• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বিজেপি শহর-দখলে ভদ্র-সমাজের মন জয়ে উদ্যোগী, নয়া অস্ত্রে শান একুশের ভোটে

বিজেপি কলকাতা-সহ পশ্চিমবঙ্গের শহরকেন্দ্রিক আসনগুলিতে টার্গেট করেছে ভদ্রলোক শ্রেণিকে। ভদ্রলোক শ্রেণির জন্য একুশের যুদ্ধ জয়ে মূলত দুটি বার্তা দিতে চাইছে বিজেপি। এক রাজ্যের প্রচলিত আইনশৃঙ্খলার প্রশ্ন। আর দুই, অদূর ভবিষ্যতে সীমান্ত সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে তাঁদেরও, ঠিক যেমন গ্রামের মানুষকে হতে হয়েছে।

আপসের দরকার নেই, বিজেপি আছে সঙ্গে

আপসের দরকার নেই, বিজেপি আছে সঙ্গে

বাংলার শহরাঞ্চলের রাশ বরাবর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ছিল। কিন্তু একুশের নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দল বিজেপি শহরের ভোটারদের প্রভাবিত করতে সম্ভবপর হয়েছে। তারা বোঝাতে পেরেছেন, তৃণমূলের আমলে তারা নিরাপদ নয়। তৃণমূল কংগ্রেস সরকার এবং তাদের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে আপস করার দরকার নেই। কারণ বিকল্প হিসাবে বিজেপি এসে গিয়েছে।

বিজেপি আর্জি জানিয়েছে শহরের মানুষের কাছে

বিজেপি আর্জি জানিয়েছে শহরের মানুষের কাছে

মঙ্গলবার শহরের ভোটারদের কাছে তাদের বার্তা পৌঁছে দিতে বিধাননগর নির্বাচনী এলাকায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সমাবেশ করেছেন এবং বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে মিটিং করেছেন। গত সপ্তাহে বিজেপি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হোর্ডিং দিয়ে কলকাতায় পোস্টারও পড়েছে। বিজেপি এভাবেই শহরের মানুষের কাছে আর্জি জানিয়েছে।

অনুপ্রবেশের সমস্যা কলকাতাতেও প্রবেশ করবে

অনুপ্রবেশের সমস্যা কলকাতাতেও প্রবেশ করবে

শনিবার পঞ্চম দফায় ভোটগ্রহণের আগে শহরাঞ্চলে অনুপ্রবেশের সমস্যা নিয়ে সরব হয়েছে বিজেপি। বিজেপি বলতে চেয়েছে- সেই দিন খুব বেশি দূরে নয় যখন অনুপ্রবেশের সমস্যা সীমান্ত থেকে অনেক দূরে কলকাতায়ও প্রবেশ করবে। অন্যান্য দল এই সমস্যার নিরসন করতে পারবে না। কেবল বিজেপিই তা থামাতে পারে।

শহুর ভদ্রলোকদের টার্গেট বিজেপির

শহুর ভদ্রলোকদের টার্গেট বিজেপির

বাংলায় বামপন্থীরা ৩৪ বছর ধরে শাসন করে গিয়েছে। এ রাজ্য ডানপন্থী মতাদর্শের বিরোধী বলে মনে করা হত। শহরের ভোটারদের কাছে আবেদন করতে বিজেপি শহরগুলিতে বেশ কয়েকটি বুদ্ধিজীবী সভা ও পথসভা করেছে। প্রগতিশীল ভোটারদের কেন্দ্র হিসাবে বিবেচিত শহুরে ভদ্রলোক শ্রেণি দীর্ঘদিন ধরে বামদের সাথে ছিল। তাদের মধ্যে একটি বড় অংশ ২০১১ সালে তৃণমূলে চলে যায়। এবার তাদেরকেই টার্গেট করছে বিজেপি।

বিজেপিকে বেছে নিন বিকল্প হিসেবে

বিজেপিকে বেছে নিন বিকল্প হিসেবে

বিজেপি এবার কাটমানি ইস্যুতে সরব হয়েছিল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। কিন্তু শহরাঞ্চলে মানুষ এই কাটমানি ইস্যু নিয়ে মাথা ঘামাবে না। তাই আইনশৃঙ্খলার অবনতি ও অনুপ্রবেশের মতো বিষয় উত্থাপন করে বিজেপি এই ভোটারদের একাংশের মধ্যে উদ্বেগ বিরাজ করার চেষ্টা করছে। এছাড়াও বিজেপির আবেদন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পছন্দ না হলে আর কোনও আপস না করে বিজেপিকে বেছে নিন বিকল্প হিসেবে।

বিজেপির টার্গেট কলকাতার ৫০ শতাংশ আসন

বিজেপির টার্গেট কলকাতার ৫০ শতাংশ আসন

শহরের আসনগুলি বিজেপির কাছে চ্যালেঞ্জের। কলকাতা জেলার ১১টি আসন ২০১৬ সালের নির্বাচনে জয়যুক্ত হয়েছিল তৃণমূল। ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে তিনটি বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপি এগিয়েছিল। সেটাই বিজেপিকে আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে। বিজেপি এবার কলকাতা জেলার আরও তিনটি আসনে লড়াইয়ের প্রত্যাশা করেছে। বিজেপির টার্গেট কলকাতা জেলার ৫০ শতাংশ আসন জেতা।

রোজগার করতে গেলে আগে দিতে হয় কাটমানি, বাংলায় আগুন জ্বালানোর চেষ্টা, একযোগে মোদী-মমতাকে নিশানা রাহুলের রোজগার করতে গেলে আগে দিতে হয় কাটমানি, বাংলায় আগুন জ্বালানোর চেষ্টা, একযোগে মোদী-মমতাকে নিশানা রাহুলের

English summary
BJP reveals new weapons to occupy Kolkata in West Bengal assembly election 2021 with target of gentleman
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X