• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মমতার আইনজীবীদেরও রয়েছে রাজনৈতিক যোগ, বিজেপি-সংযোগের জবাবে বিস্ফোরক বিচারপতি কৌশিক চন্দ

Google Oneindia Bengali News

আইনজীবী থাকার সময়ে তিনি বিজেপির (bjp) হয়ে মামলা লড়েছিলেন। বিজেপির কর্মসূচিতেও অংশ নিয়েছিলেন। যেই কারণে নন্দীগ্রাম (nandigram) মামলায় তাঁর এজলাস থেকে মামলা সরানোর দাবি তুলেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (mamata banerjee) আইনজীবী (lawyer)। এদিন শুনানিতে তারই জবাব দিলেন বিচারপতি কৌশিক চন্দ (justice kaushik chanda)।

নন্দীগ্রামের ফলাফলের কারচুপি নিয়ে মামলার ভবিষ্যৎ ঝুলে রইল, রায়দান স্থগিত রাখলেন কৌশিক চন্দ্র
হাইকোর্টের শুনানিতে বিচারপতি চন্দ

হাইকোর্টের শুনানিতে বিচারপতি চন্দ

এদিন শুনানির সময় বিচারপতি কৌশিক চন্দ বলেন আইনজীবীদেরও রাজনৈতিক যোগ রয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে শুনানিতে অংশ নেওয়া অভিষেক মনু সিংভিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন. তিনি কংগ্রেস থেকে অন্যদিকে এসএন মুখোপাধ্যায়ের বিজেপি সংযোগ রয়েছে। কিন্তু তাঁরা দুজনেই তৃণমূল সুপ্রিমোর হয়ে সওয়াল করছেন। তিনি বলেন, যদি অন্য রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গীর আইনজীবীকে বিশ্বাস করা যায়, তাহলে বিচারপতিকে কেন বিশ্বাস করা যাবে না।

 মমতার আইনজীবীর তরফে দুই আবেদন

মমতার আইনজীবীর তরফে দুই আবেদন

এদিন বিচারপতি কৌশিক চন্দ্র বলেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আইনজীবী সঞ্জয় বসু ১৬ জুন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির কাছে চিঠি লিখে কৌশিক চন্দকে নিয়ে আপত্তির কথা জানিয়েছিলেন। সূত্রের থবর অনুযায়ী চিঠিতে বিচারপতি চন্দের পুরনো রাজনৈতিক যোগের কথাও তুলে ধরা হয়েছিল সেই চিঠি। এরপর ২৩ জুন অর্থাৎ বুধবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আইনজীবী কৌশিক চন্দের কাছে সরাসরি মামলা থেকে সরে যাওয়ার জন্য আবেদন করেন। এদিন সেই প্রসঙ্গে বিচারপতি কৌশিক চন্দ বলেন, ১৮ জুন আবেদনকারী না থাকায় তিনি মামলার শুনানির দিন পিছিয়ে বৃহস্পতিবার করে দেন। সেই দিনই কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আইনজীবীরে তাঁদের আপত্তির কথা তাঁর (কৌশিক চন্দ) সামনে তুললেন না। নিয়ম অনুযায়ী, কোনও পক্ষের যদি কোনও বিচারপতিকে নিয়ে আপত্তি থাকে, তাহলে নির্দিষ্ট বিচারপতির কাছে আবেদন করতে হয়।

নির্বাচন কমিশন শুভেন্দু অধিকারীকে জয়ী ঘোষণা করেছে

নির্বাচন কমিশন শুভেন্দু অধিকারীকে জয়ী ঘোষণা করেছে

২ মে গণনার দিন নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে শুভেন্দু অধিকারীকে জয়ী বলে সার্টিফিকেট দেয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারিয়ে ১৯৫৬ ভোটে জয়ী হন নন্দীগ্রামের বিজেপি প্রার্থী। যা নিয়ে তৃণমূল প্রথম থেকেই কারচুপির অভিযোগ করেছিল। তৃণমূল সুপ্রিমো অভিযোগ করেছিলেন, এই ঘটনা ১৯৫১ সালের জনপ্রতিনিধত্ব আইনের ১২৩ নম্বর ধারা ভঙ্গ করেছে। পরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই কেন্দ্রে ফের গণনার জন্য আবেদন দাখিল করেন।

নন্দীগ্রাম মামলার রায়দান স্থগিত

নন্দীগ্রাম মামলার রায়দান স্থগিত

এদিন বেলা ১১ টায় মামলার শুনানি শুরু হয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে সওয়াল করতে হাজির ছিলেন অভিষেক মনু সিংভি। এদিন সওয়াল জবাব চললেও রায়দান স্থগিত রেখেছেন বিচারপতি কৌশিক চন্দ।

জীবনসঙ্গী খুঁজছেন? বাঙ্গালী ম্যাট্রিমনি - নিবন্ধন নিখরচায়!

English summary
Justice Kaushik Chanda's says in Nandigram hearing Mamata Banerjee's lawyer also have political links
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X