• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

  • By Debalina Dutta
  • |

'রান দ্য রন'- কচ্ছের রনের ওপর দিয়ে এক রোমহর্ষক দৌড়। তিনটি ক্যাটাগরিতে হয় এই দৌড়। ১৬১ , ১০১ ও ৫১ কিলোমিটার। প্রকৃতির আদিম সান্নিধ্যে নিজেদের এক নতুন ভাবে দেখা।জামশেদপুরের বাসিন্দা হলেও এখন পশ্চিমবঙ্গের হয়ে এই ২০১৮ -র রান দ্য রনে অংশ নিয়েছিলেন রাজীব কুমার পাঠক।

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

৪৫ ঘন্টার মধ্যে এই রেস শেষ করার যে চ্যালেঞ্জ রাজীব নিয়েছিলেন তাতে বাংলাকে সম্মান এনে দিয়েছেন তিনি। বাংলার একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে নির্ধারিত সময়ের আগে রেস শেষ করে জিতে নিয়েছেন পদক।

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

এবছরের ফেব্রুয়ারির ২ থেকে ৫ তারিখ অবধি রেস ছিল। রেসের আয়োজন করেছিল আইটিআরএ অর্থাৎ ইন্টারন্যাশানাল ট্রেল রানিং অ্যাসোসিয়েশান।

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

পথ ছিল ধূলাকীর্ণ , রুক্ষ, প্রাকৃতিক দুর্গমতায় ভরা। আর পাঁচটা ম্যারাথনের থেকে যেটা একেবারেই আলাদা। এই প্রথম রেস যেটা ম্যারাথনের থেকে অনেকটাই আলাদা, এমনটাই মত ম্যারাথনে অংশ নেওয়া অ্যাথলিটদের। কারণ কোনও নির্দিষ্ট একটিই মাত্র পথ নেই যেটা ধরে দৌড়তে হয়। তাই প্রতিটা অ্যাথলিটের হাতে নেভিগেশন টুল দেওয়া হয়েছিল।

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে ১৬৭ মিটার উচ্চতায় ছিল সর্বোচ্চ। কিন্তু সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে উচ্চতা বেশি না হলেও এই রান অঞ্চল কার্যত মরুপ্রদেশের থেকে কোনও অংশে কম নয়। বালিয়াড়ি না থাকলেও রুক্ষ পাথুরে ভূমি পেরিয়ে এই দৌড়ের জন্য প্রস্তুত হন অ্যাথলিটরা। কচ্ছের রানের এক বিরাট এলাকা দিয়ে ছিল দৌড়ের পথ। যেখানে শুরুর পথ সেখানের কাছেই কার্যত শেষ হয়েছিল দৌড়ের পথ।

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

এমনিতেই রনকে একে অদ্ভুত ভৌগোলিক ভূমি হিসেবে চিহ্নিতকরণ করা হয়। কচ্ছের এই রন ভারতের আদিতম সভ্যতার পীঠস্থান। হরপ্পা -মহেঞ্জোদাড়ো পাকিস্তানের ভাগে গেলেও লোথাল কিন্তু রনেরই অংশ। এমনটাই জানিয়েছেন রেসে অংশ নেওয়া বাংলার প্রতিনিধি রাজীব। ২০১৪ সাল থেকে শুরু হয়েছে এই বিশেষ ম্যারাথন। এই ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারীরা প্রত্যেকেই মনে করেন এই দৌড় একেবারে অন্যমাত্রা-র এক দৌড়।

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

৩৫ ঘন্টা ১৮ মিনিট ৯ সেকেন্ডে রেস শেষ করে রাজীব প্রতিযোগিতায় ১১তম হলেও বাংলার হয়ে তিনি প্রথম হয়েছেন। রাজীব নিজে জানিয়েছেন, 'রেসের প্রতিমুহূর্তে নতুন চ্যালেঞ্জ, নতুন চমক। তবে পুরোটাই দারুণ উপভোগ্য। আমি আজ অবধি যত রেসে দৌড়েছি তারমধ্যে এটা নিঃসন্দেহে সবচেয়ে শক্ত। '

রান দ্য রন , দুদ্ধর্ষ এক মরু দৌড়ের লড়াই করে এলেন কলকাতার রাজীব

রান দ্য রন কে পৃথিবীর সবচেয়ে শক্ত এশিয়া মরু রেস হিসেবে গণ্য হয় কারণ এই রেসে পুরোটাই নোনভূমির ওপর দিয়ে দৌড়তে হয়।

English summary
Bengal's runner completes the toughest desert race in Asia named 'run the rann', Rajiv Kumar Pathak is the bengal's representation.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X