• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ফের ক্ষমা চাইলেন অনুব্রত! মমতার ক্ষমতায় থাকা কেন জরুরি, বললেন অনুব্রত

  • |

ফের একবার ক্ষমা চাওয়ার কথা শোনা গেল বীরভূম তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের মুখে। সাঁইথিয়ার কর্মী সভা থেকে তাঁর অনুরোধ কেউ মুখ ফেরাবেন না। পাশাপাশি দলীয় সভা থেকে কর্মীদের সতর্ক করে দিয়ে তাঁর হুঁশিয়ারি কোনও ঔদ্ধত্য মেনে নেওয়া হবে না। অহংকারকেও প্রশ্রয় দেওয়া হবে না।

সিইএসসির 'বড়' ঘোষণায় স্বস্তিতে গ্রাহকরা! কলকাতার জয়, বললেন অভিষেক

দলীয় নেতা, কর্মীদের প্রতি হুঁশিয়ারি বার্তা অনুব্রতর

দলীয় নেতা, কর্মীদের প্রতি হুঁশিয়ারি বার্তা অনুব্রতর

২০২১-এর লক্ষে বীরভূমে কর্মিসভা করে চলেছেন অনুব্রত মণ্ডল। রবিবার সেরকমই একটি কর্মিসভা ছিল সাঁইথিয়ায়। সেখানে তিনি দলীয় কর্মীদের সতর্ক করেন। বলেন, কারও ঔদ্ধত্ব মেনে নেওয়া হবে না। নেতা, কর্মীদের উদ্দেশে তাঁর হুঁশিয়ারি, যাঁরা অঞ্চল প্রধান রয়েছেন, তাঁরা যদি ভেবে নেন, তাঁরাই অঞ্চলের সব, তাহলে মানুষ মানবে না, দলও মানবে না। কথা না শুনলেও মানুষও মানবে না, দলও মানবে না।

প্রকাশ্য সভায় ক্ষমাপ্রার্থী অনুব্রত

প্রকাশ্য সভায় ক্ষমাপ্রার্থী অনুব্রত

প্রকাশ্য সভায় দলের পক্ষ থেকে তিনি বলেন, দলের কোনও কর্মী যদি কোনও অন্যায় করে থাকেন, তাহলে তিনি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছেন।

মমতার পাশে থাকতে অনুরোধ

মমতার পাশে থাকতে অনুরোধ

অনুব্রত মণ্ডল বলেন, এটা পঞ্চায়েত কিংবা জেলা পরিষদের ভোট নয়। এটা মিউনিসিপ্যালিটির ভোটও নয়। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে থাকুন। তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় না থাকলে বাংলায় অন্ধকার নেমে আসবে।

এর আগেও ক্ষমা চেয়েছেন অনুব্রত

এর আগেও ক্ষমা চেয়েছেন অনুব্রত

ইদানিং অনুব্রত মণ্ডলের মুখে ক্ষমা চাওয়ার প্রসঙ্গ বারবার আসছে। তা ব্যতিক্রম হয়নি এমাসের শুরুর দিকে পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির বীরভূম জেলার অনুষ্ঠানে। সেই অনুষ্ঠানেও তিনি বলেছিলেন, যদি কোনও কটূ কথা বলে থাকেন, তাহলে ক্ষমা করে দেবেন।

English summary
Anubrata Mondal apologizes on behalf of the party workers and leaders in Sainthia
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X