• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সাধারণ কাশি নাকি করোনা সংক্রমণ ? বলে দেবে যাদবপুরের পড়ুয়াদের তৈরি এই নতুন যন্ত্র

  • |

করোনা প্রতিরোধে এবার বড়সড় সাফল্যের দোরগোড়ায় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। দেশে এই প্রাণঘাতী ভাইরাস থাবা বসাতেই সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে ঝাঁপিয়ে পড়তে দেখা গেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ও পড়ুয়াদের একটা বড় অংশকে।

শুরু থেকেই করোনা মোকাবিলায় ময়দানে যাদবপুরের পড়ুয়ারা

শুরু থেকেই করোনা মোকাবিলায় ময়দানে যাদবপুরের পড়ুয়ারা

স্যানিটাইজার তৈরির পাশাপাশি পলিপ্রোপাইলিনের সংমিশ্রণে বিশেষ প্রযুক্তিতে সস্তার মাস্কও তৈরি করেছে তারা। অন্যদিকে করোনা সংক্রান্ত ভুয়ো খবর ধরতে একটি বিশেষ অ্যাপও বানিয়েছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের একদল পড়ুয়া। এবার করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রেও বিশেষ অত্যাধুনিক যন্ত্র তৈরি করে ফেলল তারা।

করোনার উপসর্গ নাকি সাধারণ কাশি ? বলে দেবে এই যন্ত্র

করোনার উপসর্গ নাকি সাধারণ কাশি ? বলে দেবে এই যন্ত্র

বর্তমানে করোনা আতঙ্ক এমনভাবেই সকলের মনে জাঁকিয়ে বসেছে যে, আশেপাশে কেউ কেশে উঠলেই সন্দেহের দৃষ্টিতে তাকাচ্ছেন অন্যেরা। সকলের মনে কাজ করছে সংক্রমণের ভয়। কিন্তু যাদবপুর বিশ্ব বিদ্যালয়ের হাত ধরে এবার সেই সমস্যারও সমাধান হতে চলেছে। এবার ভিড়ের মধ্যে আচমকা কেউ কেশে উঠলে তিনি আদৌ করোনা আক্রান্ত কি না তা বলে দেবে এই বিশেষ যন্ত্র।

ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের দুই পড়ুয়ার উদ্যোগে তৈরি এই বিশেষ যন্ত্র

ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের দুই পড়ুয়ার উদ্যোগে তৈরি এই বিশেষ যন্ত্র

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই এই ডিভাইসের প্রয়োগে সম্মতি দিয়েছে কলকাতার ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ বা আইসিএমআর। ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের দুই পড়ুয়া অন্বেষা বন্দ্যোপাধ্যায় ও আঁচল নিহানির উদ্যোগেই তৈরি হয়েছে এই নতুন ডিভাইসটি। গোটা গবেষণায় তাদের সাহায্য করেছেন ওই ডিপার্টমেন্টেরই বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক পি ভেঙ্কটেশ্বরণ।

করোনা চিকিৎসায় খুলে যেতে পারে নতুন দিগন্ত

করোনা চিকিৎসায় খুলে যেতে পারে নতুন দিগন্ত

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই চিকিৎসকদের একটি অংশও এই যন্ত্রটির বিশেষ প্রশংসা করেছেন। সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংয়ের নিয়ম মেনেই এই ডিভাইসটি কাজ করবে বলে জানা যাচ্ছে। অর্থাৎ শারীরিক স্পর্শ ছাড়াই এই যন্ত্রের উন্নতমানের সেন্সর দূর থেকেই বলে দেবে কোনও ব্যক্তির সংক্রমণ রয়েছে কিনা। তবে এখনও এর ক্লিনিক্যাল টেস্ট হয়নি বলে খবর। যদিও তা শীঘ্রই সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সরকারি বাবে এই যন্ত্রের ব্যবহার শুরু হলে করোনা করোনা চিকিৎসায় তা নতুন দিগন্ত খুলে দিতে পারে বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

করোনা থেকে বাঁচতে হলে মুসলিমদের থেকে সবজি কিনবেন না, সতর্ক করলেন বিজেপি বিধায়ক

English summary
jadavpur students create new device to detect corona infection
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X