• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

তৃণমূল-সিপিএম ছেড়ে আসা নেতা-কর্মীদের নিয়ে ভাবনা! রাজনীতির পাঠ দেবে বিজেপি

২০১৯-এর আগে থেকেই বাংলায় বিজেপি বাড়ছে। তৃণমূল-সহ বিভিন্ন দল ভেঙে বিজেপিতে ভিড় জমাচ্ছেন নেতারা। সিপিএম, ফরওয়ার্ড ব্লক, কংগ্রেস ছেড়েও বিজেপিতে নাম লেখাচ্ছেন অনেকে। ভিন্ন ভিন্ন পার্টির নেতাদের নিয়ে বিপাকেও পড়তে হচ্ছে বিজেপিকে। তাই ২০২১-এর আগে বিড়ম্বনা এড়াতে এক অভিনব উদ্যোগ নিল গেরুয়া শিবির।

প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা পদ্মশিবিরের

প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা পদ্মশিবিরের

বিজেপির মিছিলে বেরিয়ে ইনকিলাব জিন্দাবাদ স্লোগান তুলতেও দেখা গিয়েছে কতিপয় নেতাকে আবার বিজেপির সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূলের যুক্তি খাঁড়া করতেও দেখা গিয়েছে অনেককে। এইসব বিড়ম্বনা ২০২১-এর আগে হোক চাইছে না বিজেপি। তাই এবার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হল পদ্মশিবিরের পক্ষ থেকে।

বিজেপির উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে

বিজেপির উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে

বিভিন্ন দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতাদের প্রশিক্ষণ দেবার জন্য জেলায় জেলায় খোলা হচ্ছে প্রশিক্ষণ শিবির। তাত্ত্বিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে ওইসব শিবিরগুলিতে। শেখানো হবে বিজেপির নীতি-আদর্শের কথা। কাজের পদ্ধতি নিয়েও প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। দলের আদি নেতারাই এই প্রশিক্ষণ দেবেন, তৈরি করবেন বিজেপির উপযুক্ত করে।

আদি-নব্যদের সেতু প্রশিক্ষণ শিবির

আদি-নব্যদের সেতু প্রশিক্ষণ শিবির

বিজেপি সূত্রে জানানো হয়েছে, প্রতি জেলার মণ্ডলে মণ্ডলে এই প্রশিক্ষণ শিবির খোলা হবে। সেই প্রশিক্ষণ শিবিরে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সেতুবন্ধনের কাজও করবে বিজেপি। বিজেপির পুরনো নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আগত নব্যদের যোগসূত্র স্থাপন হবে। ফলস্বরূপ এই প্রশিক্ষণ শিবির আদতে হয়ে উঠবে আদি-নব্যদের মধ্যেকার সেতু।

বিজেপির নীতি-আদর্শ-কর্মপদ্ধতি শিক্ষা

বিজেপির নীতি-আদর্শ-কর্মপদ্ধতি শিক্ষা

বিজেপি এইভাবে ২০২১-এর আগে ঘর গুছিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সংগঠন যেমন শক্তিশালী হবে, তেমনই নীতি-আদর্শ-কর্মপদ্ধতি সম্পর্কে শিক্ষা দিয়ে স্বচ্ছ কর্মী তৈরিও হচ্ছে। এর মধ্য থেকেই বিজেপির ভবিষ্যৎ উঠে আসতে পারে। তারপর অনেক বুথে এখনও সাংগঠনিক দুর্বলতা রয়েছে, তা কাটিয়ে উঠতেও সহায়ক হবে এই শিবির।

বিজেপিকে জয়ের পথ দেখাবে শিবির

বিজেপিকে জয়ের পথ দেখাবে শিবির

বিজেপি নেতৃত্ব মনে করছে, প্রশিক্ষণ শিবিরের মাধ্যমে বুথ-কর্মীদের উজ্জীবিত করা যাবে, ফলে সংগঠন শক্তিশালী হবে। সক্রিয় কর্মীর সংখ্যা বাড়বে। বাড়বে উৎসাহী কর্মীর সংখ্যা। গোষ্ঠীদ্বন্দ্বকেও অনেক নিয়ন্ত্রণ করা যাবে বলে মনে করছে নেতৃত্ব। সাংগঠনিক দুর্বলতা কাটিয়ে বুথে বুথে শক্তিবৃদ্ধি বিজেপিকে জয়ের পথ দেখাবে।

কলকাতাঃ শ্রম বিলের বিরোধিতায় প্রতিবাদ মিছিল

হাইকোর্টের পুজো নির্দেশিকা কতটা মানা হল, হলফনামা দিয়ে জানাবে ডিজি, নবান্নে জরুরি বৈঠক

English summary
BJP starts training camp for workers who came from TMC, Congress and CPM before 2021
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X