• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মুখ্যমন্ত্রী জানেন না কাকে বলে লকডাউন, আর কাকে আনলক! মমতাকে মিথ্যাবাদী বলে আক্রমণ অধীর চৌধুরীর

  • |

মুখ্যমন্ত্রী মিথ্যাবাদী। কোয়ারেন্টাইন সেন্টার নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা বলছেন, তার সঙ্গে বাস্তবের কোনও মিল নেই। এদিন এমনটাই অভিযোগ করলেন লোকসভায় কংগ্রেস দলনেতা তথা বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরী। পশ্চিমবঙ্গে সাধারণ মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন রেশনে চুরির কথা

মুখ্যমন্ত্রী কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন রেশনে চুরির কথা

অধীর চৌধুরী বলেন করোনা সংক্রমণের সময়ে রেশনে যে চুরি হয়েছে, তা মেনে নেওয়া যায় না। অন্যদিকে আম্ফান পরবর্তী সময়ে ত্রাণ প্রাপকদের তালিকা তৈরি নিয়ে গাঁজাখরি চলেছে। দোতলা, তিনতলা বাড়ির মালিকদের নাম তালিকায়। বাংলা জুড়ে চুরি হচ্ছে। আর এই চুরি দূর করতে মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনের ওপর ভরসা করতে চাইছেন। মন্তব্য করেছেন অধীর চৌধুরী। সেখানেই প্রমাণ হয়ে যাচ্ছে রাজ্যে টুরির ঘটনা ঘটছে।

মুখ্যমন্ত্রী সকালে এক আর বিকেলে আরেক কথা বলেন

মুখ্যমন্ত্রী সকালে এক আর বিকেলে আরেক কথা বলেন

অধীর চৌধুরী অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী সকালে এক কথা বলেন আর বিকেলে আরেক কথা বলেন। মুখ্যমন্ত্রী জানেন না কাকে লকডাউন বলে, আর কাকে আনলক। যে কারণে কর্মীদের অফিসে যাওয়ার কথা ঘোষণা করে দিয়েছেন, কিন্তু পরিবহণের ব্যবস্থা হয়নি।

মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে

মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে

রাজ্য সরকার প্রথমে জানিয়েছিল ১৫ জুন পর্যন্ত রাজ্যে লকডাউন চলবে। এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্যে লকডাউন চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত। এব্যাপারে অধীর চৌধুরী বলেন, রাজ্যে সাধারণ মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা চলছে। অধীর চৌধুরীর মতে মুখ্যমন্ত্রীর অদূরদর্শীতার জন্য বাংলায় করোনার এপিসেন্টার তৈরি সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে।

পরিযায়ী শ্রমিকদের আলাদা করে রাখার ক্ষেত্রে সরকারের কোনও পরিকাঠামো নেই বলেও অভিযোগ করেন অধীর চৌধুরী। এইসব জায়গায়, খাবার নেই, জল নেই, বিদ্যুৎ না থাকার অভিযোগ তিনি করেছেন।

মুখ্যমন্ত্রী মিথ্যাবাদী

মুখ্যমন্ত্রী মিথ্যাবাদী

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মিথ্যাবাদী বলে অভিযুক্ত করেছেন অধীর চৌধুরী। পরিযায়ীদের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে বিদ্যুৎ নেই, গরমে পাখা নেই, মশার অত্যাচার। সেগুলোকে মানুষের খোঁয়াড় বলে মন্তব্য করেছেন লোকসভায় কংগ্রেস দলনেতা। কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরিতে মুখ্যমন্ত্রী যে খরচের কথা জানিয়েছেন, তা প্রেক্ষিতেই অধীর চৌধুরীর এই মন্তব্য।

আনলক পর্বে করোনা নিয়ে হাল্কা মনোভাব কেন? সতর্ক হোন, বার্তা রাজ্যপালের

বিজেপিতে ফের ভাঙন জঙ্গলমহলে! একুশের আগে কর্মীদের দলে দলে যোগদান তৃণমূলে

English summary
Adhir Chowdhury questions CM Mamata Banerjee's steps on lockdown and unlock. He also alleged that Mamata Banerjee speaking something in morning and other in the evening.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X