• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

শহরে বিধ্বংসী আগুনে ঝলসে মৃত সাত, আগুন নিয়ন্ত্রণে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

স্ট্র্যান্ড রোডের বহুতলে বিধ্বংসী আগুন। এদিন সন্ধে ছটা দশ নাগাদ মিলেনিয়াম পার্কের বিপরীতে থাকা একটি বহুতলে আগুন লাগে। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় দমকলের একাধিক ইঞ্জিন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে একের পর এক দমকলের ইঞ্জিনের সংখ্যা বাড়ানো হয়। যদিও মুহূর্তে ভয়াবহ আকার নেয় আগুন। আগুনের গ্রাসে মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে যায়। এখনও পর্যন্ত ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে সাতজনের। ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রয়েছেন সুজিত বসু।

বিল্ডিংয়ের অগ্নিকাণ্ডে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে

বিল্ডিংয়ের অগ্নিকাণ্ডে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে

স্ট্র্যান্ড রোডে রেলের নিউ কয়লাঘাট বিল্ডিংয়ের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এমনটাই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর মধ্যে ৪ জন দমকল কর্মী ১ জন আরপিএফ কর্মী এবং হেয়ার স্ট্রিট থানার এএসআই রয়েছেন। আরও ১ জনের পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। তিনি জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী মৃতদের পরিবার পিছু ১০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। ক্ষতিপূরণ ছাড়া মৃতদের পরিবার পিছু এক জনকে সরকারি চাকরিও দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও বাড়তে পারে মৃতের সংখ্যা

আরও বাড়তে পারে মৃতের সংখ্যা

এখনও বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে। কারণ বেশ কয়েকজনের এখনও পর্যন্ত খোঁজ নেই বলে জানা যাচ্ছে। প্রায় চারজনের খোঁজ নেই এখনও। ফলে সংখ্যাটা আরও বাড়তে পারে বলে খবর।

কীভাবে ঘটল এই ঘটনা

কীভাবে ঘটল এই ঘটনা

জানা যাচ্ছে, ১৪ তলা ভবনটির ১৩ তলায় প্রথমে আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে ভবনের ১২ তলায়। প্রবল আগুনে রেলের সার্ভার রুমটি ভস্মীভূত হয়ে গিয়েছে। এর ফলে উত্তর-পূর্ব ভারতে রেলের বুকিং ব্যবস্থা ব্যাপক ভাবে ব্যাহত হয়েছে। প্রায় ৫ ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। প্রথমে আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসার পর ১৩ তলায় পৌঁছনর চেষ্টা করেন কয়েক জন দমকল কর্মী। কিন্তু ১২ তলায় পৌঁছে তাঁরা লিফ্ট থেকে বেরনোর চেষ্টা করেন কিন্তু প্রচণ্ড তাপের ফলে তাঁরা ফিরে আসার চেষ্টা করেন। কিন্তু চারপাশের আগুনের তাপ ও বিষাক্ত গ্যাসে তাঁরা সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন বলে খবর। তার ফলেই তাঁদের মৃত্যু হয় বলে জানা গিয়েছে।

রেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ মমতার

রেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ মমতার

ঘটনাটি ঘটেছে রেলের বিল্ডিংয়ে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত রেলের তরফে কেউ যোগাযোগ তাঁদের সঙ্গে করেনি বলেই জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এই বিষয়ে তিনি কোনও রাজনীতি চান না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাত ১২টা গড়িয়ে গেলেও এখনও ঘটনাস্থলে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে উদ্ধারকাজে তদারকি করছেন তিনি।

English summary
kolkata strand road fire saven persons death by suffocation
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X