রবি শাস্ত্রী-র মানবিক মুখ, কাহিনি যা আপনাদের চোখে জল এনে দেবে

  • Posted By: Debalina
Subscribe to Oneindia News

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ফুটবলার থেকে অভিনেতা সকলেই সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে বিভিন্ন কাজ করেন। বিভিন্ন সময়েই তাঁরা দত্তক নেন সমাজের পিছিয়ে পড়া অংশের সন্তানদের। এবার সেরকমই মানবিক মুখ দেখা গেল রবি শাস্ত্রীর।

রবি শাস্ত্রী-র মানবিক মুখ, কাহিনী যা আপনাদের চোখে জল আনবে

বিশ্বরূপ দে -র অনাথ আশ্রম রিফিউজের একটি বাচ্চাকে দত্তক নিতে চলেছেন রবি শাস্ত্রী। রবিবার আসবেন রিফিউজের একটি ইনডোর গেমসের বিল্ডিং উদ্বোধনে। বিশ্বরূপ দে-র কাছেই শোনেন গণেশের দুঃখের জীবনের কাহিনী। তাতেই কেঁদে ওঠে ভারতের কোচের মন। আসলে বড়ই দুঃখের জীবন এই শিশুর। রাস্তায় জন্ম নেওয়া শিশুর জীবনে শুধু অভাবই সঙ্গী ছিল না। তাঁর মা ছিলেন মানসিক ভারসাম্যহীণ। সন্তান হারিয়ে যাওয়ার ভয়ে নিজের শরীরের সঙ্গে শিশুটিকে বেঁধে নিয়ে ঘুরতেন তিনি। কখনো খাইয়ে দিতেন ধুলোও। রাস্তা থেকে সেই বাচ্চাকে প্রায় মরণাপন্ন অবস্থায় তুলে নিয়ে আসা হয় রিফিউজে। সেখানেই এতদিন অবধি বড় হয়ে উঠেছে গণেশ।

এবার সেই আটবছরের গণেশকে দত্তক নিতে চলেছেন রবি শাস্ত্রী। রবিবার হবে সব কাজকর্ম। তারপরেই রবি শাস্ত্রীর এই সন্তানের দায়িত্ব নিয়ে নেবেন। ঘটনাটি নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই আবেগতাড়িত বিশ্বরূপ দে-ও। সিএবি- র প্রাক্তন কোষাধ্যক্ষ এই রিফিউজ চালান দীর্ঘদিন ধরে। তাঁর আশ্রম থেকে একটি বাচ্চা এভাবে আনন্দের জীবনের সুযোগ পাচ্ছে ভেবেই খুশি তিনি। বিশ্বরূপ দে আরও জানিয়েছেন, রবি শাস্ত্রী গোটা কর্মকান্ড দেখেই দারুণ মোটিভেটেড। এই আশ্রমের কাজ আরও বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন।

মুম্বইতে রবি শাস্ত্রীর মেয়ে আলেকার ভাই হিসেবে কলকাতায় বড় হবে গণেশ। এতদিন যে পিতৃ-মাতৃহারা অবস্থায় ছিল , সেএবার বাবা পাবে।

English summary
Ravi Shastri's human face, he is adopting a boy from refuge
Please Wait while comments are loading...

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.