India
  • search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

'এই ধরনের সিদ্ধান্তে জন্ম নেয় আলাদা রাজ্যের দাবি', স্কুলের ছুটি নিয়ে বিস্ফোরক বিধায়ক

Google Oneindia Bengali News

তীব্র দাবদাহে পুড়ছে বাংলা! ইতিমধ্যে ৪০ ডিগ্রি পৌঁছে গিয়েছে কলকাতার তাপমাত্রা। বিভিন্ন জায়গাতে তাপপ্রবাহের জন্যে হাই-অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। এই অবস্থায় এগিয়ে আনা হয়েছে গরমের ছুটি। মূলত মে মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে রাজ্যে গরমের ছুটি পড়ে।

২ মে থেকে গরমের ছুটি ঘোষণা করলো আইসিএসই

স্কুল বন্ধ নিয়ে বিস্ফোরক বিধায়ক

কিন্তু যেভাবে তাপপ্রবাহ চলছে গোটা বাংলা জুড়ে সেখানে দাঁড়িয়ে এগিয়ে আনা হয়েছে গরমের ছুটি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্প্রতি এই বিষয়ে একটি বৈঠক করেন। সেখানেই গরমের ছুটি এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ২ মে থেকে পড়ছে গরমের ছুটি। প্রবল গরমের হাত থেকে স্বস্তি দিতেই এহেন সিদ্ধান্ত রাজ্য প্রশাসনের।

আর এখানেই আপত্তি বিজেপির! কার্যত গরমের ছুটি নিয়ে সংঘাতের পথে বিজেপি বিধায়ক শঙ্কর ঘোষ।

এই মর্মে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে চিঠিও দিয়েছেন তিনি। তাঁর দাবি, দক্ষিণবঙ্গের সঙ্গে উত্তরবঙ্গের পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আলাদা। দক্ষিণবঙ্গে তীব্র দাবদাহ থাকলেও উত্তরবঙ্গে এই মুহূর্তে একটা সুন্দর পরিবেশ রয়েছে বলে দাবি শিলিগুড়ির বিধায়কের। আর সেই কারণে দক্ষিণবঙ্গে স্কুল বন্ধ হলেই উত্তরবঙ্গেও কেন ওই সিদ্ধান্ত জারি করা হবে?

তা নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে লেখা চিঠিতে প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপি সাংসদ। ফলে সিদ্ধান্ত আরও একবার ভেবে দেখার কথাও জানিয়েছেন তিনি। শিক্ষামন্ত্রীকে পাঠানো চিঠির একটি প্রতিলিপি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিরোধী দলনেতাকে ট্যাগ করেছেন বিজেপি বিধায়ক। তবে তাঁর টুইটে তিনি কার্যত এই ইস্যুতে রাজ্যভাগের কথা তুলে ধরেছেন।

তিনি লিখেছেন, ''দক্ষিণবঙ্গে গরম পড়লে উত্তরবঙ্গে বন্ধ হয় স্কুল ,এই ধরনের প্রশাসনিক সিদ্ধান্তের কারণে উত্তরবঙ্গে জন্ম নেয় আলাদা রাজ্যের দাবি।'' আর এহেন বক্তব্য ঘিরেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক বিতর্ক।

এই প্রসঙ্গে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ জানিয়েছেন, দায়িত্বজ্ঞানহীণ প্ররচনামূলক কথা বলছেন উনি। বিধায়ক হিসাবে তাঁর কথা জানাতেই পারেন উনি।

তবে রাজ্যের একদিকে স্কুল চলবে আর অন্যদিকে স্কুল বন্ধ থাকবে তা ঠিক নয় বলে দাবি প্রাক্তন তৃণমূল সাংদের। সরকারি নীতি কখনও জেলা ভিত্তিক হয় না বলেও দাবি তাঁর। তবে এর সঙ্গে রাজ্য ভাগের প্রসঙ্গ টানা ঠিক নয় বলে দাবি তৃণমূলের।

তবে এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা শঙ্কর ঘোষের দাবি, করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ ছিল পঠন-পাঠন। এরপরে ফের একবার স্কুল বন্ধ হলে সমস্যা বাড়বে পড়ুয়াদের। আর সেদিকে তাকিয়েই এই চিঠি বলে দাবি বিধায়কের। শুধু তিনিই নয়, শিলিগুড়ির মানুষের কথাই তিনি তুলে ধরেছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

English summary
bjp MLA Shankar Ghosh claims issue like different states starts from cases like school closing
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X