• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

'অনুপ্রবেশকারীদের প্রতি তৃণমূলের আচরণে ক্ষুব্ধ সবাই, দলের অন্দরেই উঠছে আঙুল'

ফের একবার বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র নিশানায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার অনুপ্রবেশ কাণ্ডে তৃণমূল বিধায়ক শ্যামল মণ্ডলের অভিযোগকে হাতিহার করেই তোপ দাগলেন গেরুয়া শিবিরের এই নেতা। এদিন তিনি টুইটে লেখেন, 'পশ্চিমবঙ্গে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের প্রতি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নরম পন্থার জেরে মানুষ বিরক্ত এবং ক্ষুব্ধ।'

তৃণমূলে গোষ্ঠী কোন্দল

তৃণমূলে গোষ্ঠী কোন্দল

এই ঘটনার জেরে তৃণমূলে গোষ্ঠী কোন্দল শুরু হয়েছে, এমনই অভিযোগ এনে কৈলাশ আরও লেখেন, 'এবারে তৃণমূলের অন্দরেই আঙুল উঠতে শুরু করেছে অনুপ্রবেশ নিয়ে তাদের দলের এই নীতির বিরুদ্ধে। সম্প্রতি রাজ্যের বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল এই অনুপ্রেবেশের বিষয়ে চিন্তা ব্যক্ত করে দাবি করেন যে বাংলা বিপদের সম্মুখীন। এদিকে যখন অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে নরম পন্থা গ্রহণ করেছেন, তাহলে কেন অযথা মামলা করার নাটক করা হচ্ছে।'

তৃণমূল বিধায়কের অভিযোগে বিজেপির দাবি পোক্ত

তৃণমূল বিধায়কের অভিযোগে বিজেপির দাবি পোক্ত

প্রসঙ্গত, এতদিন বিজেপি নেতারা অনুপ্রবেশ নিয়ে সরব হলেও তা রাজনৈতিক কারণে করা অভিযোগ বলে উড়িয়ে দেওয়া হত তৃণমূলের তরফে। তবে এবার অনুপ্রবেশ নিয়ে দলেরই দাবির বিরুদ্ধে গিয়ে সরব তৃণমূল বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেখানে অনুপ্রবেশ নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটে থাকেন, তখন নির্বাচনের আগের বছরই দলীয় বিধায়কের এহেন অভিযোগ যে বিরোধীদের হাতে হাতিয়ার তুলে দিল তা বলাই বাহুল্য।

কী বলেন শ্যামল মণ্ডল?

কী বলেন শ্যামল মণ্ডল?

পশ্চিম ক্যানিংয়ের বিধায়ক শ্যামল মণ্ডলের অভিযোগ, বাংলাদেশ থেকে আসা অনুপ্রবেশকারীরা সুন্দরবন এলাকাতে ম্যাংগ্রোভের জঙ্গল সাফ করে দিয়ে সেখানে বসতি গড়ছে। শ্যামল মণ্ডল আরও জানান যে এই মামলার তদন্ত হচ্ছে। যদি সত্যি প্রমাণিত হয় যে বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের রাজ্যে বসবাস করতে দলের একাংশ বা কোনও নেতা সাহায্য করছে, তবে সেই রিপোর্ট তিনি নিজে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে জমা দেবেন।

বাংলাদেশি জঙ্গিদের নজরে কৈলাশ

বাংলাদেশি জঙ্গিদের নজরে কৈলাশ

প্রসঙ্গত, এর আগে চলতি বছরের শুরুর দিকে কৈলাশ অভিযোগ করেছিলেন যে তিনি বাংলাদেশি জঙ্গিদের নজরে রয়েছেন। সেই সময় রাজ্য জুড়ে সিএএ বিরোধী আন্দোলন গড়ে তোলার লক্ষ্যে রাস্তায় নেমেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তখনই নিজের নিরাপত্তা বাড়িয়েছিলেন কৈলাশ। বলেছিলেন, 'বাংলাদেশের জঙ্গিরা আমার উপর এক বছর ধরে নজর রেখে চলেছে। রেকি করছে। এই কারণে এখন আমাকে অস্ত্রধারী নিরাপত্তারক্ষী নিয়ে ঘুরতে হয়।'

পুলিশি অরাজকতা নিয়ে মমতাকে বিঁধেছেন কৈলাশ

পুলিশি অরাজকতা নিয়ে মমতাকে বিঁধেছেন কৈলাশ

এদিকে অনুপ্রবেশ ছাড়াও পুলিশি অরাজকতা নিয়ে মমতাকে বিঁধেছেন কৈলাশ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অধীনে থাকা পুলিশের বিরুদ্ধে সরব হয়ে মঙ্গলবার পূর্ব বর্ধমানের রায়নায় দলীয় সভায় তিনি বলেন, 'যেসব পুলিশ আধিকারিক অপরাধীদের সঙ্গে যুক্ত তাঁদের তালিকা তৈরি করেছে বিজেপি। আমরা ক্ষমতায় এলে তাঁদের চাকরি সমস্যায় পড়বে। সরকারে এলে তাঁদের প্রথমে জেলে ঢোকাব।'

পুলিশকে হুঁশিয়ারি কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র

পুলিশকে হুঁশিয়ারি কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র

এরপর কৈলাশ আরও বলেন, 'যাঁরা ভালো কাজ করবেন তাঁরা বিজেপি সরকারের সম্মান পাবেন। যেসব পুলিশকর্মী দেশের সংবিধান মানেন না, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংবিধান মানেন তাঁদের আমরা জেলে পাঠাব।' এভাবেই পুলিশকে হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্য বিজেপি-র পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়।

English summary
Kailash Vijayvargiya claims that there is rift in TMC due to party line about Bangladeshi intruders
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X