• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

তৃণমূলের প্রাক্তন মন্ত্রীর গোপন বৈঠক বিজেপি নেতাদের সঙ্গে! একুশের আগে শুরু জল্পনা

তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্ব সাংঘাতিক রূপ নিয়েছে বিভিন্ন জেলায়। তার মধ্যে মালদহে ফের সম্মুখ সমরে দেখা দি্য়েছে তৃণমূল প্রাক্তন মন্ত্রী বনাম বর্তমান পুরসভার প্রশাসককে। এই অবস্থায় বিজেপি ছাড়ল মোক্ষম বাণ। তৃণমূলের প্রাক্তনমন্ত্রীর দিকে হাত বাড়াল বিজেপি। একুশের নির্বাচনের আগেই মালদহ তৃণমূলে শুরু হয়ে গেল ভাঙন-জল্পনা।

তৃণমূলে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকট মালদহে

তৃণমূলে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকট মালদহে

মালদহে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব দীর্ঘদিনের। আগে তৃণমূলের দুই মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী বনাম সাবিত্রী মিত্রের লড়াই ছিল এই জেলায়। এখন তা পর্যবসিত হয়েছে কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরী বনাম নীহাররঞ্জন ঘোষের দ্বন্দ্বে। সম্প্রতি দুই প্রবল প্রতাপশালী নেতা মধ্যের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে আসে।

তৃমমূলের প্রাক্তন মন্ত্রীর বাড়িতে বিজেপি

তৃমমূলের প্রাক্তন মন্ত্রীর বাড়িতে বিজেপি

এরই মধ্যে বিজেপির একটা প্রতিনিধি দল সটান হাজির হন কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরীর বাড়িতে। হঠাৎ কেন কৃষ্ণেন্দুনারায়ণের বাড়িতে বিজেপির হেভিওয়েটরা। জুয়েল মুর্মু, দুলাল বর, গোবিন্দরচন্দ্র মণ্ডল-রা কেন তৃণমূল নেতার বাড়িতে হানা দিয়েছেন, তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

কৃষ্ণেন্দুনারায়ণই এখন বিজেপির সফট টার্গেট!

কৃষ্ণেন্দুনারায়ণই এখন বিজেপির সফট টার্গেট!

বিজেপি দাবি করে, কৃষ্ণেন্দুবাবুর দাদা শুভেন্দুবাবু দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। তাঁকে দেখতেই তারা এসেছেন। যদিও রাজনৈতিক মহলের একটা বড় অংশ তা মনে করছে না। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, বিজেপি প্রতিন্দিদের এই পদক্ষেপের পিছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে। তাঁরা মনে করছেন কৃষ্ণেন্দু নারায়ণই এখন বিজেপির সফট টার্গেট।

কৃষ্ণেন্দুকে টোপ, জাল পেতেছে বিজেপি

কৃষ্ণেন্দুকে টোপ, জাল পেতেছে বিজেপি

লোকসভা ভোটের নিরিখে ইংরেজবাজার কেন্দ্রে বিজেপি তৃণমূলের থেকে প্রায় এক লক্ষ্য ভোটে এগিয়ে রয়েছে। লোকসভা ভোটে এখানে মূলত লড়াই ছিল বিজেপির সঙ্গে কংগ্রেসের। এই বিধানসভা কেন্দ্রে গতবারে লড়াই ছিল মূলত কংগ্রেস বনাম তৃণমূলের। কৃষ্ণেন্দু ফ্যাক্টর এখানে বরাবরই থাকে। তাই ২০২১-এর আগে এই কেন্দ্রটি নিশ্চিত করতেই কৃষ্ণেন্দুকে টোপ দেওয়ার চেষ্টা চালিয়েছে বিজেপি।

জল্পনাতেও নীহার বনাম কৃষ্ণেন্দু

জল্পনাতেও নীহার বনাম কৃষ্ণেন্দু

তৃণমূলও এখানে দীর্ঘদিন ধরে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে ভুগছে। এখন আবার কৃষ্ণেন্দু ও নিহারের দ্বন্দ্ব নিয়ে তৃণমূলে সংকট তৈরি হয়েছে। দুজনেরই আবার বিজেপি যোগ মিলে্ছে। সম্প্রতি নীহাররঞ্জন ঘোষও বিজেপির একটি মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন। তা নিয়েও জল্পনার পারদ চড়েছিল। এদিন আবার কৃষ্ণেন্দুর বাড়িতে বিজেপির প্রতিনিধি দল নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে ওঠে।

তৃণমূল ভাঙার দিকেই নজর বিজেপির

তৃণমূল ভাঙার দিকেই নজর বিজেপির

২০১৬ বিধানসভা কেন্দ্রে কংগ্রেসপ্রার্থী হিসেবে জয়ী হয়েছিলেন নীহাররঞ্জন। তিনি কৃষ্ণেন্দুকে হারিয়ে দিয়েছিলেন জোট প্রার্থী হিসেবে। তারপর কংগ্রেস ছেড়ে তিনি যোগ দেন তৃণমূলে। এমনকী ইংরেজবাজার পুরসভা থেকেও কৃষ্ণেন্দুকে সরিয়ে তিনি বসেন কুর্সিতে। এখনও তিনি পুরসভার প্রশাসক। আর কৃষ্ণেন্দুর তৃণমূলে পরিচয় এখন প্রাক্তন মন্ত্রী হিসেবেই।

করোনায় মৃত ব্যক্তির দেহ ফেলে না রেখে ফোন করুন কন্ট্রোলরুমে: ফিরহাদ হাকিম

পুলিশ-জনতার খণ্ডযুদ্ধে ফের ফের উত্তপ্ত পূর্ব মেদিনীপুরের পটাশপুর

English summary
BJP leaders meet with TMC’s ex minister Krishnendu Narayan Chowdhury
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X