• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

নিজের হাতে ছেলেকে পুকুরে ডুবিয়ে খুন, তারপর আত্মঘাতী, কারণ জানলে শিউরে উঠবেন

চার বছরের ছেলেকে পুকুরে ডুবিয়ে খুন করলেন 'নির্মম' বাবা। তারপর নিজেও আত্মঘাতী হলেন তিনি। মর্মান্তিক ও চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটল দক্ষিণ দিনাজপুরের বারোঘরিয়া গ্রামে। জন্মের পর থেকেই অদ্ভুত রোগে ভুগছিল শিশুটির। অনেক চিকিৎসা করেও কোনও সুরাহা হয়নি। শেষপর্যন্ত নিজের সন্তানকে খুন করে নিজেও আত্মহত্যার পথ বেছে নেন বাবা।

নিজের হাতে ছেলেকে পুকুরে ডুবিয়ে খুন, তারপর আত্মঘাতী, কারণ জানলে শিউরে উঠবেন

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নামে পণ্ডিত ওঁরাও ও অভিরাজ ওঁরাও। জন্ম থেকেই শিশুটির কোনও মলদ্বার ছিল না। নাভির উপর এক ছিদ্র দিয়ে সে মলত্যাগ করত। বহু চিকিৎসা করা হয়েছে, অর্থ খরচ হয়েছে। এ মাসেই ফের তার অস্ত্রোপচার করার কথা ছিল। কিন্তু টাকা জোগাড় করতে গিয়ে হিমসিম খাচ্ছিলেন বাবা।

[আরও পড়ুন:অদ্ভুতুড়ে কাণ্ড, অশরীরী-আত্মার কাজ নয় তো! রাত নামলেই আতঙ্ক গ্রাস করছে গ্রামে]

এরপর স্ত্রীকে রান্না করতে বলে অভিরাজকে নিয়ে পাশের পুকুরে চলে যায় পণ্ডিত। তারপর সেখানে নিজের হাতে ছেলেকে জলে ডুবিয়ে খুন করে। এরপরই পুকুর লাগোয়া গাছের ডালে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয় পণ্ডিত। রান্না ঘর থেকে বেরিয়ে স্বামী-সন্তানের কোনও খোঁজ না পেয়ে চিৎকার চেঁচামিচি শুরু করে দেন পণ্ডিতের স্ত্রী।

[আরও পড়ুন:বাঘে-মানুষে লড়াই! শেষ রক্ষা হল না, রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের হানায় মৃত্যু মৎস্যজীবীর]

সোমবার পণ্ডিত ও অভিরাজের দেহ চোখে পড়ে। খবর দেওয়া হয় মালবাজার থানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে জোড়া মৃতদেহ উদ্ধার করে। একইসঙ্গে বাবা-ছেলের মৃত্যুর ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। এলাকায় শোকের ছায়া।

[আরও পড়ুন: স্ত্রী 'শাড়ি' না পরায় সম্পর্কই ভেঙে দিলেন স্বামী, বিচ্ছেদের মামলা গড়াল আদালতে ]

English summary
Father commits suicide after killing his child son to drown in pond. Child suffers unnatural disease and father suffers to search money,
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X