• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মমতার হাতেই মোদী বিরোধী জোটের লাগাম, চন্দ্রবাবুর সঙ্গে বৈঠকের আগেই বোঝালেন তিনি

মোদী বিরোধী জোট গড়ে তুলতে শুরু হল নব উদ্যম। সেই উদ্যমেরই অঙ্গ স্বরূপ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সকাশে বৈঠক সারতে এলেন চন্দ্রবাবু নাইডু। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমীকরণ মেনেই বিজেপি বিরোধী জোট গড়তে চান অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা টিডিপি প্রধান চন্দ্রবাবু নাইডু। জোট গঠন প্রক্রিয়ায় গতি আনতে এদিন আলোচনা হয় দুই সুপ্রিমোর মধ্যে।

ভোটের পর জোট বৈঠক

ভোটের পর জোট বৈঠক

এদিনের বৈঠক নতুন করে বুঝিয়ে দিয়েছে মোদী বিরোধী জোটের লাগাম থাকবে মমতার হাতেই। বৈঠকের আগেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছেন, ২২ নভেম্বর দিল্লিতে বিরোধী জোটের মিটিং হচ্ছে না। সেই বৈঠক হবে ডিসেম্বরে পাঁচ রাজ্যে ভোটের পর। উল্লেখ্য, এই বৈঠকেই জোট পরিকল্পনা চূড়ান্ত হওয়ার কথা ছিল। তারপরই হায়দারাবাদে জোটের প্রথম সভা করার কথা ছিল।

রাহুলের হাত ধররা পরই সক্রিয় চন্দ্রবাবু

রাহুলের হাত ধররা পরই সক্রিয় চন্দ্রবাবু

এতদিন বিজেপির বন্ধু ছিলেন। কিন্তু কথা রাখেননি মোদী। তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে গিয়ে অন্ধ্রপ্রদেশের জন্য হাত পেতেছেন, ফিরিয়ে দিয়েছেন মোদী। তাই তিনি এবার জবাব দিতে হাত ধরলেন রাহুলের। রাহুলও বেজায় খুশি মোদীকে হারাতে জোটের শক্তিবৃদ্ধির ফলে। তাই দুই নেতা সম্প্রতি আলোচনাতেও বসেছিলেন। সেইমতো ২২ নভেম্বর জোট বৈঠক করার কথা ছিল দিল্লিতে। কিন্তু মমতা জানিয়ে দিলেন বৈঠক পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা ভোটের পর।

মমতাকে চান চন্দ্রবাবু

মমতাকে চান চন্দ্রবাবু

চন্দ্রবাবু নাইডু মোদী বিরোধী জোটকে বাস্তব রূপ দিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শরণাপন্ন হতে এসেছেন কলকাতায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিল্লির বৈঠকে নিয়ে যাওয়াও ছিল তাঁর উদ্দেশ্য। তবে বৈঠকের আগেই মমতা সেই সম্ভাবনায় জল ঢেলে দিলেন। তিনি স্পষ্ট করে দিলেন জোট বৈঠক হবেই। তবে তা হবে ডিসেম্বরে।

কর্ণাটক মডেল প্রয়োগের বার্তা

কর্ণাটক মডেল প্রয়োগের বার্তা

মোদী বিরোধী জোট গড়ার কাজ শুরু করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। তিনিই রাহুল গান্ধীকে কর্ণাটক মডেল প্রয়োগ করতে বলেছিলেন। সেইমতোই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এগোচ্ছিলেন। দিল্লিতে দরবার করে বিজেপি বিরোধী দলগুলির সঙ্গে বৈঠক করেছেন। চন্দ্রবাবুদের সামনে আনার পিছনে ছিলেন মমতাই। তাই চন্দ্রবাবুও মোদী বিরোধী জোটে সর্বাগ্রে চান বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে। সেই লক্ষ্য নিয়েই এদিনের আলোচনা।

[আরও পড়ুন:বাম জমানাকেই 'অনুসরণ'! নাট্য অ্যাকাডেমি ছাড়লেন বিভাস চক্রবর্তী]

ফর্মুলা এক বনাম এক

ফর্মুলা এক বনাম এক

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রথম ডাক দিয়েছিলেন একের বিরুদ্ধে এক প্রার্থীর ফর্মুলা মেনে ভোট করার। সেই ফর্মুলার বাস্তব রূপ দিতে এবার চন্দ্রবাবু আসছেন মমতা-শরণে। দুই সুপ্রিমোর বৈঠক থেকে কী বার্তা আসে, সেদিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল। মোদী বিরোধী জোটের ভবিষ্যৎ গড়ে দিতে এই উদ্যোগ।

[আরও পড়ুন: মুকুলের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেবেন ‘হেভিওয়েট'! লোকসভার আগে বাড়ছে জল্পনা]

জোটের নীল নকশা রূপায়নই উদ্দেশ্য

জোটের নীল নকশা রূপায়নই উদ্দেশ্য

চন্দ্রবাবু দিল্লির বৈঠকের পরই বাংলায় আসার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছিলেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনা করেই জোটের নীল নকশা প্রস্তুত করতে চান তিনি। সেইমতোই বাংলায় আসছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা তেলেগু দেশম পার্টি বা টিডিপি সুপ্রিমো চন্দ্রবাবু নাইডু। বিরোধী দলগুলিকে এক সুতোয় বাঁধাই তাঁর উদ্দেশ্য।

[আরও পড়ুন:অমৃতসর বিস্ফোরণে 'যোগ' সেনাপ্রধানের! মমতা ঘনিষ্ঠ দলের বিধায়কের মন্তব্যে চাঞ্চল্য ]

English summary
Mamata Banerjee gives message that bridle of alliance remain in her hand. She informs alliance meeting will occur in December,
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X