• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন এবার বাংলার মাটিতেই তৈরি হবে! করোনা যুদ্ধে রাজ্যের বড় পদক্ষেপ

  • |

এই প্রথমবার নয়। বাংলার মানুষ যখনই আপৎকালীন পরিস্থিতিতে পড়েছে, তখনই এগিয়ে এসেছে বেঙ্গল কেমিক্যালস। আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায়ের হাত ধরে বাংলার বুকে ১২৮ বছরে বহু আপৎকালীন পরিস্থিতিতে বাঙালির পাশে থেকেছে এই সংস্থা। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ হোক, কিম্বা টাউফয়েডের মতো মহামারী, বেঙ্গল কেমিক্যালস বাংলাকে হতাশ করেনি। এবার তাদের কাঁধে আসছে আরও এক বড় দায়িত্ব।

বাংলার মাটিতে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন

বাংলার মাটিতে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন

'বেঙ্গল কেমিক্যালকে দ্রুত এই কাজটা করতে বলুন', মুখ্যমন্ত্রীর এই বার্তায় রাজ্যের ছাড়পত্র স্পষ্ট হয়েছে। আর তার সঙ্গেই স্পষ্ট হয়েছে যে, দেশে করোনা মহামারীকে প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন তৈরি হবে বেঙ্গল ক্যামিক্যালসে। শুধু দেশ নয় , বিশ্বের একাধিক জায়গায় এই ওষুধের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। আর তার যোগানে এবার সামিল হবে এই সংস্থা।

 হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ও নেপথ্যের কিছু তথ্য

হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ও নেপথ্যের কিছু তথ্য

ভারত-মার্কিন সংঘাত তুঙ্গে উঠেছিল হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন নিয়ে। মার্কিন মুলুক এই ওষুধ ভারত থেকে চাওয়ার পাশাপাশি,'না পেলে প্রতিশোধ' নেওয়ারও হুমকি দেয়। এরপরই, নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য গুজরাতের একটি সংস্থা থেকে এই ট্যাবলেট মার্কিন মুলুকে যাওয়ার রপ্তানী করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এমন পরিস্থিতিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার বেঙ্গল কেমিক্যালকে বেছে নিয়েছেন করোনা যুদ্ধের 'সৈনিক' হিসাবে।

উত্তরবঙ্গকে তৈরি হতে নির্দেশ!

উত্তরবঙ্গকে তৈরি হতে নির্দেশ!

উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন এলাকা ও কালিম্পং-এ সিঙ্কোনা গাছের চাষ হয়। আর সেটিই এই ট্যাবলেটের কাঁচা মাল। মুখ্যমন্ত্রী দ্রুত এই সেক্টরে কার্যকরী হওয়ার বার্তা দিয়েছেন। পাশাপাশি, বণিক সভায় সাফ বার্তা দিয়ে তিনি বলেন, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন তৈরির যে কাঁচামালের কারখানা ছিল ,তাতে প্রচুর যন্ত্রাংশ বিকল। তা ফের একবার সচল করতে সাহায্য করবে সরকার। আর দ্রুত উত্তরবঙ্গ থেকে কাঁচামাল তৈরি হবে এই ওষুধ তৈরির জন্য।

কত ট্যাবেলেটের বরাত রয়েছে ?

কত ট্যাবেলেটের বরাত রয়েছে ?

যত দ্রুত সম্ভব তত তাড়াতাড়ি হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ট্যাবলেট তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, এখনও পর্যন্ত ১৫ লক্ষ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ট্যাবলেট তৈরির বরাত দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, করোনার প্রতিকারে আইসিএমআর থেকে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহারের নির্দেশ এসেছে। এরপর এই ওষুধ বিদেশে রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারত। আর তারপরই আসে মার্কিনি চাপ। এরপর ভারত সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয়।

English summary
Bengal Chemicals to Produce Hydrooxycloroquine, Here is the latest report
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X