• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মা আর সন্তান মিলে পাহাড়ে আগুন জ্বালিয়েছিল! পাহাড় নিয়ে সিপিএম-র অবস্থান ব্যাখ্যা করে কটাক্ষ সূর্য-র

  • |

বিমল গুরুং (bimal gurung)বিজেপি ছাড়া ছেড়ে দিয়ে তৃণমূলের ছায়ায় যেতে চাইছেন। যা নিয়ে পাহাড় (darjeeling) উত্তপ্ত। এই মুহুর্তে পাহাড়ে সিপিএম দুর্বল হলেও বিরোধী দুই রাজনৈতিক দলকেই আক্রমণ করেছেন সূর্যকান্ত মিশ্র (suryakanta mishra)। কটাক্ষ করে তিনি বলেছেন, মা আর সন্তান মিলে পাহাড়ে আগুন জ্বালিয়েছিল।

 দার্জিলিং-এর সংগঠন নিয়ে সিপিএম

দার্জিলিং-এর সংগঠন নিয়ে সিপিএম

দার্জিলিং-এ গোর্খাল্যান্ড নিয়ে আন্দোলন শুরু হওয়ার পর থেকে সিপিএম-এর সংগঠন দুর্বল হয়েছে। আর অন্য জায়গায় যা আছে বর্তমানে দার্জিলিং-এ তা নেই। এমনটাই জানিয়েছেন রাজ্য সিপিএম-এর সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। তিনি বলেন, সিপিএম-এর মত হল সংবিধানের মধ্যে থেকে সর্বোচ্চ স্বায়ত্তশাসন, বাংলা অবিভক্ত রেখেই। তিনি বলেন, বাম সরকার সংবিধানের ষষ্ঠ তফশিল ধরে আইন তৈরি করেছিল। তিনি বলেন, সেই সময় গোলমাল বাধিয়েছিল গুরুং।

 মমতার সরকারের জিটিএ আইন নিয়ে প্রশ্ন

মমতার সরকারের জিটিএ আইন নিয়ে প্রশ্ন

সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, যদি গুরুং সংবিধানের ষষ্ঠ তফশিল মেনে কাজ করতেন, তাহলে পশ্চিমবঙ্গ সরকার তার কাজে হস্তক্ষেপ করতে পারত না। কিন্তু জিটিএ আইনে যা করা হয়েছিল, তাতে স্বায়ত্তশাসনের অধিকার ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। এরপর মা আর সন্তান মিলে পাহাড়ে আগুন জ্বালিয়েছিল। প্রসঙ্গত, জিটিএ তৈরির পরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মা বলে সম্বোধন করেছিলেন গুরুং। কিন্তু কয়েকবছরের মধ্যেই গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে পাহাড়কে উত্তপ্ত করেছিলেন গুরুং। ২০১৭ সালে পাহাড় জুড়ে আগুন জ্বলেছিল। তাতে সাধারণ মানুষের সঙ্গে পুলিশও মারা পড়েছিল।

 কোনও নীতি নেই গুরুং, মমতার

কোনও নীতি নেই গুরুং, মমতার

বিমল গুরুং ইতিমধ্যেই বলেছেন তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর আসনে দেখতে চান। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা বলেন, তাই করেন। তিনি ২০২১-এর নির্বাচনে তৃণমূলের সঙ্গে জোট করতে চান বলেও জানিয়েছিলেন। বিমল গুরুং বলেছিলেন, নরেন্দ্র মোদী অমিত শাহরা তাঁকে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তা তাঁরা পালন করেননি। এব্যাপারে সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, কোনও নীতি নেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিংবা বিমল গুরুং-এর।

 বিজেপিরও কোনও নীতি নেই

বিজেপিরও কোনও নীতি নেই

সিপিএম রাজ্য সম্পাদকও দার্জিলিং নিয়ে বিজেপির অবস্থানের সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেন, দার্জিলিং-এর বিজেপি সাংসদ, সংসদে বলেছেন গোর্খাল্যান্ড চাই। কিন্তু রাজ্য বিজেপি এর বিরোধিতা করছে। রাজ্য বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, তারা পৃথক গোর্খাল্যান্ডের পক্ষে নয়।

সিপিএম-এর অবস্থান

সিপিএম-এর অবস্থান

সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, সিপিএম এখনও পাহাড়ে সংবিধানের ষষ্ঠ তফশিলের মধ্যে থেকে স্বায়ত্তশাসনের দাবি করে। কিন্তু তৃণমূল এবং বিজেপি কেউই এর পক্ষে নয়। তিনি কটাক্ষ করে বলেন, ওরা ভাগাভাগিতে আছে। বিমল গুরুং-এর অবস্থান নিয়ে বলেন, একই লোক কখনও এদিকে, কখনও ওদিকে। ওরাই এরকম করতে পারে বলেছেন তিনি।

কলকাতাঃ বিধি না মানলেই সংক্রমণ বাড়বে, চিকিৎসক মহলের তরফে রেলকে চিঠি

যবনিকা পতনের অপেক্ষায় বিহার, ভোটের অঙ্ক কষে পাটনা দখলের সমীকরণ মেলাবে কোন দল?

English summary
CPIM leader Suryakanta Mishra specifies their stand on Gorkhaland issue
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X