• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মহামারীতে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন, আমেরিকার বাজিমাত পোস্টাল ভোট আর ভার্চুয়াল প্রচারেই

মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচন দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে। প্রতিযোগী এবং তাঁদের সমর্থকদের মধ্যে জমকালো লড়াই আসন্নপ্রায়। বিশ্বজুড়ে উত্তেজনা আমেরিকার মানুষ শেষপর্যন্ত কাকে নির্বাচিত করেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি পদে। জো বাইডেন না ডোনাল্ড ট্রাম্প? কে বসেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজপাটে। কিন্তু এই করোনা সিচুয়েশনে কোন পদ্ধতিতে হবে ভোট, তা নিয়েই চলছে চর্চা।

মহামারীতে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন, আমেরিকার বাজিমাত পোস্টাল ভোটে

আমেরিকা করোনা মহামারীতে সবথেকে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ। তার মধ্যেই জটিল এবং দীর্ঘায়িত নির্বাচন প্রক্রিয়াটি অব্যাহত রয়েছে। একজন মার্কিন রাষ্ট্রপতি কীভাবে নির্বাচিত হন এবং কোভিড ১৯-এর এই মহামারীর মধ্যে তা কীভাবে সম্ভব হচ্ছে তা নিয়েই এই আলোচনা।

আমাদের দেশে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের তারিখ নির্দিষ্ট করা হয়নি এখনও। তবে মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তারিখ আমেরিকায় নির্ধারিত সেই ১৮৪৫ সাল থেকে। মার্কিন আইন অনুসারে, নির্বাচনের দিন সর্বদা নভেম্বর মাসের প্রথম সোমবারের পরে প্রথম মঙ্গলবার হয়। ২০২০ সালে এই দিনটি হল ৩ নভেম্বর।

তবে ভোটাররা সেদিন প্রযুক্তিগতভাবে রাষ্ট্রপতির বাছাই করেন না। আসল প্রক্রিয়া কয়েক মাস আগে থেকেই শুরু হয়ে যায়। রাষ্ট্রপতি প্রাথমিক নির্বাচন নিয়ে সুলুকসন্ধান দিল বেঙ্গলি ওয়ান ইন্ডিয়া। এই নির্বাচন বরাবরের মতো অনুষ্ঠিত হয় দুটি দলের মধ্যে।

আমেরিকান রাজনৈতিক ব্যবস্থায় দুটি প্রধান দল রয়েছে- রিপাবলিকান এবং ডেমোক্র্যাটস। রাষ্ট্রপতির প্রতিযোগিতা সাধারণত উভয় পক্ষের প্রার্থীদের মধ্যে হয়ে থাকে। এবার রিপাবলিকান প্রার্থী হলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, যিনি আরও ৪ বছরের মেয়াদ সুরক্ষিত করতে চান এবং জো বাইডেন ডেমোক্র্যাটদের পক্ষে আমেরিকান রাষ্ট্রপতির চ্যালেঞ্জার।

ভারতের জনগণ কোনও রাজনৈতিক দলের পক্ষে প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীকে নির্বাচিত করে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ সরাসরি তাঁদের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা একবার রাষ্ট্রপতি পদে দৌড়ানোর জন্য তাদের অভিপ্রায় ঘোষণা করার পরে নাগরিকরা প্রাথমিক এবং শর্তাবলীর মাধ্যমে চূড়ান্ত প্রদর্শন রাখে।

রিপাবলিকান এবং ডেমোক্র্যাটিক দলগুলি তাদের রাষ্ট্রপতি প্রার্থী সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য প্রতিটি রাজ্যে প্রাইমারি এবং কক্কাস ধারণ করে- যার নিজস্ব ভোটিং আইন এবং প্রক্রিয়া রয়েছে। উভয় প্রক্রিয়া একটি রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের কাজ সম্পাদন করে- দলের জাতীয় সম্মেলনে তাদের রাজ্যগুলির প্রতিনিধিত্ব করার জন্য প্রতিনিধিদের নির্বাচন করে।

তফাত কি তাহলে? ককসগুলি রাজনৈতিক দলগুলি দ্বারা পরিচালিত হয়। প্রাইমারিগুলি রাষ্ট্র দ্বারা পরিচালিত হয়। প্রাথমিক নির্বাচনে, প্রতিটি দলের ভোটাররা ভোট দেওয়ার জন্য মনোনীত স্থানে যান এবং তাদের পছন্দের প্রার্থী বা প্রতিনিধিকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন।

একটি ককাসে নাগরিকদের একটি দল এক সাথে আলোচনা করে এবং প্রার্থীদের ভোট দেয়। আলোচনা শেষ হওয়ার পরে, একটি গোপন শিরোনাম সম্পন্ন করা হয় এবং সর্বাধিক ভোট প্রাপ্ত প্রার্থীদের প্রতিনিধি নিয়োগ করা হয়। এগুলি শেষ হয়ে গেলে রাষ্ট্রপতি পদে প্রতিটি দলের মনোনীত প্রার্থী জাতীয় সম্মেলনে নির্বাচিত হয় মনোনীত প্রার্থী তারপরে একজন চলমান সঙ্গী বা উপরাষ্ট্রপতি প্রার্থী বাছাই করেন।

এই করোনা মহামারী সিচুয়েশনে প্রক্রিয়াটি একই ছিল তবে বিলম্বিত হয়েছে প্রক্রিয়াটি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কোভিড ১৯ আক্রান্ত এবং মৃত্যুর রেকর্ড করেছিল যে সমস্ত রাজ্যে, সেখানে সম্পূর্ণ পোস্টাল ভোট দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। আলাস্কা এবং হাওয়াইয়ে পোস্ট বা ডাকের মাধ্যমে পোস্টাল ভোট হয়েছে। কানেক্টিকাট এবং গুয়মের মতো রাজ্যগুলি তাদের প্রাথমিকপর্বের নির্বাচন স্থগিত করেছিল।

জর্জিয়ার প্রাথমিক নির্বাচনের সময় ভোটদান প্রক্রিয়া নিয়ে বড় সমস্যা দেখা গেছে, কারণ লোকেরা ভোট দেওয়ার জন্য আট ঘন্টা অবধি অপেক্ষা করেছিল। মহামারীজনিত কারণে নির্বাচনী কর্মীরা নতুন নতুন মেশিন নিয়ে সমস্যায় পড়েন। কারণ তাঁরা সেই মেকানিজমের প্রশিক্ষণ পাননি। রাজনৈতিক প্রচার নিয়েও সমস্যায় পড়তে হয় প্রার্থীদের। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই প্রচার হয় ভার্চুয়াল।

Puja Special : কলকাতাঃ বিশেষ বাসে করে ঠাকুর দেখার ব্যবস্থা পরিবহন দফতরের, ভাসান দেখা যাবে জলযানে

English summary
USA depends on postal voting and virtual campaigns to conduct Presidential Elections in a Pandemic situation.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X