• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

স্বাস্থ্যসাথীতে লাভ নেই, শুধুই কাটমানি! মুখ্যমন্ত্রী মমতার সততা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন সেলিম

  • |

ধর্মঘটে স্বতস্ফূর্ত সাড়া পাওয়া গিয়েছে। এদিন বিকেলে সাংবাদিক সম্মেলন করে এমনটাই দাবি করলেন সিপিএম নেতা মহঃ সেলিম। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদী তাঁর কর্পোরেট বন্ধুদের কৃষকদের জমি বিকিয়ে দিয়েছে। তাহলে কৃষকদের দিল্লি যেতে বাধা দেওয়া হচ্ছে কেন, প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। তারাতলায় বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয়ের আটক হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিজেপি, তৃণমূল গটআপ গেম চলছে।

কলকাতা : বামেদের ডাকা ধর্মঘট সফল, মন্তব্য সেলিমের
মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ সেলিমের

মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ সেলিমের

সিপিএম নেতা মহঃ সেলিম এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এদিনের মন্তব্য নিয়ে কটাক্ষ করেন। সব কাজ করে দিয়েছেন। নেতাজির ১২৫ তন জন্মবার্ষিকী উৎযাপনের জন্য তৈরি কমিটির কথা ঘোষণা করতে গিয়ে তিনি উল্লেখ করেছিলেন বিমানবন্দরের নাম করণের কথা। এব্যাপারে সেলিম বলেন, তিনি সেই সময় বিমান পরিবহণমন্ত্রকের স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। ফলে পুরো বিষয়টি তিনি জানেন। সেলিম বলেন, নেতাজির জন্মদিনকে দেশপ্রেম দিবস হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়ে আসছেন তাঁরা। কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ২০১৬ সালে তিনি মনে করেছিলেন আবার ২০২১-এ মনে করলেন।

 সততা ত্যাগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী

সততা ত্যাগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী

মহঃ সেলিম আরও বলেন, মুখ্যমন্ত্রী সততা ত্যাগ করেছেন। তাঁর প্রশ্ন কেন নারদের তদন্ত করা হল না। তিনি বলেন, গরুপাচার, কয়লা খাদান যদি মমতার ভাইপো যদি পায়, তাহলে মোদীর ভাইপো পাবে না কেন।

অমিত শাহকে রাজ্যপাল নিয়ে বলতে পারেন না

অমিত শাহকে রাজ্যপাল নিয়ে বলতে পারেন না

তৃণমূলের তরফে বারবার অভিযোগ করা হচ্ছে রাজ্যপাল বিজেপির এজেন্ট। বিজেপির মুখপাত্র হিসেবে কাজ করছেন তিনি। এব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে সেলিম বলেন, অমিত শাহকে ভাইপোকে নিয়ে বলতে পারেন, কিন্তু রাজ্যপালকে নিয়ে তিনি বলতে পারেন না। এদিন তিনি আরও বলেন বিজেপি, তৃণমূল গটআপ গেম চলছে। রাজ্যপালের টুইট নিয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া এটা বিজেপি, তৃণমূলের নকল যুদ্ধ চলছে। ফোন করে বলবে, দাদা কিছু মনে করবেন না। কোনটা মুখ আর কোনটা মুখোশ তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সেলিম।

স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড নিয়ে কটাক্ষ

স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড নিয়ে কটাক্ষ

এদিন সেলিম বলেন, বাংলায় স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। রাজ্যের ১০ কোটি মানুষের হাতে স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড পৌঁছে দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, এখনও বাংলার সব মানুষ ডিজিটাল রেশন কার্ড পাননি।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, রাজ্যের সব পরিবারকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় আনা হচ্ছে পয়লা ডিসেম্বর থেকে। এতদিন রাজ্যের সাড়ে সাতকোটি মানুষ এই প্রকল্পের আওতায় এসেছিলেন। এবার আরও আড়াই কোটি মানুষকে সেই তালিকায় আনা হচ্ছে। রাজ্যের প্রত্যেক পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকা করে বিমার আওতায় আনা হচ্ছে। এব্যাপারে মন্তব্য করতে গিয়ে সেলিম বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে কাটমানি, আছে, এটা দেখতে হবে।

স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প নিয়ে বড় ঘোষণা মমতার, ভোটের আগে বড় চমক রাজ্য সরকারের

English summary
CPM leader Md. Salim questions honesty of the CM Mamata Banerjee
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X