• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সিন্ডিকেটের তোলাবাজি নিয়ে ব্যাপক অশান্তি মালদহে

  • |

ওভারলোডিং ট্রাক আটকে স্থানীয় সিন্ডিকেটের তোলাবাজি নিয়ে ব্যাপক অশান্তি ছড়িয়েছে পুরাতন মালদহের সাহাপুরে। ঘটনায় গুরুতর জখম দু'জন। জখম অবস্থায় একজন মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অন্যজনকে পাঠানো হয়েছে কলকাতায়।

সিন্ডিকেটের তোলাবাজি নিয়ে ব্যাপক অশান্তি মালদহে

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার গভীর রাতে একটি ট্রাক থেকে তোলা চাওয়া হয়। তাই নিয়েই ব্যাপক গণ্ডগোল বাঁধে। খবর পেয়ে প্রধান ঘটনাস্থলে সাহাপুর গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান বিজেপির উকিল মন্ডল‌। ফলে উত্তেজনা আরো বাড়ে। স্থানীয় সিন্ডিকেট গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান বিজেপির উকিল মন্ডলকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এই নিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন পঞ্চায়েত প্রধান।

তার অভিযোগ, সাহাপুর পুলিসের মদতেই একদল রাতের অন্ধকারে তোলাবাজির চালায় বলেও অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা।

প্রসঙ্গত, শুধু মালদা নয়, মুর্শিদাবাদ, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, দুই ২৪ পরগনাতেও ট্রাক আটকে সিন্ডিকেটের তোলাবাজি নিয়ে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয় কলকাতা হাইকোর্টে। যার জেরে জাতীয় সড়কে ট্রাক থেকে তোলা আদায় ঠেকাতে চার জেলার পুলিশ সুপারদের কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন রাজ্য পুলিশের ডিজি। তার সত্বেও তোলাবাজি আটকাতে ব্যর্থ হচ্ছে জেলা পুলিশরা।

ডিজির চিঠি অনুযায়ী, ট্রাক থেকে কুপন কেটে টাকা তোলার অভিযাগে ওঠার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশি টহলদারি বাড়াতে হবে বলে নির্দেশ ছিল। নিচু তলার পুলিশকর্মীদের এই ব্যাপারে আরও সতর্ক করতে হবে, ১০০ ডায়াল বা জেলার পুলিশ কন্ট্রোল রুমে এমন অভিযোগ এলেই দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছতে হবে। আর গত তিন মাসে এমন অভিযাগে এসে থাকলে সে সব ক্ষেত্রে কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, সেই ব্যাপারে বিস্তারিত রিপোর্ট দিতে হবে। কিন্তু তার পরেও আবার একই ঘটনা প্রশ্নের মুখে ফেলে দিচ্ছে প্রশাসনকে।

পরীক্ষা দিতে বেরিয়ে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ ছাত্রী

English summary
Distarbance in Malda for alleged syndicate extortion
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X