• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

শহর ছাড়িয়ে বাংলার গ্রামে হামলা করোনার, লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ

  • |

এবার গ্রাম গুলিতেও ক্রমেই বাড়ছে করোনা কামড়। জেলায় জেলায় গ্রামে গ্রামে ছড়াচ্ছে প্রাণঘাতী করোনা। ইতিমধ্যেই কেন্দ্র সরকারের তরফে ১৪৫টি জেলাকে করোনা হটস্পষ্ট হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। যার বেশির ভাগই গ্রামাঞ্চলে।

গ্রিন জোনে থাকা জেলাও এখন রেড জোনে

গ্রিন জোনে থাকা জেলাও এখন রেড জোনে

পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরার শুরু হতেই বাংলার গ্রাম গুলিতে হু হু করে বেড়েছে করোনার সংক্রমণ। গ্রিন জোনে থাকাও অনেক জেলাই এখন রেড জোনের আওতায়। এদিকে গ্রামীণ বাংলায় যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে স্বভাবতই সিঁদুরে মেঘ দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশা সহ ১২ টি রাজ্যে এর আগে খুব বেশি করোনা আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া যায়নি। এপ্রিলেও এখানে সংক্রমণের হার ছিল অনেকটাই কম। কিন্তু ২৫ মের আগের অবধি তিন সপ্তাহে এই রাজ্যের গ্রামীণ এলাকা গুলিতে দ্রুত হারে সংক্রমণ ছড়িয়েছে।

১১ লক্ষ মানুষ পিছু রয়েছেন একজন বিশেষজ্ঞ চিকিত্সক

১১ লক্ষ মানুষ পিছু রয়েছেন একজন বিশেষজ্ঞ চিকিত্সক

২০১৯ সালে সিএসআইএসএস-র একটি রিপোর্ট মোতাবেক গ্রামে ১১ লক্ষ মানুষ পিছু রয়েছেন একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক। পাশাপাশি, ২৭ শতাংশ প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসকের হার নিয়মিত নয় বলেও জানা যাচ্ছে। যদিও এখানেই থাকছে আসল আশঙ্কা। বর্তমানে যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তা রুখতে না পারলে এত মানুষের চিকিৎসা কোথায় হবে তা নিয়ে শঙ্কিত সকলেই।

পূর্ব ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকায় বাড়ছে করোনা সংক্রমণ

পূর্ব ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকায় বাড়ছে করোনা সংক্রমণ

বর্তমানে শহর থেকে গ্রামের দিকে মুখ ঘুরিয়েছে কোভিড-১৯। মে মাসের শেষ তিন সপ্তাহে সর্বাধিক সংক্রমণের খবর মিলেছে গ্রাম বাংলা থেকেই। এদিকে এর জেরে গ্রামীণ অর্থনীতিতে বড়সড় প্রভাব পড়তে পারে বলে মনে করছেন অনেকে। ধ্বসে পড়তে পারে গ্রামীণ অর্থ ব্যবস্থা। এদিকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরের ফেরার সঙ্গে সঙ্গেই পূর্ব ভারতের একটা বিস্তীর্ণ এলাকায় করোনা সংক্রমণ একধাক্কায় অনেকটাই বেড়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

পরিযায়ী শ্রমিকদের চিহ্নিত করতে ভোটের কালিকে হাতিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের

পরিযায়ী শ্রমিকদের চিহ্নিত করতে ভোটের কালিকে হাতিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের

পরিযায়ী শ্রমিকদের হাত ধরে সংক্রমণ ঠেকাতে এবার ভোটের কালিকে হাতিয়ার করতে চলেছে রাজ্য স্বাস্থ্যমন্ত্রক। ইতিমধ্যেই সরকারি নির্দেশিকা মেনে পরিযায়ী শ্রমিকদের হাতে কালি লাগানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে পূর্ব বর্ধমানে। সংক্রমণের হার বেশি এমন রাজ্য থেকে এলে একের বদলে দুই আঙুলে কালি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ১৪ দিন থাকা বাধ্যতামূলক।

English summary
After the city this time the rate of corona infection is also increasing in the rural Bengal
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X