• search

দীপাবলি-তে আমেরিকায় নারী-শক্তির জয় জয়কার, একাধিক নজির তৈরি করল মধ্যবর্তী নির্বাচন

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    নেটিভ আমেরিকান থেকে সোমালিয়ার উদ্বাস্তু, প্রথম গে-গভর্নর- একাধিক নয়া নজির গড়ল আমেরিকার মধ্যবর্তী নির্বাচন। এবার মধ্যবর্তী নির্বাচনে যত সংখ্যক মহিলা প্রার্থী হয়েছিলেন তা একটা রেকর্ড। আর সবচেয়ে বড় কথা যেভাবে মহিলা প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন তা আন্তর্জাতিক মহলেরও নজর টেনেছে।

    আমেরিকার মধ্যবর্তী নির্বাচনের এমন কিছু টুকরো টুকরো ছবি এদিন ধরা পড়েছে যার সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে ইতিহাস ও অন্যন্য নজিরের পালক। এমন ১০টি ছবি-কে পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হয়েছে এখানে।

    হাউসে রেকর্ড সংখ্যক মহিলা প্রার্থীর জয়

    হাউসে রেকর্ড সংখ্যক মহিলা প্রার্থীর জয়

    হাউস-এ এবার জয় পেলেন রেকর্ড সংখ্যক মহিলা প্রার্থী। এটা আমেরিকার ইতিহাসে একটা ঐতিহাসিক ঘটনা। বুধবার পর্যন্ত মধ্যবর্তী নির্বাচনের যে ফল বেরিয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে হাউসে ৯৬ জন মহিলা প্রার্থী জয় পেয়েছেন। এর মধ্যে ৩১ জন মহিলা এই প্রথম হাউসে নির্বাচিত হলেন। বাকি ৬৫ জন মহিলা এর আগে কোনও না কোনও নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন। গতবার হাউসে নির্বাচিত হয়েছিলেন ৮৫ জন মহিলা। এবার এখন পর্যন্ত সেই সংখ্য়াটা ৯৬।

    প্রথম নেটিভ আমেরিকান মহিলা

    প্রথম নেটিভ আমেরিকান মহিলা

    ডেমোক্র্যাট শারিস ডেভিডস ও দেব হ্যালান্ড প্রথম দুই নেটিভ আমেরিকান হিসাবে হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভ-এ নির্বাচিত হয়েছেন। ডেভিডস কানসাস-এ রিপাবলিকান প্রার্থী কেভিন য়োডার-কে হারিয়েছেন। নিউ মেক্সিকো-তে হ্যালান্ড রিপাবলিকান মিচেল লুজান গ্রিশাম-কে হারিয়েছেন।

    শারিস ডেভিডস একজন লেসবিয়ান

    শারিস ডেভিডস একজন লেসবিয়ান

    শারিস ডেভিডস একজন লেসবিয়ান হিসাবে নিজেকে পরিচয় দেন। সুতরাং তাঁর জয় আমেরিকার নির্বাচনের ইতিহাসে একটা নজির বলেই গণ্য করা হচ্ছে। কানসাস থেকে তিনি প্রথম এলজিবিটি কমিউনিটির জনপ্রতিনিধি হলেন। রাজনীতিতে আসার আগে ডেভিডস একজন আইনজীবী এবং মিক্সড-মার্শাল আর্ট ফাইটার ছিলেন।

    প্রথম মুসলিম মহিলা

    প্রথম মুসলিম মহিলা

    মার্কিন কংগ্রেস এবার প্রথম মুসলিম মহিলা প্রতিনিধি পাচ্ছে। মিচিগান থেকে রশিদা তালাইব ও মিনেসোটা থেকে ইলাহান ওমর- এই দুই মুসলিম মহিলা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিসাবে জয় পেয়েছেন। তালাইব নির্বাচিত হয়েছেন মিচিগানের জন কনয়েয়ার্স-এর স্থানে। ১ বছর আগে যৌন কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়ে পদত্যাগ করেছিলেন জন কনয়েয়ার্স। ইনাহান ওমর মিনেসোটায় কেইথ এলিশন-এর ফেলে যাওয়া শূন্যস্থানে নির্বাচিত হয়েছেন। এলিশন এবার মিনেসোটার অ্যাটর্নি জেনারেল পদে প্রার্থী হয়েছেন।

    সোমালিয়া-আমেরিকান উদ্বাস্তু ইলাহান

    সোমালিয়া-আমেরিকান উদ্বাস্তু ইলাহান

    ইলাহান ওমর মার্কিন কংগ্রেসে এমন এক মুসলিম মহিলা প্রতিনিধি যিনি সোমালিয়া-আমেরিকান উদ্বাস্তু। দুই দশক আগে একজন উদ্বাস্তু হিসাবে আমেরিকায় এসেছিলেন ইলাহান। গৃহযুদ্ধের কারণে মাত্র চার বছর বয়সে সোমালিয়া থেকে কেনিয়ায় উদ্বাস্তু হিসাবে আশ্রয় নিতে হয়েছিল তাঁকে। কেনিয়ায় চার বছর উদ্বাস্তু হিসাবে থাকার পর পরিবারের সঙ্গে আমেরিকায় আসেন ইলাহান।

    প্রথম স্বঘোষিত গে-ম্যান গভর্নর

    প্রথম স্বঘোষিত গে-ম্যান গভর্নর

    কলরাডোর এবার গভর্নর হতে চলেছেন জারেড পোলিস। ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জারেড একজন গে। তিনি নিজেও প্রকাশ্যে গে-হিসাবে পরিচয় দেন। ফলে এই প্রথম স্বঘোষিত গে-ম্যান গভর্নরের তকমা পেয়েছেন জারেড। যদিও, ওরেগন-এর ডেমোক্র্য়াটিক গভর্নর কেট ব্রাউন অবশ্য প্রথম এলজিবিটি কমিউনিটির প্রতিনিধি ছিলেন। আমেরিকার ইতিহাসে তাঁকে বাইসেক্সুয়াল গভর্নর হিসাব চিহ্নিত করা হয়েছিল। নিউ জার্সির প্রাক্তন গভর্নর জিম ম্যাকগ্রিভি ২০০০ সালে পদত্যাগ করার আগে জানা যায় যে তিনি একজন গে।

    টেনেসি-তে প্রথম মহিলা সেনেটর

    টেনেসি-তে প্রথম মহিলা সেনেটর

    রিপাবলিকারন মার্সা ব্ল্য়াকবার্ন টেনিসি থেকে নির্বাচিত প্রথম মহিলা সেনেটর হলেন। ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে যথেষ্টই সখ্য মার্সা। ২০০৩ সাল থেকেই জনপ্রতিনিধি হিসাবে কাজ করছেন রিপাবলিকান মার্সা।

    অ্যারিজোনার প্রথম মহিলা সেনেটর

    অ্যারিজোনার প্রথম মহিলা সেনেটর

    আমেরিকার এই প্রদেশ এবার প্রথম মহিলা সেনেটর পেতে চলেছে। যদিও, এই প্রদেশে সেনেটর পদে কে জয়ী হয়েছেন তা চূড়ান্ত হয়নি। জোর টক্কর চলছে দুই মহিলা রিপাবলিকান মার্থা ম্যাকস্যালি ও ডেমোক্র্যাট ক্রিস্টেন সিনেমা-র মধ্যে। সুতরাং, এঁদের মধ্যে শেষ পর্যন্ত যেই জয়ী হন না কেন তাতে নিশ্চিত অ্যারিজোনা এবার মহিলা সেনেটর পাচ্ছে।

    টেক্সাস থেকে এবার কংগ্রেসে হিসপানিক মহিলা

    টেক্সাস থেকে এবার কংগ্রেসে হিসপানিক মহিলা

    টেক্সাস থেকে এবার দু'জন হিসপানিক মহিলা মার্কিন কংগ্রেসে নির্বাচিত হয়েছেন। যারা জন্মসূত্রে কিউবান, মেক্সিকান, পুয়ের্তো রিকান, দক্ষিণ বা মধ্য আমেরিকান অথবা স্প্যানিস সংস্কৃতির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত তাদের হিসপানিক বলা হয় আমেরিকায়। টেক্সাসের এল পাসো-তে রিপাবলিকান প্রার্থী ভেরোনিকা এসকোবার এবং হিউস্টন এলাকার ডেমোক্র্যাট সিলভিয়া গার্সিয়ার জয় প্রায় নিশ্চিত।

    সাউথ ডাকোটায় প্রথম মহিলা গভর্নর

    সাউথ ডাকোটায় প্রথম মহিলা গভর্নর

    রিপাবলিকান ক্রিস্টি নোয়েম সাউথ ডাকোটার প্রথম মহিলা গভর্নর হচ্ছেন। তিনি ডেমোক্র্যাট বিলি সাটন-কে হারিয়ে দিয়েছেন।

    আশা জাগিয়েও হারলেন অ্যান্ড্রিউ গিল্লাম

    আশা জাগিয়েও হারলেন অ্যান্ড্রিউ গিল্লাম

    টাল্লাহাসি-র ডেমোক্র্যাট মেয়র অ্যান্ড্রিউ গিল্লাম-এর ফ্লোরিডার প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ গভর্নর হওয়ার দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু, রিপাবলিকান প্রার্থী রন ডেসান্টিস-এর কাছে তিনি অপ্রত্য়াশিতভাবে হেরে গিয়েছেন। এদিকে, ভারমন্ট-এর গর্ভনর পদে প্রথম ট্রান্সজেন্ডার প্রার্থী হয়ে ডেমোক্র্যাট ক্রিস্টিন হ্যালকুইস্ট ইতিমধ্যেই ইতিহাস তৈরি করেছিলেন। কিন্তু, তিনিও হার মেনেছেন।

    [আরও পড়ুন: মধ্যবর্তী নির্বাচনে বড় ধাক্কা ট্রাম্পের, হাতছাড়া হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস-এর নিয়ন্ত্রণ ]

    সবচেয়ে কণিষ্ট মহিলা সেনেটর

    সবচেয়ে কণিষ্ট মহিলা সেনেটর

    ইতিহাস তৈরি করলেন অ্যালেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিও-কর্টেজ। মাত্র ২৯ বছর বয়সেই সেনেটে যাচ্ছেন তিনি। এর ফলে সেনেটের সবচেয়ে কণিষ্ট মহিলা প্রতিনিধি হিসাবে ইতিহাসে নাম তুলে ফেছেন অ্য়ালেক্সান্দ্রিয়া। নিউ ইয়র্কের রিপাবলিকান প্রতিনিধি এলিসে স্টেফানিক-কে হারিয়ে দিয়েছেন।

    [আরও পড়ুন:মধ্যবর্তী নির্বাচনে আমেরিকা, কিন্তু এই ভোটবাজারে আকর্ষণ হাতি আর খচ্চর! কেন এমন পরিস্থিতি]

    English summary
    Numbers of Historical records has created in USA's mid-term elections. From First openly Gay governor to Somalia refugee representative in House 2018 mid-term election has brought series of history making incident.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more