• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সোশ্যাল মিডিয়া নয় পছন্দ রঙ-তুলি! 'ওয়ানইন্ডিয়া'কে প্রথম প্রতিক্রিয়ায় জানাল মাধ্যমিকে সেরা সৌগত

মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ হতেই ফের একবার জেলার মেধাবীদের গর্ব বাংলা জুড়ে। সকলকে ছাপিয়ে মেধা তালিকার শীর্ষে পূর্ব মেদিনীপুর। সেখানের ভগবানপুরের মহম্মদপুর দেশপ্রাণ বিদ্যাপীঠের ছাত্র সৌগত দাস মাধ্যমিকে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। আর সেই খবর ছড়িয়ে পড়তেই সৌগতর পরিবারকে কেন্দ্র করে এখন শুভাকাঙ্খীদের ভিড়। যাবতীয় ব্যস্ততার মধ্যেও 'ওয়ানইন্ডিয়া বাংলা' -র সঙ্গে খোলামেডা আড্ডায় সৌগত জানাল , তার পছন্দ অপছন্দের নানা বিষয়।

সোশ্যাল মিডিয়া নয় পছন্দ রঙ-তুলি! ওয়ানইন্ডিয়াকে প্রথম প্রতিক্রিয়ায় আর কী জানাল সৌগত

'ওয়ানইন্ডিয়া'-র তরফে সৌগতকে অভিন্দন বার্তা জানাতেই , হাসিখুশি সৌগতর উত্তর এলো 'ধন্যবাদ'। এরপরই আড্ডার মেজাজে সৌগত জানায় দিনে ৭ ঘণ্টা নিয়ম করে পড়াশোনা করত সে। তবে সেটা মাধ্যমিকের টেস্টের আগে পর্যন্ত। টেস্টের পর থেকে পড়াশোনার সময়টা বাড়িয়ে দিয়ে ১২ ঘণ্টা হয়ে যায়। সৌগত জানিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় তার কোনও অ্যাকাউন্ট নেই। সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে কোনও মাথাব্যথাও নেই মাধ্যমিকের এই প্রথমস্থানাধিকারীর। তবে ইন্টারনেট মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে পড়াশোনা করেছে সৌগত। 'ওয়ান ইন্ডিয়া'র সঙ্গে বিশেষ আলোচনায় তা জানাতে ভোলেনি মেদিনীপুরের এই কৃতী ছাত্র। পাশাপাশি কেরিয়ারের বিষয়ে প্রশ্ন করতেই সৌগত জানায়, ভবিষ্যতে নিজেকে ডাক্তার হিসাবে দেখতে চায় সে।

[আরও পড়ুন: মাধ্যমিকে ২০১৯-এ কলকাতাকে পিছনে ফেলে ফের জেলার জয়জয়কার! মেধা তালিকা একনজরে]

৬৯৪ নম্বর পেয়েছে সে।প্রথম হওয়ার পরেই বাড়িতে উৎসবের মেজাজ। স্কুলের শিক্ষক থেকে শুরু করে পাড়া, প্রতিবেশী.. সবাই এসে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন সৌগতকে। তার বাবা ভরত কুমার দাস মহম্মদপুর দেশপ্রাণ বিদ্যাপীঠেরই গণিতের শিক্ষক। বাবাকেই নিজের জীবনের আদর্শ হিসাবে মনে করে সৌগত। তার মা শ্রাবণী দাস স্বাস্থ্যকর্মী। ভাল ফলের জন্য স্কুলের শিক্ষিকা, গৃহশিক্ষক এবং বাবা-মাকে ধন্যবাদ জানিয়েছে সৌগত। শিক্ষকদের নিয়ে প্রশ্ন করতেই সৌগত জানিয়েছে,'সকল শিক্ষকরাই আমাকে খুব সাহায্য করেছেন। গৃহশিক্ষক ছিলেন ৪ জন।' এরপরই যখন প্রশ্ন করা হয় যে খেলাধুলো নিয়ে সৌগতর কতটা আগ্রহ? উত্তর আসে, 'খেলাধুলোর দিকে আমার সেরকম আগ্রহ নেই'। তবে রঙ-তুলির রঙিন জগতে আবাধ বিচরণ রয়েছে এই কৃতীর। সৌগত জানিয়েছে, অবসর মানেই তার কাছে 'পেইন্টিং'। আঁকতে সৌগত খুব ভালোবাসে। মাধ্যমিকে ৯৬.১০ শতাংশ নম্বর পাওয়া সৌগত রঙতুলির মধ্যেই কাটিয়ে নিয়েছে সময় অসময়ের ক্লান্তি। আগামী দিনে এমন কৃতীকে ঘিরে স্বপ্ন দেখছে মেদিনীপুর, স্বপ্ন দেখছে গোটা বাংলা।

[আরও পড়ুন:মাধ্যমিক ২০১৯: প্রথম পূর্ব মেদিনীপুরের সৌগত দাস , প্রাপ্ত নম্বর ৬৯৪]

English summary
Details about West Bengal Madhyamik Topper know Sugata Das's.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X