• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সিপিএম-এর পলিটব্যুরোর পর কেন্দ্রীয় কমিটি! বাংলায় বাম-কংগ্রেস জোটে অনুমোদন

পলিটব্যুরোর পর এবার সিপিএম-এর (cpm) কেন্দ্রীয় কমিটির (Central Committee) অনুমোদন। ২০২১-এর নির্বাচনে বাংলায় বাংলায় বাম-কংগ্রেস জোটে আপাতত কোনও বাধা রইল না। শনিবার কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে এব্যাপারে সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। সোমবার পলিটব্যুরোর বৈঠকে কেরলের সিপিএম-এর তরফ থেকে বাংলার নেতাদের অবস্থানকে সমর্থন জানানো হয়েছিল।

 জোট নিয়ে সিপিএম-এ আদর্শগত সংগ্রাম অনেকদিনের

জোট নিয়ে সিপিএম-এ আদর্শগত সংগ্রাম অনেকদিনের

না এবার আর জ্যোতি বসুকে প্রধানমন্ত্রী না হতে দেওয়ার মতো কোনও ঘটনা হওয়ার ছিল না। তবু শক্তি ক্ষয় হওয়ায় কংগ্রেসের সঙ্গে জোটে তাগিদটা যেন আগে থেকেই ছিল। কংগ্রেসের সমর্থন নেওয়া কিংবা তাদের সঙ্গে জোট করা নিয়ে সিপিএম-এ আদর্শগত সংগ্রাম দীর্ঘদিনের। একসময় এরজন্য প্রয়াত সইফুদ্দিন চৌধুরীকে দল থেকে কার্যত বের করে দেওয়া হয়েছিল। সাম্প্রতিক সময়ে ২০১৬-র বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলার সিপিএম-এর তরফে এই ব্যাপারে প্রস্তাব দেওয়া হলেও কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব তা বাতিল করে দেয়। সেই সময় কেরল লবির বাধাতেই তা বাতিল হয়ে যায়।

পলিটব্যুরোর পর কেন্দ্রীয় কমিটিতে জোটের অনুমোদন

পলিটব্যুরোর পর কেন্দ্রীয় কমিটিতে জোটের অনুমোদন

এবারের জোট অনিবার্য ছিল। পরিস্থিতি বিবেচনা করেই কেরল লবি বাংলায় দলের অবস্থানকে সমর্থন করেছে। কেননা তারা বুঝতে পেরেছে জোট না করলে আরও বিপদ সামনে উপস্থিত হবে। দিন কয়েক আগে পলিটব্যুরোর বৈঠকে বলা হয়েছিল বর্তমান পরিস্থিতিতে দল কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করতে পারে। কেননা সেখানে আর কোনও বিকল্প নেই। সেই সময় এই সিদ্ধান্ত অনুমোদনের জন্য তা কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। শনিবার ছিল কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের শেষ দিন। বৈঠক শেষে বিবৃতি জারি করা হয়।

কেন্দ্রীয় কমিটির অবস্থান

কেন্দ্রীয় কমিটির অবস্থান

এদিনের বিবৃতিতে কেন্দ্রীয় কমিটির তরফে জানানো হয়েছে, বিজেপি ও তৃণমূলকে পরাস্ত করতে পশ্চিমবঙ্গে সিপিএম এবং বামফ্রন্ট কংগ্রেস-সহ ধর্ম নিরপেক্ষ শক্তির সঙ্গে জোট করবে।

রাজ্যে রাজ্যে জোটের অনুমোদন

রাজ্যে রাজ্যে জোটের অনুমোদন

পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও আসন্ন কেরল, জম্মু ও কাশ্মীর, অসমের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটি সংশ্লিষ্ট রাজ্য কমিটিরগুলির প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে। কেরলে সিপিএম এলডিএফ-এর অংশ হয়েই লড়াই করবে। তামিলনাড়ুতে সিপিএম ডিএমকের নেতৃত্বাধীন জোটে থাকবে। অসমে বিজেপিকে পরাস্ত করতে সিপিএম কংগ্রেস-সহ ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলির সঙ্গে জোট করবে।

পাশাপাশি জম্মু ও কাশ্মীরের বর্তমান আইনে বহিরাগতদের জমি কেনা অনুমতি দেওয়ার সমালোচনা করা হয়েছে। এরপ্রভাব সেখানকার জনগণের ওপর পড়বে বলেও কেন্দ্রীয় কমিটির বিবৃতিতে মন্তব্য করা হয়েছে। অন্যদিকে কেরলে এলডিএফ সরকারকে নিশানা করতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইকে ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

আরএসএস-এর অ্যাজেন্ডাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে বিজেপি

আরএসএস-এর অ্যাজেন্ডাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে বিজেপি

কেন্দ্রীয় কমিটির বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়েছে, মহামারীর সময়কে কাজে লাগিয়ে ভারতকে হিন্দুত্ববাদী রাষ্ট্রে রূপান্তরিত করার আরএসএস-এর অ্যাজেন্ডাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। একইসঙ্গে কৃষি বিলেরও কড়া সমালোচনা করা হয়েছে সিপিএম-এর কেন্দ্রীয় কমিটির তরফে। এছাড়াও শ্রম আইন পরিবর্তন করে শ্রমিক শ্রেণির ওপর আঘাত নামিয়ে আনা হয়েছে বলেও অভিযোগ তোলা হয়েছে।

করোনায় অসুস্থ হওয়ার পরেও ফোন করেননি দু, একজন শীর্ষ নেতা! কাদের দিকে ইঙ্গিত শুভেন্দুর

{quiz_408}

English summary
CPIM Central Committee gives green signal to the Left and Congress jote in West bengal
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X