‘তুরুপের তাস’ নিয়ে পাহাড় বৈঠকে স্বমহিমায় মমতা, গুরুংয়ের আসনে তাহলে কে

Subscribe to Oneindia News

এবার কি তবে পাকাপাকিভাবে বিমল গুরুংয়ের জায়গায় বিনয় তামাংকে বসাতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়? নাকি অন্য কেউ হবেন মমতার ঘুঁটি? পর্যটনের মরশুমে পাহাড়ে শান্তির বাতাবরণ তৈরি করতে মুখ্যমন্ত্রী এবার নতুন কৌশল নিতে পারেন। সেই লক্ষ্যেই তিনি পাঁচ মাস পর উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়েছেন। মঙ্গলবার শিলিগুড়িতে সর্বদল বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী পাহাড় নিয়ে তাঁর সিদ্ধান্তের কথা জানাবেন।

‘তুরুপের তাস’ নিয়ে পাহাড় বৈঠকে স্বমহিমায় মমতা, গুরুংয়ের আসনে তাহলে কে

[আরও পড়ুন:ফোনে আড়ি পাতা কাণ্ডে আজ শুনানি আদালতে, মুকুল বনাম মমতা সরকারের লড়াই এবার দিল্লিতে]

গুরুংয়ের ডানহাত বলে পরিচিত বিনয় তামাংকে 'শিখণ্ডী' করেই পাহাড়কে ফের হাতের মুঠোয় আনতে সক্ষম হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বিমল গুরুংয়ের মতো দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতাকে তিনি পাহাড় ছাড়া করে ছেড়েছেন। তাঁর বিষদাঁত ভেঙে দিয়ে পাহাড়কে ফের নতুন করে সাজানোই মুখ্যমন্ত্রীর লক্ষ্য বলে জানা গিয়েছে। সেই লক্ষ্যেই মমতার তুরুপের তাস হবেন বিনয় তামাং। তাই তাঁকেই পাকাপাকিভাবে বিমল গুরুংয়ের জায়গায় বসাতে চলেছেন মমতা।

মঙ্গলবার দুপুরে শিলিগুড়ির পিনটেল ভিলেজে পাহাড় নিয়ে বসছে সর্বদল বৈঠক। সেই বৈঠকেই বিনয় তামাংয়ের হাতে তামাম পাহাড়ের ব্যাটন তুলে দিতে পারেন মমতা। সেইসঙ্গে বিমল গুরুংয়ের বিদায়ঘণ্টাও পাহাড় থেকে বেজে যাবে। পাহাড় জল্পনার পাকাপাকি সমাধান করতেই এই ব্যবস্থার দিকে হাঁটছেন মুখ্যমন্ত্রী।

‘তুরুপের তাস’ নিয়ে পাহাড় বৈঠকে স্বমহিমায় মমতা, গুরুংয়ের আসনে তাহলে কে

দীর্ঘ সাড়ে তিনমাসের বনধে পাহাড়ের অর্থনৈতিক পরিকাঠামো একেবারেই ভেঙে পড়েছিল। পাহাড় অর্থনীতির মূল ক্ষেত্র পর্যটন ব্যবসাতেই আঘাত নেমে এসেছিল বনধের জেরে। মমতার ধৈর্য আর বুদ্ধির জেরে সেই পাহাড়ে ফের শান্তি ফিরেছে। এবার যাতে স্থিতাবস্থা বজায় রেখে শান্তির পরিবেশ তৈরি করা যায়, ফের পাহাড়মুখী করা যায় পর্যটকদের সেই ব্যাপারেই স্থায়ী সমাধানের দিশা দেখাতে চাইছেন মমতা।

পাহাড় বনধ নিয়ে মোর্চার অন্দরেই ভাঙন শুরু হয়েছিল। গোর্খাল্যান্ডে আন্দোলন কমিটিও এই একই প্রশ্নে ভেঙে গিয়েছিল। অধিকাংশ দলই মোর্চার হিংসার বিরোধিতায় মতপ্রকাশ করায়, সুযোগ কাজে লাগিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিমল গুরুংকে একঘরে করে ছাড়েন। গুরুং যতই বলুন পাহাড়ে গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে আন্দোলন জারি থাকবে, তাঁর সেই ক্ষমতায় লোপ পেয়েছে। তাঁর খাতায় বিনয়-অনীতরা বেইমান বলে চিহ্নিত হলেও, তাঁরাই এখন মমতার বোড়ে। তাই বিনয়-অনীতদের উপরেই পাহাড়ের ভার তুলে দিতে তৎপর হয়েছেন মমতা।

[আরও পড়ুন:ডেঙ্গি ইস্যুতে দিল্লিতে বিজেপির মুখ মুকুল, কেন এমন সিদ্ধান্ত অমিত শাহদের, জেনে নিন]

English summary
Mamata Banerjee gives strong message to Bimal Gurung from peace meeting of Hill
Please Wait while comments are loading...

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.