• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে মিছিলে বিজেপি সভাপতিকে টেস্টটিউব বেবি আখ্যা, গেরুয়া-কোন্দল তুঙ্গে

অনুব্রত-গড়ে বিজেপির গোষ্ঠীকোন্দল ফের তীব্র আকার ধারণ করল। এবার বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে মিছিল থেকেই বিজেপির জেলা সভাপতিকে তীব্র কটাক্ষ করা হল। বিজেপির জেলা সভাপতি মণ্ডলকে এর আগে প্রশান্ত কিশোরের দালাল বলে কটাক্ষ করা হয়েছিল। এবার তাঁকে খোদ বিজেপি নেতা বললেন টেস্ট টিউব বেবি।

রাজনীতিতে টেস্টটিউব বেবি বিজেপির সভাপতি

রাজনীতিতে টেস্টটিউব বেবি বিজেপির সভাপতি

বীরভূমের বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ ও বোলপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থ রামপ্রসাদ দা সের নেতৃত্বে একটি মিছিল হল বোলপুরে। সেই মিছিলেই উপস্থিত নেতারা ফের গর্জে ওঠেন বিজেপির জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে। রাজনীতিতে তাঁকে টেস্টটিউব বেবি বলে কটাক্ষ করেন প্রাক্তন কিষান মোর্চার সভাপতি সোমনাথ ঘোষ।

বিজেপিতে বাদ পড়া নেতাদের বিদ্রোহ

বিজেপিতে বাদ পড়া নেতাদের বিদ্রোহ

এই সোমনাথ ঘোষই বিজেপির জেলা সভাপতিকে তৃণমূলের ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের দালাল বলে কটাক্ষ করেছিলেন। এদিনও তিনি সরব হলেন জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, এই মিছিলে যাঁরা রয়েছেন, তাঁরা সবাই-ই কোনও না কোনও পদে ছিলেন। এখন এদের সবাইকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

অবহেলার চরম প্রভাব পড়বে এবার ভোটে

অবহেলার চরম প্রভাব পড়বে এবার ভোটে

তিনি হুঁশিয়ারি দেন, এই অবহেলার চরম প্রভাব পড়বে এবার ভোটে। আপনা বুথ সবসে মজবুত। এই মন্ত্রেই আমরা লড়াই করব। পার্টিতে দলবাজি চলছে। ঈর্ষা নিয়ে রাজনীতি করা যায় না। যাঁরা প্রকৃত বিজেপির সংস্কৃতির লোক, তাঁদের বাদ দেওয়া হয়েছে। আসলে বিজেপির জেলা সভাপতি হলেন রাজনীতিতে টেস্টটিউভ বেবি।

রামপুরহাটেও দায়িত্ব বঞ্চিত নেতারা গর্জে উঠেছিলেন

রামপুরহাটেও দায়িত্ব বঞ্চিত নেতারা গর্জে উঠেছিলেন

এর আগে দায়িত্ব বঞ্চিত বিজেপির কার্যকর্তাগণ বীরভূমের রামপুরহাটের কৃষি আইনের সমর্থনে একটি মিছিল করে। সেখানেও বিজেপির কোন্দল প্রকাশ্যে আসে। এই মিছিলের ব্যানারে উদ্যোক্তা হিসেবে লেখা ছিল- দায়িত্ব বঞ্চিত বিজেপির কার্যকর্তাগণ। মিছিলের অগ্রভাগে ছিলেন বিজেপির কিষাণ মোর্চার প্রাক্তন জেলা সভাপতি সোমনাথ ঘোষ, বিজেপির প্রাক্তন জেলা সভাপতি সত্যেন দাস প্রমুখ।

বিজেপিতে আদি নেতারা সম্মান পাচ্ছেন না

বিজেপিতে আদি নেতারা সম্মান পাচ্ছেন না

সোমনাথ ঘোষ অভিযোগ করেন, বর্তমান জেলা সভাপতি রাজনীতির কিছু বোঝেন না। তিনি জেলা সভাপতি হওয়ার পর ৩৩টি মণ্ডল সভাপতিকে অন্যায়ভাবে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের দলীয় কর্মসূচিতে ডাকা হচ্ছে না। অগণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। দলের পুরনো কর্মীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করা হয়েছে। পুরনো কর্মীদের সম্মান নেই।

Puja Special : কলকাতাঃ দ্বিতীয়াতে নিজের খাস তালুকেই একগুচ্ছ পুজোর উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী

কথা দিয়েছিলেন রাজসাক্ষী হবেন! তার আগেই রেললাইনে ধারে দেহ উদ্ধার কক্স অ্যান্ড কিংসের ম্যানেজারের

English summary
BJP’s rebel leaders slam party’s district president as test tube baby from the rally in Birbhum
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X