• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বিয়েবাড়িতে পরিজনরা এসেছিলেন সিঙ্গাপুর-ইংল্যান্ড থেকে, করোনা-আতঙ্ক বিরাজ করছে এগরায়

পূর্ব মেদিনীপুরের এগরার বিয়েবাড়ির দিকেই এখন নজর রাজ্যের। নয়াবাদের প্রৌঢ় ওই বিয়েবাড়িতে গিয়েই আক্রান্ত হয়ে পড়েন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই বিয়েবাড়িতে আত্মীয়-পরিজনরা এসেছিলেন সিঙ্গাপুর ও ইংল্যান্ড থেকে। ওই বিয়েবাড়িতে যোগ দেওয়া আরও দুই মহিলার করোনা আক্রান্তের খবরে তাই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

বিয়েবাড়িতে পরিজনরা এসেছিলেন সিঙ্গাপুর-ইংল্যান্ড থেকে, করোনা-আতঙ্ক বিরাজ করছে এগরায়

নয়াবাদের প্রৌঢ় করোনা আক্রান্ত হওয়ায় ১৩ জনকে এগরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল। তাঁদের সোয়াব টেস্টের জন্য নমুনা পাঠানো হয়েছিল নাইসেডে। ১৩ জনের মধ্যে ১১ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও দুজনের শরীরে ধরা পড়ে করোনা সংক্রমণ।

৭৬ ও ৪৬ বযসী করোনা আক্রান্ত দুই মহিলাকে বেলেঘাটা আইডিতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁদের চিকিৎসা শুরু করা হয়েছে। এর ফলে জেলায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এই বিয়ে বাড়িতে প্রায় ৮৫০ জন আমন্ত্রিত ছিলেন। তারপর জানা গিয়েছে, ওই বিয়ে বাড়িতে পাত্রের বাবার বন্ধুরা এসেছিলেন সিঙ্গাপুর ও ইংল্যান্ড থেকে।

উ:২৪ পরগনায় ৩১ টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার চালু হচ্ছে

শুধু সিঙ্গাপুর বা ইংল্যান্ড থেকেই নয়, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, বিহার থেকেও অনেকে এসেছিলেন আমন্ত্রিতরা। তাতেই আতঙ্ক গ্রাস করেছে আমন্ত্রিতদের মধ্যে। আমন্ত্রিতদের চিহ্নিত করার জন্য মাইকিং করা হচ্ছে। সরকারি স্কুলে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবির বসেছে। ৫৭২ জনের শরীরের কোনও উপসর্গ দেখা যায়নি। তবে তাঁদের হোম কোয়ারান্টাইনে পাঠানো হয়েছে। আক্রান্ত প্রৌঢ়ের সংস্পর্শে আসা ১৩ জনকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়। বাকিদের খোঁজ চলছে।

English summary
Corona panic increased in Egra because invitees came from Singapore and England,
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X