• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ফিরে দেখা ২০১৯ : শ্রীলঙ্কার বিস্ফোরণ থেকে বাগদাদি হত্যা, বিশ্ব আঙিনায় কোন খবরগুলি শিরোনামে ছিল?

শ্রীলঙ্কার বিস্ফোরণ থেকে বাগদাদি হত্যা। বছর জুড়ে বিশ্ব আঙিনায় শিরোনামে ছিল বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক খবর। তাতে ছিল আমাজনে অগ্নিকাণ্ড, হংকংয়ে গণতন্ত্রপন্থীদের বিক্ষোভ আন্দোলন, প্যারিসের নতর দাম গির্জায় আগুন, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলা সহ আরও বেশ কিছু ঘটনা। বছর শেষে একবার সেই খবরগুলিকে ফিরে দেখা যাক।

বাগদাদি হত্যা

বাগদাদি হত্যা

সুপরিকল্পিত অভিযান চালিয়ে আইএস জঙ্গি নেতা আবু বক্কর আল বাগদাদীকে খতম করে মার্কিন বাহিনী। ২০১৪ সাল থেকে আইএসের নেতৃত্ব দিয়েছে বাগদাদি। একাধিক বড় জঙ্গি হামলা ঘটেছে তার নেতৃত্বে। তাকে নিকেশ করার জন্য ইরান, তুরষ্ক এবং আমেরিকা যৌথভাবে অভিযান চালিয়েছিল। সিরিয়ার যে সুড়ঙ্গে বাগদাদি ঢুকে নিজেকে বাঁচানোর চেষ্টা করছিল, সেই জায়গায় নিজের 'ঢাল' হিসবে ৩ শিশুকে নিয়ে ঢোকে বাগদাদি। শেষে উপায় না পেয়ে নিজের সুইসাইড জ্যাকেটের বোতাম টিপে বিস্ফোরণে নিজেকে ছিন্নভিন্ন করে বাগদাদি। এর ১৫ মিনিট পর সেখানেই বাগদাদির দেহাবশেষ থেকে ডিএনএ পরীক্ষা করে জঙ্গিনেতার মৃত্যু নিশ্চিত করে মার্কিন বাহিনী।

ইস্টার সানডেতে শ্রীলঙ্কায় বিস্ফোরণ

ইস্টার সানডেতে শ্রীলঙ্কায় বিস্ফোরণ

২১ এপ্রিল ইস্টার সানডের দিন শ্রীলঙ্কায় ৬ ঘণ্টায় ৮টি বিস্ফোরণ ঘটে। তিনটি চার্চ সহ রাজধানী কলম্বোর তিনটি হোটেলেও বিস্ফোরণের খবর পাওয়া যায়। বিস্ফোরণের জেরে কমপক্ষে ৩০০ জনের বেশি প্রাণ হারান। এরমধ্যে ৩৫ জন বিদেশিও ছিলেন। কলম্বোর উত্তর অংশে কোচ্চিকাড়ে, কাটুওয়াপিটিয়া ও বাট্টিকালোর চার্চে বিস্ফোরণের ঘটনাগুলি ঘটে। কলম্বোর শাংরি লা, সিনামন গ্র্যান্ড ও কিংসবারি হোটেলেও বিস্ফেরণ হয়।

আমাজনে অগ্নিকাণ্ড

আমাজনে অগ্নিকাণ্ড

আমাজনের ঘন জঙ্গলে আগুন। চলতি বছরে আমাজনে অন্তত ৭২ হাজার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। অ্যামাজনে অগ্নিকাণ্ডের জেরে সাও পাওলো-সহ ব্রাজিলের বেশ কয়েকটি শহরের আকাশ কালো ধোঁয়ায় ছেয়ে যায়। এই অরণ্যে প্রায় ৩০ লাখ প্রজাতির গাছপালা-পশুপাখি রয়েছে৷ অরণ্য ধ্বংস মানে জীববৈচিত্র্যের সঙ্গে উষ্ণায়নের মাত্রাও আরও কিছুটা বেড়ে যাওয়া। দক্ষিণ আমেরিকার বৃষ্টিচ্ছায়া অরণ্য আমাজন পৃথিবীর ২০ শতাংশ অক্সিজেন সরবরাহ করে। তাই আমাজনকে পৃথিবীর ফুসফুস বলা হয়৷ সেই ফুসফুসই যেন তিলে তিলে ঝাঁঝরা হয়ে যায় এই বছর৷

হংকংয়ে গণতন্ত্রপন্থীদের আন্দোলন

হংকংয়ে গণতন্ত্রপন্থীদের আন্দোলন

চলতি বছরের জুনে হংকংয়ে বন্দিপ্রত্যর্পণ বিলকে ঘিরে আশান্তির সূত্রপাত৷ বিলে বলা হয়, হংকংয়ে কেউ কোনও অপরাধ করলে চিনের মূল ভূখণ্ডে তার বিচার করা যাবে৷ হংকংবাসীদের আশঙ্কা ছিল, কেউ চিনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখালে কড়া শাস্তি দিতেই এই বিল আনা হয়েছে৷ এই বিল প্রত্যাহারের দাবিতে হংকংয়ে শুরু হয় বিক্ষোভ৷ প্রতিবাদের মুখে বিলটি স্থগিত করা হলেও প্রতিবাদ অব্যাহত থাকে। পরে গত মাসের প্রথমদিকে বিলটি পুরোপুরি প্রত্যাহার করা হয়। কিন্তু এতেও প্রতিবাদীদের ক্ষোভ কমেনি। পূর্ণ গণতন্ত্রের দাবিতে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছে তারা। পাশাপাশি পুলিশের নিষ্ঠুরতা ও অন্যান্য অভিযোগেরও তদন্ত দাবি করছে। হংকংয়ের সরকার প্রধান ক্যারি ল্যামের পদত্যাগ চেয়ে প্রতিবাদ আন্দোলনে নামেন হংকংয়ের অসংখ্য বাসিন্দা। ডিসেম্বরের ৭ তারিখ এই আন্দোলনের অর্ধবার্ষিকী পূরণ হয়।

প্যারিসের নতর দাম গির্জায় আগুন

প্যারিসের নতর দাম গির্জায় আগুন

১৫ এপ্রিল রাতে আগুন লাগে প্যারিসের নতর দাম গির্জায়। সেই সময় ৮৫০ বছর বয়সি গির্জাটির সংস্কারের কাজ চলছিল। সেখান থেকেই লাগে আগুন। সম্ভবত জ্বলন্ত সিগারেট বা বৈদ্যুতিন ত্রুটির জন্য গির্জায় আগুন ধরে। গির্জার অনেক স্থাপত্য নষ্ট হয়েছে এই আগুনের জেরে। এই আগুনেরই জেরে গত ২০০ বছরে এই প্রথমবার বড়দিন উদযাপন হয়নি এই গির্জায়। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুল ম্যাকরঁন জানিয়েছেন যে পাঁচ বছরের মধ্যে ১৩ শতাব্দীর এই গির্জা ফের তৈরি করা হবে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলা

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলা

১৫ মার্চ, শুক্রবার স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র হাতে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের এক মসজিদে হামলা চালায় এক আততায়ী। ঘটনায় ৫০ জন প্রাণ হারান। ঘটনায় মূল অভিযুক্ত ২৮ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ায় জন্মানো ব্রেন্টন ট্যারান্টেকে পরে গ্রেফতার করে সেদেশের পুলিশ। সোশ্যাল মিডিয় এই গুলি চালানোর ঘটনার লাইভ স্ট্রিমিং করে ব্রেন্টন। প্রসঙ্গত, এই ঘটনায় অল্পের জন্য বেঁচে যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা। কারণ ঘটনার সময় সেই মসজিদের কাছেই ছিলেন তাঁরা। মসজিদেই যাওয়ার কথা ছিল তাঁদের। তবে গুলি চালানোর আওয়াজ পেয়ে সেখান থেকে পালান ক্রিকেটাররা।

প্রথমবার ব্ল্যাকহোলের দেখতে পাওয়া যায়

প্রথমবার ব্ল্যাকহোলের দেখতে পাওয়া যায়

ব্ল্যাকহোলের সহজ সংজ্ঞা দিতে গেলে বলতে হবে, একটি তারা বা নক্ষত্র যখন মারা যায় তখন সৃষ্টি হয় একটি ব্ল্যাকহোল বা কৃষ্ণগহ্বর। কয়েক শতাব্দী ধরে চলে আসা এক অনুমান এর সত্যিকারের ছবি দেখতে পাওয়া যায় ১০ এপ্রিল ,২০১৯।

সিরিয়ায় তুরস্কের আগ্রাসন

সিরিয়ায় তুরস্কের আগ্রাসন

চলতি বছরের ৯ অক্টোবর সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় এলাকা থেকে সিরিয়ার কুর্দি বিদ্রোহীদের উৎখাতে অভিযান শুরু করে তুরস্ক। সিরিয়ার কুর্দিশ সৈন্যদের বিরুদ্ধে প্রবল আক্রমণ শানিয়ে তুরস্ক সেনা ক্রমাগত ঢুকে পড়ে সেদেশের অন্দরে। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার ঘোষণার পরেই তুরস্ক সেদেশে অভিযান শুরু করে। পরে আমেরিকার হস্তক্ষেপে 'অপারেশন পিস স্প্রিং' নামে চলা তুরস্কের আগ্রাসন বন্ধে পাঁচদিনব্যাপী সংঘর্ষ বিরতিতে সম্মত হয় তুরস্ক। এই মর্মে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সঙ্গে দেখা করতে আঙ্কারা যান মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ও বিদেশ সচিব মাইক পম্পেও। পরে রাশিয়ার সঙ্গে তুরস্ক চুক্তি করে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে যৌথ টহলের।

ইরানের পরমাণু চুক্তি লঙ্ঘন

ইরানের পরমাণু চুক্তি লঙ্ঘন

২০১৫ সালে বিশ্বের পারমাণবিক শক্তিধর দেশগুলোর সঙ্গে হওয়া পরমাণু চুক্তি লঙ্ঘন করেছে ইরান। চুক্তি অনুযায়ী স্বল্প মাত্রার সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম মজুদের নির্ধারিত সীমা লঙ্ঘন করেছে দেশটি। ইরান ইতিমধ্যেই মজুদ করা সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের ৩০০ কেজির সীমা অতিক্রম করে বলে জানা যায়।

চুক্তি ছাড়াই শেষ হয় ট্রাম্প-কিম জং উনের দ্বিতীয় বৈঠক

চুক্তি ছাড়াই শেষ হয় ট্রাম্প-কিম জং উনের দ্বিতীয় বৈঠক

দ্বিতীয় বারের জন্য ঐতিহাসিক শীর্ষ সম্মেলন বৈঠকে বসেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। তবে বৈঠকটি কোন সমঝোতা ছাড়াই শেষ হয়ে যায় কারণ উত্তর কোরিয়ার দাবি অনুযায়ী নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে রাজি হয়নি যুক্তরাষ্ট্র।

English summary
year ender flashback of 2019 top global events of 2019 like baghdadi killing to srilanka blast
For Daily Alerts
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more