• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

‘বিদ্রোহ’ বিজেপিতে! রূপার টুইটে বিদ্ধ দিলীপ, পঞ্চায়েত ভোটের আগে এ কীসের ইঙ্গিত

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে কামান দাগলেন দলেরই সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে তিনি রাজ্য সভাপতির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর এই প্রকাশ্য ক্ষোভপ্রকাশ পঞ্চায়েত ভোটের আগে যথেষ্ট অস্বস্তিতে ফেলে দিল রাজ্য বিজেপিকে। প্রশ্ন উঠে পড়ল, বিজেপি রাজ্যে তৃণমূলের চ্যালেঞ্জার হয়ে ওঠার আগেই কেন দল জেরবার হয়ে উঠছে গোষ্ঠীকোন্দলে?

‘বিদ্রোহ’ বিজেপিতে! রূপার টুইটে বিদ্ধ দিলীপ

সোমবার টুইটারে রূপা অভিযোগ করেন, 'আমি মোদীজিকে মেসেজ করতে পারি। অমিতভাইয়ের সঙ্গেও কথা বলতে পারি। কিন্তু দিলীপদাকে মেসেজ করতে পারি না। সেই পথ বন্ধ করা আছে।' শুধু এখানেই শেষ নয় রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের তোপ। তিনি আরও বলেন, 'রাজ্য সভাপতি আমার সঙ্গে কুরুচিকর ভাষায় চিৎকার করেন। কিন্তু আমি শান্ত থাকি। কারণ আমার বাবা আমাকে বয়োজ্যেষ্ঠদের প্রতি অনুগত থাকতে শিখিয়েছেন।'

এরপরই তিনি টুইটে লেখেন- 'দিলীপদা, বাংলায় আপনাদের মিডিয়া ইন চার্জ কে? দয়া করে তাঁকে বলবেন, আগামীকাল সকাল ১০টায় আমাকে ফোন করতে। কোর কমিটির মেসেজ গ্রুপে মেসেজ করেছিলাম। কেউ জবাব দেয়নি।' মঙ্গলবার অবশ্য রূপার টুইটার হ্যান্ডেল থেকে ওই সব টুইট ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে। বিতর্কিত টুইটটি খুঁজে পাওয়া যায়নি।

‘বিদ্রোহ’ বিজেপিতে! রূপার টুইটে বিদ্ধ দিলীপ

দিলীপবাবুও এই টুইটের কথা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, 'আমি শুনেছি ওই টুইটের কথা। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগের কথাও শুনেছি। তবে ওঁর কোনও অসুবিধা থাকলে, তা কেন টুইটারে লিখলেন, তা বুঝলাম না। সরাসরি কথা বলতে পারতেন আমার সঙ্গে। উনি যখন মহিলা মোর্চার সভানেত্রী ছিলেন, তখন দলীয় শৃঙ্খলা নিয়ে কিছু কথা বলেছিলাম। এতদিন পর তিনি কেন এইসব নিয়ে মুখ খুললেন, তাও বোধগম্য হল না।'

এদিন রূপার এই টুইট-পোস্টের জেরে সামনে এসে গেল রাজ্য বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দল। রূপা বারবার অভিযোগ করেছেন, তাঁর রাজ্যের কর্মসূচি এমনভাবে রাখা হয় যে, তা সংসদের অধিবেশনের সঙ্গে একসঙ্গে পড়ে। ফলে তিনি রাজ্যের কর্মসূচিতে থাকতে পারেন না। এদিনও টুইটে সেই বিরোধের ছাপ স্পষ্ট।

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এ প্রসঙ্গে জানান, 'এই টুইটের পর রূপা গঙ্গাপাধ্যায়ের সঙ্গে মিডিয়া সেলের প্রতিনিধি কথা বলেন। সমস্যা মিটিয়ে নেওয়া হয়েছে। তবে তা প্রকাশ্যে না এলেই ভালো হত।' রাজনৈতিক মহল একাংশ মনে করছে, এটা দলের পক্ষে আদৌ শুভ সংকেত নয়। যখন তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ করার মতো জায়গায় এখন বিরোধী দলের মধ্যে তারাই অগ্রণী, তখন এই গোষ্ঠীকোন্দল বুমেরাং হতে পারে।

English summary
BJP's state president Dilip Ghosh is attacked by Roopa Ganguli on Twitter. She writes that she can’t speak to Dilip Ghosh and not to message.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X