• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বাংলায় দুর্নীতির নেতৃত্বে হিটলার স্বৈরাচারী মুখ্যমন্ত্রী! কাদের শোকজ করতে হবে, বললেন রাজু

তৃণমূলের আমলে বাংলায় স্বৈরাচৈরী শাসন চলছে। ক্ষমতায় বসেছেন হিটলার মুখ্যমন্ত্রী। তাই এই সিন্ডিকেটের সরকারকে আগে সরাতে হবে। ২০২১-এ বদল হবে। তারপর বদলাও হবে। জলপাইগুড়িতে দাঁড়িয়ে তৃণমূলের শোকজের রাজনীতিকে আইওয়াশ বলে উড়িয়ে বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, কাদের আগে শোকজ করতে হবে।

তৃণমূলে শোকজ করা দরকার যাঁদের

তৃণমূলে শোকজ করা দরকার যাঁদের

তিনি বলেন, ধূপগুড়িতে তৃণমূল নেতারা দাঁড়ি্য়ে থেকে দুর্নীতি করছেন। পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে কাটমানির সরকার চলছে। ধূপগুড়ি তার ব্যতিক্রম নয়। এখন রাজ্যজুড়ে তৃণমূল শুদ্ধিকরণে নেমেছে। শোকজ করছে তৃণমূল নেতাদের। যদি শোকজই করতে হয়, তবে প্রথম শোকজ করতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

মমতাই শেখাচ্ছেন দুর্নীতি, তাই তাঁকেই শোকজ

মমতাই শেখাচ্ছেন দুর্নীতি, তাই তাঁকেই শোকজ

কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে সবার আগে শোকজ করতে হবে তার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন রাজু। তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই তো সবাইকে কাটমানি খাওয়া শেখাচ্ছেন। একটা প্রশাসনিক বৈঠকে তিনি বলছেন, তোমরা ৭৫ পার্সেন্ট রাখো, বাকি ২৫ পার্সেন্ট আমাকে দাও। তাহলে কাকে আগে শোকজ করা উচিত, বলুন।

আইওয়াশ, মানুষের চোখে পর্দা সেঁটে দেওয়া হচ্ছে

আইওয়াশ, মানুষের চোখে পর্দা সেঁটে দেওয়া হচ্ছে

এসব যা হচ্ছে সবই আইওয়াশ। বোঝানো হচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কতটা স্বচ্ছ, তৃণমূল কতটা স্বচ্ছ। নিচুতলার নেতা-কর্মীদের দুর্নীতি ধরে সাধারণ মানুষের চোখে পর্দা সেঁটে দেওয়া হচ্ছে। যদি শোকজ করতেই হয়, তাহলে মমতা-অভিষেকদের আগে শোকজ করতে হবে। কেননা তারাই এসবের উৎস।

হিটলার স্বৈরাচারী মুখ্যমন্ত্রীই দুর্নীতির মাথায়

হিটলার স্বৈরাচারী মুখ্যমন্ত্রীই দুর্নীতির মাথায়

রাজু বলেন, আপনারা প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার কথা বলছেন? মমতার সঙ্গে কারা ঘুরে বেড়াচ্ছে। যারা সারদা-নারদা থেকে হাত পেতে টাকা নিয়েছে আর সংবাদমাধ্যমকে দিয়েছে, তারা ঘুরে বেড়াচ্ছে। তৃণমূল কংগ্রেস একটা কাটমানির দল, সিন্ডিকেটের দল, মাফিয়ারাজের দল, গুন্ডার দল। আর তার নেতৃত্ব দিচ্ছেন হিটলার স্বৈরাচারী মুখ্যমন্ত্রী।

বাংলায় কোনও আইনের শাসন নেই

বাংলায় কোনও আইনের শাসন নেই

রাজু বলেন, বাংলায় কোনও আইনের শাসন নেই। তিনি হাইকোর্ট মানেন না, সুপ্রিম কোর্টও মানেন না, কোনও কোর্টই মানেন না। এখানে যত লোক আছে দেখবেন, বালি মাফিয়া, কয়লা মাফিয়া, গরু মাফিয়া, জমি মাফিয়া, যত লোক আছে সিন্ডিকেটের সঙ্গে যুক্ত সবাই তৃণমূলের।

পুলিশকেও নিশানা রাজুর

পুলিশকেও নিশানা রাজুর

রাজুর কথায়, আমাদের স্লোগান ২০২১-এ বদলা হবে, বদলও হবে। পুলিশের কর্মীরা যারা তৃণমূলের দালালি করছে, তৃণমূলের হয়ে কাটমানি খাচ্ছে্, তাদের আমরা সাবধান করে দিচ্ছে। যত বড় আধিকারিক হোন না কেন, আইপিএস অফিসার হোন না কেন। আপনারা তৃণমূলের জেলা সভাপতি হয়ে গিয়েছেন তো। আগামী দিন আপনাদের জেলের ভাত খাইয়ে দেব।

কাউকে ছাড়ব না। সবাইকে জুতো চাটাব

কাউকে ছাড়ব না। সবাইকে জুতো চাটাব

রাজু বলেন, পুলিশ যে ভূমিকা নি্চ্ছে, যেভাবে দালালি করছে, অত্যাচার চালা্চ্ছে আমাদের নেতাদের উপর, যেভাবে পুলিশ নির্বিকার থাকছে বিজেপি কর্মীদের পিটিয়ে মারার পরও, কাউকে ছাড়ব না। সবাইকে জুতো চাটাবো। বদল হলেই বদলা হবে। আর সেই বদলায় পায়ের জুতো চাটিয়ে ছাড়ব পুলিশকে।

তৃণমূলের দাদা-মন্ত্রীরাও নিশানায়

তৃণমূলের দাদা-মন্ত্রীরাও নিশানায়

তাঁর হুঁশিয়ারি শুধু পুলিশকে নয়, আপনার তৃণমূলের দাদাদেরও, মন্ত্রীদেরও জেলের ভাত খাওয়াব। সবার বিরুদ্ধে তদন্ত করে জেলের ভাত খাইয়ে ছেড়ে দেব। যারা চুরি করবে, সবাই তারা জেলের ভিতরে থাকবে। বিজেপি কাউকে ছেড়ে কথা বলবে না। পুলিশ, মন্ত্রী, কেউ না।

বিভিন্ন দল থেকে কংগ্রেসে ৩০০ জন যোগদান

করোনায় মৃত্যু উপসর্গহীন রোগীর, পুরসভা-স্বাস্থ্যভবনের চূড়ান্ত অসহযোগিতা, বাড়িতেই ফ্রিজে রইল দেহ

English summary
BJP leader Raju Banerjee takes on Mamata Banerjee as Hitlar of Bengal
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X