• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

একুশের নির্বাচন বদলে দিতে পারে ভারতের ভবিষ্যৎ! কোন পথে দেশের রাজনৈতিক গতিপথ?

১৩৫ কোটির দেশে ২৮টি রাজ্য, ৮টি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল রয়েছে। তবে ২০২১ সালের তিনটি নির্বাচন ভারতীর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ চিরতরের জন্য়ে বদলে দিতে পারে। পশ্চিমবঙ্গ, কেরল, তামিলনাড়ু, এই তিন রাজ্যে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে নির্বাচন। এই তিন রাজ্যের বিধানসভাতেই বিজেপির অস্তিত্ব না-এর বরাবর। তবে এই তিন রাজ্যেই নিজেদের অস্তিত্ব জাহির করে সে রাজ্যের রাজনীতিতে বদল আনতে চাইছে বিজেপি। বঙ্গে তো আবার বিজেপি ক্ষমতা দখলের লড়াই করছে।

প্রথমবার রাজ্য রাজনীতিতে বিজেপি ঝড়ের সম্ভাবনা

প্রথমবার রাজ্য রাজনীতিতে বিজেপি ঝড়ের সম্ভাবনা

১৯৫২ সালের প্রথম নির্বাচনের ,ময় থেকেই পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতে কংগ্রেস পন্থী বনাম বামপন্থীদের লড়াই ছিল। কংগ্রেস-বাম ছাড়া প্রথমবার বঙ্গের মসনদে বসেছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস। মাঝে বাংলা কংগ্রেসের নেতৃত্বে যুক্ত ফ্রন্ট সরকার গঠন করেছিল, তবে তাতেও বামপন্থীদের সহযোগ ছিল। তবে এই প্রথমবার রাজ্য রাজনীতিতে বিজেপি ঝড়ের পালা।

হাওয়া বদলাতে শুরু করেছিল ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে

হাওয়া বদলাতে শুরু করেছিল ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে

১৯৯৮ সালে তৃণমূল কংগ্রেস গঠনের পর এনডিএ জোটের অলিন্দে বিজেপি এসেছিল রাজ্যে। তবে একক ভাবে রাজ্য রাজনীতিতে বিজেপির দাঁত ফোটানো ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে। গেরুয়া শিবির সেবার মাত্র ২টি আসন পেয়েছিল। তবে ভোট শতাংশের নিরিখে অনেটাই এগিয়েছিল বিজেপি। এরপরই ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে ১৮টি আশন পেয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছিল পদ্ম শিবির। তবে তার আগেই ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসাবে উঠে এসেছিল বিজেপি।

বাম-কংগ্রেসকে খুঁজে পাওয়া কঠিন হতে পারে

বাম-কংগ্রেসকে খুঁজে পাওয়া কঠিন হতে পারে

বিশেষজ্ঞদের মত, ২০২১ সালে যদি তৃণমূল কংগ্রেস জিতে যায়, তাহলে বাম-কংগ্রেস অস্তিত্বের সংটে ভুগবে রাজ্যে। এমনিতেই তাদের রাজ্য রাজনীতিতে করুণ অবস্থা। তবে বিজেপি বনাম তৃণমূলের লড়াইতে কিছুটা প্রাসঙ্গিকতা এখনও ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে বাম-কংগ্রেস। তবে তৃণমূল জিতলে রাজ্যে মূল বিরোধী দল হবে বিজেপি। সেক্ষেত্রে পরবর্তীতে বাম-কংগ্রেসকে খুঁজে পাওয়া কঠিন হতে পারে।

অস্তিত্ব লোপ পেতে পারে তৃণমূল কংগ্রেসের

অস্তিত্ব লোপ পেতে পারে তৃণমূল কংগ্রেসের

এদিকে একুশের নির্বাচনে বিজেপি জিতে গেলে হয়ত তৃণমূল কংগ্রেসের অস্তিত্ব লোপ পাবে। 'অপারেশন কমল'-এর জেরে মমতা সঙ্গীহীন হয়ে পরবেন খুব শীঘ্রই। সেই ক্ষেত্রে বঙ্গ রাজনীতি দেখতে পারে বাম বনাম রামের লড়াই। প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠবে বামপন্থী দলগুলি। বিজেপির সাম্প্রদায়িক রাজনীতিকে রুখতে ময়দানে নামবে বাম দলগুলি।

'দ্রাবিড় রাজনীতি'-র শেষের ঘণ্টা?

'দ্রাবিড় রাজনীতি'-র শেষের ঘণ্টা?

এদিকে কেরলে এবং তামিলনাড়ু এতদিন সাম্প্রদায়িকতার নিরিখে রাজনীতি দেখেনি। তবে একুশের নির্বাচনে তাই দেখতে পারে এই দুই রাজ্য। তামিলনাড়ুতে এনডিএ জোট গড়ে এআইএডিএমকের সঙ্গে ভোট ময়দানে নামছে বিজেপি। তবে সাম্প্রদায়িকতার রাজনীতি এডিএমকেও খুব একটা হজম করতে পারছে না। তবে তামিল রাজনীতিতে ধীরে ধীরে জমি শক্তি করার পথে এগোচ্ছে বিজেপি। আর একুশের নির্বাচনে তামিলনাড়ু 'দ্রাবিড় রাজনীতি' থেকে পরিবর্তন দেখতে পারে।

কেরলে বাম-কংগ্রেস লড়াইয়ের মাঝে বিজেপির ওয়াইল্ড কার্ড এন্ট্রি

কেরলে বাম-কংগ্রেস লড়াইয়ের মাঝে বিজেপির ওয়াইল্ড কার্ড এন্ট্রি

এদিকে কেরলে বিজেপির অস্তিত্ব নেই বলে যতই সরব হোক বামপন্থী জোট এবং কংগ্রেস, গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি এই রাজ্যে ১৫ শতাংশ ভোট পায়। কেরলে চিরকাল কংগ্রেস বনাম বামের লড়াই দেখে এসেছে রাজনৈতিক মহল। তবে এই লড়াইতে ওয়াইল্ড কার্ড এন্ট্রি নিয়ে ঢুকতে চলেছে বিজেপি। এই নির্বাচনে বিজেপির আসন সংখ্যা যতই হোক, সেটাই হবে বিজেপির জন্যে উপরি পাওনা। যা পরিস্থিতি, এই তিন রাজ্যের নির্বাচন, প্রভাব ফেলতে চলেছে জাতীয় রাজনীতির উপরও।

কলকাতাঃ বেহালায় চন্ডী মন্দিরে পুজো দিয়ে রাজ্য সরকারকে তুলোধনা করলেন রাজ্যপাল

'অধিকারী সম্ভ্রমে' আঘাত, 'কাঁথি' বনাম 'কালীঘাট'-এর লড়াইয়ে পদ্মফুলে শিশিরবিন্দু!

English summary
Assembly election for West Bengal, Tamil Nadu and Kerala could change national politics forever
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X