• search

এইচ১-বি ভিসা বিল: মার্কিন মুলুকে দ্বিগুণ হবে নূন্যতম বেতন

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    ওয়াশিংটন, ৩১ জানুয়ারি: মার্কিন হাউস অফ রিপ্রেসেন্টেটিভ-এ এবার এইচ-১বি ভিসা সংক্রান্ত একটি নতুন বিলের প্রস্তাব করা হয়। এই প্রস্তাবিত বিল অনুযায়ী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এইচ-১বি ভিসা-এর আওতায় থাকা প্রত্যেককে নূন্যতম বেতন ১৩০,০০০ মার্কিন ডলার হিসাবে দিতে হবে।

    এদিকে নূন্যতম বেতনের হার এতটা বেশি হওয়ায় তা মার্কিন সংস্থা গুলির পক্ষে তা দেওয়া কার্যত কঠিন হয়ে দাঁড়াল। ফলত এত মূল্যের দাম দিয়ে একজন কর্মীকে মার্কিন সংস্থাগুলির পক্ষে রাখা খুব কষ্টসাধ্য হয়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। বর্তমানে এইচ-১বি ভিসা-এর আওতায় যাঁরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন , তাঁদের বেতন নূন্যতম ৬০,০০০ হাজার মার্কিন ডলার। এই মূল্য দ্বিগুণ হওয়ায় স্বভাবতই তা চাপে ফেলছে মার্কিন সংস্থা তথা তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা গুলিকে।

    এইচ১-বি ভিসা বিল: মার্কিন মুলুকে দ্বিগুণ হবে নূন্যতম বেতন

    ওয়াকিবাহাল মহলের ধারণা, সংস্থাগুলি এত পরিমাণ বেতন কর্মীদের দিতে পারবেনা বলে , তারা কর্মী ছাঁটাই করতে বাধ্য হবে। এদিকে যেহেতু , এইচ-১বি ভিসা-এর অন্তর্গত বহু ভারতীয় তথ্য প্রযুক্তি কর্মী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন ,তাই এই অবস্থার শিকার তাঁরা হতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে গোটা বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ভারত। এদেশের তরফে সেকথা জানানো হয়েছে মার্কিন প্রশাসনকেও।

    এর আগে ডেমোক্রেট কংগ্রেসের তরফে একটি বিল আনা হয়, যাতে এইট-১বি ভিসাকে প্রয়োগ করার প্রয়োজনীয়তার কথা বলা হয়। এদিকে মার্কিন হাউস অফ রিপ্রেসেন্টেটিভ-এর এই বিল পেশের পরই, ভারতীয় স্টক মার্কেটে অনেকটা নেমে যায় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলির স্টক।

    English summary
    A legislation has been introduced in the US House of Representatives which among other things calls for more than doubling the minimum salary of H-1B visa holders to $ 130,000, making it difficult for firms to use the programme to replace American employees with foreign workers, including from India.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more