• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

রাজ্যের কাজে নির্লজ্জ হস্তক্ষেপ! অমিত শাহ রাজ্যে থাকতেই আইপিএস বদলি নিয়ে ফের সরব মমতা

  • |

রাজ্যের আইপিএস (ips) বদলি নিয়ে ফের একবার সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (mamata banerjee)। এদিন তিনি টুইট করে তিনি অভিযোগ করেছেন, রাজ্যের কাজে নির্লজ্জ হস্তক্ষেপ করছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে এব্যাপারে একাধিক অবিপেজি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা যে তাঁকে সমর্থন করেছেন, তার জন্য তিনি তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

আরও তীব্র সংঘাত, নির্লজ্জের মত রাজ্যের কাজে হস্তক্ষেপ করছে কেন্দ্র তোপ মুখ্যমন্ত্রীর
নাড্ডার কনভয়ে হামলার দিন ডিউটিতে ছিলেন ৩ আইপিএস

নাড্ডার কনভয়ে হামলার দিন ডিউটিতে ছিলেন ৩ আইপিএস

১০ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সভা ছিল ডায়মন্ডহারবারে। সেখানে যাওয়ার পথেই শিরাকোলে তাঁর কনভয়ে হামলা হয়। ইট, পাথর, কাঁচের বোতল ছোঁড়া হয় গাড়ি লক্ষ্য করে। বুলেটপ্রুফ গাড়ি থাকায় জেপি নাড্ডার কোনও আঘাত না লাগলেও, জখন হয়েছিলেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়। নাড্ডার সফরে রাজ্যের তরফে নিরাপত্তায় গাফিলতি ছিল বলে অভিযোগ করে বিজেপি। রাজ্যের মুখ্যসচিব ও ডিজিপিকে তলব করে কেন্দ্র। রাজ্যপালও বিষয়টি নিয়ে রিপোর্ট পাঠান কেন্দ্রকে। জানা যায়, নাড্ডার সফরে দিনে তিন আইপিএস রাজীব মিশ্র, প্রবীণ ত্রিপাঠী এবং ভোলানাথ পাণ্ডে দায়িত্বে ছিলেন।

শুরু কেন্দ্র ও রাজ্যের টানাপোড়েন

শুরু কেন্দ্র ও রাজ্যের টানাপোড়েন

নাড্ডার কনভয়ে হামলার পরেই এই তিন আইপিএসকে বদলির নির্দেশ দেয় কেন্দ্র। তবে রাজ্য সরকার তাঁদের ছাড়তে নারাজ। কেন্দ্রের পাঠানো দুটি চিঠিতেই রাজ্য সরকার নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে দেয়। মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেন, কেন্দ্রের পদক্ষেপ আইপিএস ক্যারার রুল ১৯৫৭-এর পরিপন্থী। যদিও এব্যাপারে বিজেপি নেতাদের দাবি, আইপিএসরা যেহেতু কেন্দ্রের নিযুক্ত, তাই এব্যাপারে বাড়তি ক্ষমতা রয়েছে কেন্দ্রের। এরপরে কেন্দ্রীয় সরকার তিন আইপিএস-এর ডেপুটেশন পোস্টিং-এর জায়গাও জানিয়ে দেন। যদিও মুখ্যমন্ত্রী আইপিএস-এর পরামর্শ দিয়েছিলেন তাঁরা যেন মাথা না ঝোঁকান। বিষয়টি নিয়ে রাজ্য সরকার সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারে বলেও জানা গিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আইনজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

মমতার পাশে একাধিক অবিজেপি মুখ্যমন্ত্রী

মমতার পাশে একাধিক অবিজেপি মুখ্যমন্ত্রী

আইপিএস-দের বদলির সিদ্ধান্ত যে আপত্তিজনক তা আগেই জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এব্যাপারে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর অবস্থানকে সমর্থন করেন একাধিক অবিজেপি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন চার মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং, অশোক গেহলট এবং ডিএমকে নেতা এমকে স্ট্যালিন। ভোটের আগে আইপিএস বদলি নিয়ে সবাই তাঁদের আপত্তির কথা জানিয়েছেন।

কেন্দ্রকে আক্রমণ করে মুখ্যমন্ত্রীদের ধন্যবাদ

কেন্দ্রকে আক্রমণ করে মুখ্যমন্ত্রীদের ধন্যবাদ

এদিন রাজ্যে রয়েছেন অমিত শাহ। তিনি বলেছেন, আইপিএস নিয়ে নিয়ম মেনেই চলেছে কেন্দ্র। যদিও, অমিত শাহের রাজ্যে থাকা অবস্থাতেই এদিন কেন্দ্রকে আক্রমণ করে টুইট করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার নির্লজ্জের মতো পুলিশ অফিসারদের বদলি করে রাজ্য সরকারের কাজে হস্তক্ষেপ করছে। একইসঙ্গে তিনি চার মুখ্যমন্ত্রী এবং ডিএমকে নেতা স্ট্যালিনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাঁকে সমর্থন করার জন্য।

মমতার কথা ঠিক হলে ইন্দিরা, প্রণবও বহিরাগত! সিএএ প্রয়োগ কবে, সময় জানালেন অমিত শাহ

English summary
Centre is brazenly interfering with State Govt functioning by transferring police officers, says Mamata
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X