• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

এবার খাস কলকাতায় সরকারি হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে করোনা রোগী মৃত্যুর অভিযোগ, সুপার দিলেন ব্যাখ্যা

Google Oneindia Bengali News

এবার আর কোনও অন্য রাজ্য নয়, খাস কলকাতায় (kolkata) অক্সিজেনের (oxygen) অভাবে সরকারি হাসপাতালে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ। ঘটনাটি বেহালার বিদ্যাসাগর হাসপাতালের (behala vidyasagar hospital) । ৪৮ বছরের রোগিনী যমুনা নাথ বেহালারই পর্ণশ্রী থানা এলাকার বাসিন্দা। পরিবারের অভিযোগ হাসপাতাল ভর্তি নিলেও অক্সিজেনের ব্যবস্থা করতে পারেনি।

সোমবার রাতে হাসপাতালে ভর্তি

সোমবার রাতে হাসপাতালে ভর্তি

রোগীর পরিবারের দেওয়া তথ্য অনুযাযী, সোমবার রাতে বিদ্যাসাগর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় যমুনা নাথকে। সেই সময় তাঁর প্রবল শ্বাসকষ্ট ছিল। সেই সময় হাসপাতালে পর্যাপ্ত অক্সিজেন না থাকায় একটি সিলিন্ডার থেকেই অনেক রোগীকে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ। রাতের দিকে তাও শেষ হয়ে যায়।

রাতে হাসপাতাল থেকে অক্সিজেনের ব্যবস্থা করতে অনুরোধ

রাতে হাসপাতাল থেকে অক্সিজেনের ব্যবস্থা করতে অনুরোধ

যমুনা নাথের স্বামী সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, রাত দুটোর সময় তাঁদের ফোন করে রোগীর জন্য অক্সিজেনের ব্যবস্থা করতে বলা হয়। কিন্তু রাতে শহরের কোথাও তারা অক্সিজেনের খোঁজ পাননি। এক জায়গায় খোঁজ পাওয়া গেলেও, বলা হয়, সিলিন্ডার না আনলে অক্সিজেন দেওয়া যাবে না। মৃতের পরিবারের তরফে দাবি করা হয়েছে, সেই পরিস্থিতিতে হাসপাতালের কাছে তারা খালি সিলিন্ডার চেয়েছিলেন। কিন্তু তা পাওয়া যায়নি। আর সকালের দিকে যখন তার ব্যবস্থা করা হয়, তখন হাসপাতাল থেকে জানানো হয়, রোগী মারা গিয়েছে।

হাসপাতাল সুপারের ব্যাখ্যা

হাসপাতাল সুপারের ব্যাখ্যা

তবে এই ঘটনা সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিয়েছেন বিদ্যাসাগর হাসপাতালের সুপার। তিনি দাবি করেছেন, হাসপাতালে অক্সিজেনের ঘাটতি নেই। কিন্তু অক্সিজেন সিলিন্ডারের ওপরে মাত্রা জানতে যে ফ্লো মিটার থাকে সেই ফ্লোমিটার হাসপাতালে একটাই রয়েছে। যে কারণে সব রোগীকে অক্সিজেন দেওয়ার সম্ভব হচ্ছে না. তবে এদিনই হাসপাতালে ফ্লোমিটার আসার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

গড়িয়ার রেমেডি হাসপাতালের সমস্যার সমাধান

গড়িয়ার রেমেডি হাসপাতালের সমস্যার সমাধান

সোমবার গড়িয়ারক রেমেডি হাসপাতালে অক্সিজেনের সংকট দেখা দিয়েছিল। সেই সময় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন অন্তত ৮০ জন করোনা রোগী। হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছিল, তাদের হাতে রয়েছে আড়াই ঘন্টার অক্সিজেন। তবে সংবাদ মাধ্যমে খবর সামনে আসতেই, বিভিন্ন মহলে তৎপরতা শুরু হয়ে যায়। আপতকালীন পরিস্থিতি বেশ কিছু অক্সিজেন সিলিন্ডার ওই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রাতে হাসপাতালের তরফে জানানো হয় আপাতত সংকট কেটে গিয়েছে।

সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার, বাংলার জেলায়-জেলায় ঝড়-বৃষ্টির সতর্কতা আবহাওয়া দফতরেরসকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার, বাংলার জেলায়-জেলায় ঝড়-বৃষ্টির সতর্কতা আবহাওয়া দফতরের

English summary
Covid-19 patient death in Kolkata's Vidyasagar hospital due to lack of oxygen
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X