• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

এইচ১ ভিসা-র কাজে ফের স্থগিতাদেশ ট্রাম্পের, চাপের মুখে প্রবাসী ভারতীয় তথ্য-প্রযুক্তি কর্মীরা

  • |

করোনাকালে তীব্র আর্থিক মন্দার নাগপাশে জর্জরিত হয়েছে গোটা আমেরিকা। কাজ হারিয়ে পথে বসেছেন লক্ষ লক্ষ বেকার যুবক যুবতি। এমনকী দেখা নেই নতুন কর্মসংস্থানেরও। এমনতবস্থায় ভোট পূর্ব দেশের যুব সমাজের মন কাড়তে আমেরিকার ভিসা নীতিতে বড়সড় বদল আনতে দেখা যায় বিদায়ী মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। তবে সেই কাজই বর্তমানে আরও তিন মাসের স্থগিতাদেশ দিল মার্কিন প্রশাসন।বর্তমান সঙ্কটের সময় দাঁড়িয়ে দেশের যুবক-যুবতীদের আরও বেশি মাত্রায় কাজের সুযোগ করে দিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে ধারণা ওয়াকিবহাল মহলের।

নয়া বিজ্ঞপ্তিতে কী বলছে মার্কিন প্রশাসন

নয়া বিজ্ঞপ্তিতে কী বলছে মার্কিন প্রশাসন

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, জুন থেকেই আমেরিকায় কাজের পরিস্থিতি খুবই খারাপ হয়েছে, বেড়েছে বেকারত্ব। আর তার জেরে গত বছর এইচ-১বি, এইচ-২বি সহ বেশ কিছু অস্থায়ী ভিসার নিয়মে বড়সড় রদবদল আনে ট্রাম্প সরকার। প্রাথমিকভাবে ‘ওয়ার্ক ভিসা' নিয়ে আসা অভিবাসীদের সংখ্যা আমেরিকায় বেঁধে দেওয়া হলেও ডিসেম্বরে তাতে কিছু ছাড় দেওয়া হয়। ফলে বড় সুবিধা পান এইচ-১বি ভিসা হোল্ডারধারীরা।

‘ওয়ার্ক ভিসা’ এবং ‘ইমিগ্রান্ট ভিসা’-র কাজে স্থগিতাদেশ

‘ওয়ার্ক ভিসা’ এবং ‘ইমিগ্রান্ট ভিসা’-র কাজে স্থগিতাদেশ

এদিকে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির জন্য ‘ওয়ার্ক ভিসা' এবং ‘ইমিগ্রান্ট ভিসা'-সহ বেশ কিছু ভিসার কাজ আরও ৩ মাস স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।বৃহঃষ্পতিবারই ট্রাম্পের দফতরের তরফে এই বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় বলেও জানা যাচ্ছে। দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও জানান ট্রাম্প।

 চাপের মুখে ভারতীয় তথ্য-প্রযুক্তি কর্মীরা

চাপের মুখে ভারতীয় তথ্য-প্রযুক্তি কর্মীরা

অন্যদিকে পরিস্থিতি বুঝে এই স্থগিতাদেশের মেয়াদ আরও বাড়ানো হতে পারে বলেও জানিয়েছেন ট্রাম্প। আর তাতেই এইচ-১বি, এইচ-২বি সহ বেশ কিছু অস্থায়ী ভিসার জন্য যাঁরা আবেদন করেছিলেন তারা বিশেষ অসুবিধায় পড়তে চলেছেন বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।এই ভিসা বলেই একাধিক দেশ থেকে মূলত তথ্য প্রযুক্তি কর্মীরা কাজ করতে যান আমেরিকায়। আসনের অনেক পড়ুারাও। আর এই শ্রেণির মানুষের মধ্যে ভারতীয়দের সংখ্যাও অনেকটাই বেশি। কারণ নতুন করে আমেরিকায় যাওয়ার জন্য আবেদন ও বর্তমানে আমেরিকায় থাকা কর্মীদের ভিসার মেয়াদ বৃদ্ধি দুই বাধাপ্রাপ্ত হতে চলেছে।

৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়ল স্থগিতাদেশ

৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়ল স্থগিতাদেশ

এমতবস্থায় ট্রাম্পের নয়া সিদ্ধান্তের ফলে জটিলতা যে আরও বাড়তে চলেছে তা বলাই বাহুল্য। এমনকী ২০২১ সালের ১লা অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া নতুন অর্থবছরে এই ভিসার জন্য যারা আগাম আবেদন করে রেখেছিলেন তাঁর বেকায়দায় পড়তে চলেছেন। এদিকে এর আগে গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই কাজে স্থগিতাদেশ জারি করেছিল ট্রাম্প প্রশাসন। এবার তা বাড়িয়ে ৩১ মার্চ করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

কলকাতাঃ নতুন বছরে নতুন মেকওভারে খুলে যেতে পারে মহাকরণ

একুশ পাখির চোখ, সংগঠন চাঙ্গা করতে উত্তরবঙ্গ সফরে অভিষেক, ভৌটকৌশলী প্রশান্ত কিশোরের মন্ত্রে শান

English summary
Expatriate Indians under pressure after Donald Trump to suspend visa work again
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X