• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সিপিএম জনসাধারণের পাশে, তবু মনে ঠাঁই নেই! একুশের নির্বাচনে প্রাসঙ্গিকতা দুরস্ত

Google Oneindia Bengali News

করোনা-আম্ফান পরবর্তী পরিস্থিতিতে সিপিএম পার্টি এবং তার সংগঠনগুলির সদস্যরা প্রাণপণ খেটেছেন। কিন্তু যুব ও ছাত্র মোর্চারা পশ্চিমবঙ্গের গ্রামীণ ও শহরে অঞ্চলে মানুষের মনে কি দাগ কাটতে পেরেছেন এত কিছু করে! তেমন কিছু প্রমাণ মেলেনি এখনও, তাহলে ভোটে কী হবে? সিপিএম তথা বামফ্রন্ট কি পারবে ফের ঘুরে দাঁড়াতে।

হারানো জন সমর্থন ফির পাওয়ার প্রয়াস সিপিএমের

হারানো জন সমর্থন ফির পাওয়ার প্রয়াস সিপিএমের

রাজ্য রাজনীতিতে প্রাসঙ্গিকতা ফিরে পাওয়ার লড়াই করছে বামফ্রন্ট তথা সিপিএম। কিন্তু ২০১১-য় যে জন সমর্থন হারিয়ে ফেলেছে সিপিএম, সেই হারানো জমি আর পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হয়নি দীর্ঘ ৯ বছরে। এবার প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়ায় ভর করে এবং সাম্প্রদায়িক শক্তি বিজেপিকে আটকানোর ধুয়ো তুলে আসরে নেমেছে সিপিএম।

দু'টি বিপর্যয়কে কাজে লাগিয়ে প্রাসঙ্গিকতা ফেরানোর চেষ্টা

দু'টি বিপর্যয়কে কাজে লাগিয়ে প্রাসঙ্গিকতা ফেরানোর চেষ্টা

২০ মে বাংলায় বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড় আম্ফান আঘাত হানার পরে কমিউনিস্ট নেতারা খাদ্য ও ত্রাণসামগ্রী নিয়ে দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু অংশে ক্ষতিগ্রস্থদের কাছে পৌঁছেছিল। আগামী বছরের গুরুত্বপূর্ণ বিধানসভা নির্বাচনের আগে দু'টি বিপর্যয়কে কাজে লাগিয়ে প্রাসঙ্গিকতা ফেরানোর চেষ্টা করেছিল। কিন্তু আদতে কোনও ফায়দা তুলতে পারেনি।

বাংলার মানুষের মনে তৃণমূল বা বিজেপির অস্তিত্ব

বাংলার মানুষের মনে তৃণমূল বা বিজেপির অস্তিত্ব

এখনও বাংলার ভোট লড়াই ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস এবং প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে বিজেপি মধ্যে নিয়োজিত রয়েছে। উভয় দলের নেতারাও কাদা ছোঁড়াছুড়ি করলেও বাংলার মানুষ উভয় দলের মধ্যে একটা দলকে বেছে নিতে তৎপর। এখনও বাংলার মানুষের মনে সিপিএম বা কংগ্রেসকে ফিরিয়ে আনার মতো মানসিকতা তৈরি হয়নি।

জনসাধারণের পাশে সিপিএম, তবু মনে নয়

জনসাধারণের পাশে সিপিএম, তবু মনে নয়

সিপিএম নেতারা বলছেন, "আমরা কেবল ক্ষতিগ্রস্থদের সহায়তা করার চেষ্টা করছি। নির্বাচনের সঙ্গে এর কোন যোগসূত্র নেই। আমরা দরিদ্রদের সহায়তার জন্য জনসাধারণের কাছ থেকে অনুদান সংগ্রহ করেছি। মার্কসবাদীরা ১৯৪৩ সালের দুর্ভিক্ষের সময়েও তা করেছিলেন। এবারও করলাম। সেইসঙ্গে তৃণমূল ও বিজেপির ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ নিয়েও বার্তা পৌঁছে দিলাম মানুষের কাছে।

গত বিধানসভা নির্বাচনের আঙ্গিকে সিপিএম

গত বিধানসভা নির্বাচনের আঙ্গিকে সিপিএম

এখানে উল্লেখ্য, ২৯৪ আসনের বাংলা বিধানসভায় বামফ্রন্টের আসন সংখ্যা এখন ঠেকেছে ২৩-এ। বিজেপি ২০১৬ সালের নির্বাচনে তিনটি আসন জিততে পেরেছিল। কিন্তু বর্তমানে দলবদল ও উপনির্বাচনে জিতে তার সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৬। আবার শাসক তৃণমূল শক্তি বাড়িয়ে ২১১ থেকে ২২৪-এ পৌঁছে গিয়েছে।

২০১৯ লোকসভা ভোটের নিরিখে সিপিএমের অবস্থান

২০১৯ লোকসভা ভোটের নিরিখে সিপিএমের অবস্থান

আবার ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে বামফ্রন্ট বিলীন হয়ে গিয়েছে। একটি আসনেও তারা জয়লাভ করতে পারেনি। বিজেপি সেখানে ২ থেকে বেড়ে ১৮ হয়েছে। আর বামফ্রন্ট ২ থেকে কমে শূন্য। কংগ্রেস দুটি আসন ধরে রাখতে সফল হয়েছে। তৃমমূল ৩৪ থেকে কমে ২২। এই অবস্থায় ২০২১-এর নির্বাচন হচ্ছে।

সাধারণ মানুষের মন পাওয়ার চেষ্টা চালা্চ্ছে সিপিএম

সাধারণ মানুষের মন পাওয়ার চেষ্টা চালা্চ্ছে সিপিএম

এই পরিস্থিতিতে সিপিএম ক্যাডাররা দেশব্যাপী লকডাউনের মধ্যে ঘরে ফিরে আসা পরিযায়ী কর্মীদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। তাঁদের কর্মসংস্থান দেওয়ার ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের ব্যর্থতা এবং জনসাধারণের জন্য রেশন বা গণবণ্টন ব্যবস্থায় ব্যাপক দুর্নীতি তুলে ধরে ক্ষমতাসীন তৃণমূলের উপর চাপ রেখে চলেছে। সাধারণ মানুষের মন পাওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁদের পাশে দাঁড়ানোর মাধ্যমে।

মোদীর সর্বদল বৈঠক জরুরী ছিল, রাজনীতি নয় একসাথে লড়তে হবে মন্তব্য রাহুলের

একুশের মহাযুদ্ধের বাকি নেই ১০ মাসও, অনেক শত্রুর বিরুদ্ধে 'একা’ তৃণমূল বেকায়দায়একুশের মহাযুদ্ধের বাকি নেই ১০ মাসও, অনেক শত্রুর বিরুদ্ধে 'একা’ তৃণমূল বেকায়দায়

English summary
CPM tries to return in mind of Bengal before 2021 Assembly Election
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X