• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

হঠাৎ বোধদয় নাকি নিজের ভুল বুঝলেন মাস্ক! ছাঁটাই হওয়া কর্মীদের ডেকে পাঠাচ্ছেন টুইটার কর্তা

  • |
Google Oneindia Bengali News

শুক্রবার কার্যত টুইটারে (Twitter) গণ-ছাঁটাই করেছেন ইলন মাস্ক! গোটা বিশ্বে টুইটারের একাধিক অফিসে কার্যত ছাঁটাই অভিযান চলেছে। সরকারকারি ভাবে Elon Musk টুইটার হাতে নেওয়ার পরেই একের পর এক বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যার মধ্যে এটি একটা।

তাঁর এই সিদ্ধান্তে এক ঝটকায় বহু কর্মী বেকার হয়ে গিয়েছে। কর্মীদের এই অবস্থার মধ্যে ইতিমধ্যে নিজেকে দায়ী করে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন জ্যাক ডরসি। টুইটারে এক বার্তায় তিনি লিখেছেন, কর্মীদের এমন অবস্থার জন্যে আমিই দায়ী।

টুইটের পরেই কি হঠাত বোধদয়!

টুইটের পরেই কি হঠাত বোধদয়!

জ্যাকের এমন টুইটের পরেই কি হঠাত বোধদয়! রাস্তা দেখিয়ে দেওয়া একাধিক কর্মীকে ফের একবার ডেকে পাঠাচ্ছেন ইলন মাস্ক। ভুলবশত কিছু কর্মীকে নাকি বের করে দেওয়া হয়েছিল। একটি সুত্রকে কোট করে এমনটাই প্রকাশিত খবরে দাবি করা হয়েছে ব্লুমবার্গে। শুধু তাই নয়, হঠকারী সিদ্ধান্তেও কিছু কর্মীকে বের করে দেওয়া হয়েছে। যা মোটেই ঠিক নয় বলেই মনে করছেন নাকি মাস্ক। বিশেষ করে কোম্পানির স্বার্থে ঠিক নয়। আর সেই কারনেই সংস্থাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে বেশ কিছু কর্মীকে ফের একবার ডাক টেসলা কর্তার।

কি বলছেন মাস্ক!

কি বলছেন মাস্ক!

রীতিমত সংস্থায় গন ছাঁটাই চালিয়েছেন মাস্ক। আর তাতে অনুতপ্ত তিনি। নাকি টুইটারের জনক জ্যাকের টুইটে হঠাত বোধদয় হয়েছে তাঁর। তবে ইলন মাস্ক নাকি বলছেন, কর্মী ছাঁটাই নিয়ে বড্ড হুড়োহুড়ি বেঁধে গিয়েছে। যদিও এই বিষয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার তরফে কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। ছাঁটাইয়ের পর শুক্রবার মাস্ক টুইট করেন একটি। সেখানে তিনি বলেন, সংস্থার কাছে দ্বিতীয় কোনও বিকল্প নেই। এতে প্রত্যেক দিন ৪০ লাখ ডলার ক্ষতি হচ্ছে। চাকরিচ্যুত কর্মীদের তিন মাসের প্যাকেজ দেওয়া হচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে! যা প্রয়োজনের চেয়ে 50 শতাংশ বেশি বলে দাবি করেন টুইটার কর্তা।

টুইট করেন Jack Dorsey

টুইট করেন Jack Dorsey

বলে রাখা প্রয়োজন, বিশ্বজুড়ে চলা সমালোচনার মধ্যেই একটু টুইট করেন Jack Dorsey। সেখানে সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন তিনি। একটি টুইট বার্তাতে Twitter-এর জনক লিখছেন, টুইটারে প্রথম এবং বর্তমান সময়ে কাজ করা সমস্ত লোকই খুবই প্রতিভাবান। যতই কঠিন সময়ের মধ্যে তাঁরা যাক না কেন ঠিক একটা রাস্তা তাঁরা খুঁজে নেবেন। তবে আমি মনে করি বহু মানুষ আমার উপর ক্ষুব্ধ! আমি মনে করি আমার কারনেই প্রত্যেকে এমন অবস্থার মধ্যে পড়েছে। আমি খুব দ্রুত এই কোম্পানির আকার বৃদ্ধি করেছি! এর জন্য আমি সবচেয়ে বেশি ক্ষমাপ্রার্থী।

টুইটার নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই কর্মী ছাঁটাই এবার META-তেও! বুধবার থেকে শুরু প্রক্রিয়া? টুইটার নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই কর্মী ছাঁটাই এবার META-তেও! বুধবার থেকে শুরু প্রক্রিয়া?

English summary
Twitter called some workers to be back, who were laid off
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X