• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

হঠাৎ খেরসন থেকে সেনাকে সরতে বলল রাশিয়া! কিভ বলল, ওরা তো ওখানেই আছে

  • |
Google Oneindia Bengali News

Russia-Ukraine Crisis: রাশিয়া এবং ইউক্রেন যুদ্ধে নয়া মোড়! যুদ্ধের মধ্যেই ইউক্রেনের গুরুত্বপূর্ণ একটা শহর খেরসন থেকে সেনা সরানোর সিদ্ধান্ত নিল রাশিয়া। সামরিক ক্ষেত্রে এই শহর যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ছিল রাশিয়ার সেনাবাহিনীর কাছে। আর সেই শহর থেকে সেনাবাহিনীকে সরে আসার কথা বলা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

হঠাৎ খেরসন থেকে সেনাকে সরতে বলল রাশিয়া!

হঠাত করে কেন খেরসন থেকে সেনা সরানোর সিদ্ধান্ত রাশিয়া নিল তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর চর্চা। কার্যত ইউক্রেন সেনাবাহিনীর কাছে লাগাতার বাধার মুখে পড়তে হচ্ছে রাশিয়ার বাহিনীকে। কার্যত চ্যালেঞ্জ বাড়ছে। হারের ভয়েই কি খেরসন ছাড়তে বাধ্য হচ্ছে রাশিয়ান ফোর্স? তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

যদিও কিভ বলছে এখনও রাশিয়ান ফোর্স রয়েছে। একাধিক জায়গাতে ঘাঁটি গেড়ে রয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। ফলে এখনই এই বিষয়ে কিছু বলার সময় আসেনি বলে জানাচ্ছে ইউক্রেন। কিন্ত্য হঠাত করে কেন খেরসন ছাড়ছে রাশিয়ার বাহিনী? রাশিয়ার দাবি, সামনেই শীত পড়ছে। আর সেই সময়ে সরবরাহ ব্যবস্থা থিক রাখাটা খুবই জরুরি। আর তা রাখতেই নাকি এমন সিদ্ধান্ত বলে জানানো হয়েছে।

তবে তা মানতে নারাজ ইউক্রেনের পাশে থাকা দেশগুলি। বলে রাখা প্রয়োজন, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেনের উপর প্রত্যাঘাতের নির্দেশ দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন। একেবারে রণং দেহী মূর্তিতে ইউক্রেনের উপইর আঘাত হানে রাশিয়া। একের পর এক সামরিক ঘাঁটি থেকে শুরু করে বিমানবন্দরে হামলা চালানো হয়।

লাগাতার রাশিয়ার হামলাতে দক্ষিণ ইউক্রেনের এই প্রাদেশিক রাজধানী-সহ গোটা খেরসন প্রদেশ রাশিয়ার দখলে চলে যায়। কার্যত কিভ দখলের ক্ষেত্রে খেরসন দখলে রাখাটা রাশিয়ার কাছে ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর তা এই শহর দখল করে রাশিয়ার বাহিনী। তবে ইউক্রেনের বাহিনী লাগাতার রাশিয়ার ইপর আঘাত হানে।

ইউক্রেনের প্রত্যাঘাতে কার্যত একটা সময় ভেঙে পড়ে রাশিয়ার সামরিক ঘাঁটিগুলি। কার্যত খেরসন ছেড়ে পালাতে হয় রাশিয়ার বাহিনীকে। যদিও যুদ্ধ যে ভাগে এগিয়েছে সেভাবে নতুন করে সে প্রদেশের একাধিক অংশে রাশিয়ার বাহিনীর পৌঁছে যায়। যদিও শেষমেশ হঠাত কেন খেরসন থেকে রাশিয়ার সেনা সরানোর সিদ্ধান্ত তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা।

যদিও মনে করা হচ্ছে ইউক্রেনের ডোনেৎস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলে ইউক্রেনের সেনা সমাবেশ বাড়ছে। এই অবস্থায় কৌশলি পদক্ষেপ হিসাবেই রাশিয়ার এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে।

চাকরি চেয়ে কামড় খাওয়া আন্দোলনকারী সহ ৩০ জনের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারাতে মামলা চাকরি চেয়ে কামড় খাওয়া আন্দোলনকারী সহ ৩০ জনের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারাতে মামলা

English summary
Russia claims their forces are still in Khersan, this is not the time to talk of withdrawal
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X