• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

কাউকে বোকা বানাচ্ছেন না, আমেরিকার প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ বিদেশ মন্ত্রীর

Google Oneindia Bengali News

পাকিস্তানের যুদ্ধ বিমান এফ-১৬ মেরামতের জন্য আমেরিকা ৪৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুদান বরাদ্দ করেছে আমেরিকা। আগেই ভারত এর তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে। এবার সরাসরি মার্কিন প্রশাসনকে আক্রমণ করলেন ভারতীয় বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। মার্কিন প্রশাসনকে কটাক্ষ করে বলেন, কাউকে বোকা ভাববেন না। মার্কিন প্রশাসনের তরফে দাবি করা হয়েছিল, সন্ত্রাস বিরোধী কাজে সাহায্যের জন্য এই অনুদান দেওয়া হয়েছে।

কী বললেন বিদেশমন্ত্রী

কী বললেন বিদেশমন্ত্রী

ভারতীয় বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর মার্কিন প্রশাসনকে তীব্র ভাষায় সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, 'সন্ত্রাসবিরোধী মন্তব্য করে বিষয়টি আড়াল করা হয়েছে। আমেরিকা আসলে ধোঁকা দিয়েছে। বিশেষ করে এফ-১৬ যুদ্ধ বিমান মেরামতে অনুদানের ফলে পাকিস্তান আরও শক্তিশালী হয়ে উঠবে। এই যুদ্ধবিমানগুলো কোথায় মোতায়েন করা হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আপনারা সন্ত্রাস বিরোধী শব্দ উল্লেখ করে কাউকে বোকা বানানোর চেষ্টা করবেন না।'

পাক-মার্কিন সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন

পাক-মার্কিন সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন

বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর পাক-মার্কিন সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, মার্কিন কোনও নীতি নির্ধারক কীভাবে পাকিস্তানকে এভাবে সাহায্য করতে পারে। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'আপনারা ভারতের কথা ভুলে যান। গত তিন বছরের দিকে তাকান। গত তিন বছরে পাকিস্তানের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্কের শুধু অবনতি হয়েছে। তিনি বলেন, খুব সততার সঙ্গে বলতে গেলে, পাকিস্তান সন্ত্রাস বিরোধী কোনও সাফল্য আনতে পারেনি। আমেরিকার স্বার্থে সেভাবে কাজে লাগতে পারেনি। এরপরেই আমেরিকার এই অনুদানের অর্থ কী?'

মার্কিন বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক

মার্কিন বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক

মার্কিন বিদেশমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন সঙ্গে ভারতীয় বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের বৈঠকের কথা রয়েছে। ব্লিঙ্কেন জয়শঙ্করের জন্য ভার্জিনিয়ায় একটি নৈশভোজের আয়োজন করেছেন। কিন্তু তার আগেই পাক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বিলাবল ভুট্টোর সঙ্গে ব্লিঙ্কেনের বৈঠক হবে বলে জানা গিয়েছে। আমেরিকার বিদেশ মন্ত্রকের শুরুর দিকে একটি বিবৃতিতে জানায়, এফ-১৬ যুদ্ধ জাহাজগুলো মেরামতের জন্য ৪৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বরাদ্দ করা হয়েছে পাশাপাশি সম্ভাব্য বিদেশ সামরিক শক্তি ক্রয় করার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ৭ সেপ্টেম্বর ডিফেন্স সিকিউরিটি কো-অপারেশন এজেন্সি সম্ভাব্য বিক্রয় সম্পর্কে মার্কিন কংগ্রেসকে অবহিত করে একটি শংসাপত্র দেয়। এরপরেই ভারত তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখায়।

রাজনাথ সিংয়ের অসন্তোষ

রাজনাথ সিংয়ের অসন্তোষ

ডিএসসিএ তরফে বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, প্রস্তাবিত বিক্রয়ের মধ্যে কোন নতুন ক্ষমতা, অস্ত্র বা গোলাবারুদ অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। সন্ত্রাসবিরোধী কার্যকলাপের জন্য এবং আকস্মিক হামলা থেকে পাকিস্তান যাতে নিজেদের রক্ষা করতে পারে, সেই কারণে এই অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এরফলে অঞ্চলগুলোর মৌলিক ভারসাম্য ক্ষুন্ন হবে না। ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং পাকিস্তান বিমান বাহিনীকে এই অনুদান দেওয়ার জন্য মার্কিন কংগ্রেসের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন।

{docum পাকিস্তান, চিন, তুরস্ককে কটাক্ষ, আর্থ সামজিক উন্নয়নে রাষ্ট্রসংঘের মঞ্চে প্রশংসিত ভারতent1}

English summary
Jaishankar's anger at USA with f-16 support to Pakistan
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X