতি করা হয়। এর পিছনে মুকুল-যোগই দেখছে রাজনৈতিক মহল। কেননা চূড়ামণি মাহাতো মুকুল রায় ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত। তিনি এলাকায় আলাদা দল করার চেষ্টা করছেন বলে খবর ছিল। তারই প্রতিফলন ঘটল এদিনের বৈঠকে। তাঁকে পদ থেকে সরিয়ে সতর্ক করা হল। এরপরও সোজা রাস্তায় না এলে তৃণমূল অন্য কিছু ভাববে বলেই মনে করা হচ্ছে।

English summary
Mamata Banerjee orders to sack the Minister from his District president Post.
Please Wait while comments are loading...