• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

অমিত শাহের সফরের আগে প্রশাসনিক পদ ছেড়ে বিস্ফোরক পার্থ! স্বাগত জানাল বিজেপি

  • |

দিন দুয়েক আগে পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায়কে (partha sarathi chatterjee) নদিয়া জেলা তৃণমূলের সহ সভাপতির পদ থেকে সরানো হয়েছিল। আর এদিন তিনি রাণাঘাটের পুরপ্রশাসকের পদে ইস্তফা দিলেন। এদিকে এই ইস্তফার ঘটনাকে স্বাগত জানিয়ে বিজেপি বলেছে দলে আসতে চাইলে স্বাগত জানাবে তারা।

২৫ জানুয়ারি দলীয় পদ থেকে অপসারিত

২৫ জানুয়ারি দলীয় পদ থেকে অপসারিত

২৫ জানুয়ারি বাড়িতে চিঠি পাঠিয়ে নদিয়া জেলা তৃণমূলের সহ সভাপতির পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছিল পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায়কে। তাঁকে তৃণমূলের কোনও সভায় যোগ দিতেও বারণ করা হয়। জেলা তৃণমূলের তরফ থেকে বলা হয়েছিল, দলের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই দূরত্ব তৈরি করছিলেন এই নেতা। বেশ কয়েকবার সতর্ক করা হলেও শোনেননি তিনি। দলের শৃঙ্খলা রক্ষা করতেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানানো হয়েছিল তৃণমূলের তরফে।

 বৈষম্যের অভিযোগের পাশাপাশি পিকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ

বৈষম্যের অভিযোগের পাশাপাশি পিকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ

পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায়ের অনুগতদের সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি রানাঘাট উত্তর পশ্চিমের এই তৃণমূল বিধায়ক দলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন। এছাড়াও প্রশান্ত কিশোরের সংস্থার হাতে দলের নির্বাচনের দায়িত্ব তুলে দেওয়া নিয়েও অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। যা কোনও অংশে বর্তমানে দলত্যাগী মিহির গোস্বামী কিংবা শীলভদ্র দত্তের থেকে কম নয়। তিনি বলেছিলেন, এজেন্সি দিয়ে দল চালানো হচ্ছে। অসম্মান সহ্য করে পদে থাকা যায় না বলেও মন্তব্য করেছিলেন তিনি। এদিন দলের অভ্যন্তরে বৈষ্যম্যের অভিযোগে সরব হয়েছেন তিনি।

তৃণমূলের আছি, বলেছেন পার্থসারথী

তৃণমূলের আছি, বলেছেন পার্থসারথী

দলের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার পরেই পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, তিনি তৃণমূলেই আছেন। তিনি জানিয়েছিলেন ওই পদ নিয়ে খুশি ছিলেন না। তাই সরিয়ে দেওয়ার পরেও তিনি অখুশি নন। কটাক্ষ করে তাঁর মন্তব্য ছিল, যাঁরা ওই ধরনের পদ পছন্দর করেন, তাঁদের জন্য ওই পদ ভাল। তবে জেলা সভাপতির পাঠানো চিঠিতে দলবিরোধী কার্যকলাপের যে অভিযোগ তোলা হয়েছিল সেব্যাপারে পার্থসারথী চট্টোপাধ্যায় বলেছিলেন, নিজের দলবিরোধী কাজ সম্পর্কে তিনি অবহিত নন।

বিজেপিতে স্বাগত

বিজেপিতে স্বাগত

পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায় রানাঘাটের পুর প্রশাসকের পদ ছাড়ার ঘটনাকে স্বাগত জানিয়েছে বিজেপি। পাশাপাশি তাঁকে আগে ভাগেই দলে স্বাগত জানিয়ে রেখেছেন রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার। সংবাদম্ধামকে তিনি বলেছেন, আগামী দিনে তৃণমূল বলে আর কিছু থাকবে না। যাঁরা তৃণমূলে মর্যাদা পাচ্ছেন না, তাঁদের তিনি বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। সূত্রের খবর অনুযায়ী, ৩১ জানুয়ারি অমিত শাহের সভায় তিনি বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন। তবে এব্যাপারে পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায় কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ভোটে নিজের এলাকায় কোনও পুলিশকর্মী পোস্টিং পাবেন না, বড় সিদ্ধান্ত কমিশনের

English summary
After expells from Trinamool Congress Parthasarathi Chatterjee quits post of administrator of Ranaghat
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X