India
  • search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

বিশ্বভারতীতে হুলুস্থুল-কাণ্ড, রাজ্যপালের মাধ্যমে উপাচার্যের বিপদ-বার্তা মুখ্যসচিবকে

Google Oneindia Bengali News

শুক্রবার রাতে হুলুস্থুল-কাণ্ড ঘটে গেল বিশ্বভারতীর উপাচার্যরের বাড়ির সামনে। তা নিয়ে উপাচার্যকে সাহায্যের আবেদন জানিয়ে রাজ্যপাল বার্তা পাঠালেন রাজ্যের মুখ্যসচিবকে। কাতর আবেদন পুলিশ না পাঠালে নিরাপত্তা না দিলে জীবন সংশয় ঘটতে পারে। এটিকে বিপদ বার্তা বলে জানিয়ে মুখ্যসচিবকে জানালেন রাজ্যপাল। তারপর মুখ্যসচিব জানালেন পাল্টা রাজ্যপাল ও উপাচার্যকে আশ্বস্ত করেন।

বিশ্বভারতীতে হুলুস্থুল, রাজ্যপালের মাধ্যমে উপাচার্যের আবেদন

বিশ্বভারতীর পাঠভবনের ছাত্রের রহস্যমৃত্যুর পর তাঁর দেব নিয়ে উপাচার্যের বাড়িতে ঢুকে পড়েন মৃত ছাত্রের পরিবার-পরিজন ও ছাত্রদের একাংশ। উপাচার্যের বাড়ির প্রধান ফটকের তালা ভেঙে ফেলেন তাঁরা। তখনই আতঙ্কিত হয়ে এসপি, ডিএম, এমনকী রাজ্যপালকে পর্যন্ত জানান বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী।

বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর নিরাপত্তা দাবিতে সেই আবেদন মুখ্যসচিবকে পাঠান রাজ্যপাল। সেই বার্তা পাঠানোর কথা টুইট করে জানান রাজ্যপাল স্বযং। টুইটে রাজ্যপাল লিখেছেন, পুলিশকে হস্তক্ষেপ করার আর্জি জানিয়ে উপাচার্য মুখ্যসচিবকে চিঠি লিখেছেন। সেই বার্তায় তিনি লিখেছেন, দয়া করে নিরাপত্তা দিন, আমার জীবন ঝুঁকির মধ্যে। বিক্ষোভকারীরা প্রধান ফটক ভেঙে ফেলেছে। আমাকে পুলিশি নিরাপত্তা না পাঠালে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে। এটি একটি বিপদবার্তা।

এর পাল্টা মুখ্যসচিব জানিয়েছেন, আমি খবর পেয়েছি। ডিজিপি, ডিএম, এসপিকে সতর্ক করেছি। আমি নজর রাখছি। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পুলিশ মোতায়েন ছিল বিশ্বভারতীর উপাচার্যের বাড়ির সামনে। যাতে অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, সে ব্যাপারে সতর্ক ছিল পুলিশ। যদিও উপাচার্য অভিযোগ করেন, তিনি এসপিকে ফোন করেও পাননি।

এদিকে বৃহস্পতিবার বিশ্বভারতীর পাঠভভনের একাদশ শ্রেণির ছাত্র অসীম দাসের রহস্যমত্যুর ঘটনার পর তাঁর বাবা-মা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আঙুন তোলেন। তাঁদের অভিযোগ, তাঁদের কোনও খবরই দেওয়া হয়নি কর্তৃপক্ষের তরফে। তাঁরা ভিন্ন সূত্রে খবর পেয়ে এসে দেখেন, ছেলের ডেথ সার্টিফিটেক লেখা হয়ে গিয়েছে। এই ঘটনায় তঁরা শান্তিনিকেতন থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তাঁদের ছেলেকে খুন করা হয়েছে বলে দাবি করেন বাবা-মা। বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে তাঁদের অভিযোগ, পরেক্ষে দোষীকে আড়াল করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

শুক্রবার এই ইস্যুতে হুলুস্থূল কাণ্ড বেধে যায়। অসীমের দেহ নিয়ে উপাচার্যের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখান অসীমের বাবা-মা, আত্মীয়-পরিজন ও পাঠববনের পড়ুয়াদের একাংশ। উপাচার্যের বাড়ির মূল ফটকের তালা ভেঙে ফেলা হয়। তারপর পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। উপাচার্যের বাড়ির সামনে মোতায়েন করা হয় পুলিশ। সব মিলিয়ে উত্তেজনা চরমে ওঠে শুক্রবার রাতে। তার জের শনিবার সকালেও চলছে। রাজ্যপাল ও মুখ্যসচিবের হস্তক্ষেপে বিষ,টি এখন কতদূর গড়ায় সেদিকেই নদর ওয়াকিবহাল মহলের।

English summary
Biswabharati’s vice chancellor appeal to chief secretary through Governor for security.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X