• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

পাকিস্তানের সঙ্গে রাশিয়ার সাম্প্রতিক সম্পর্ক কি দিল্লির মাথাব্যথা বাড়াচ্ছে! কোনপথে ত্রিদেশীয় কূটনীতি

পাকিস্তানের জনপ্রিয় দৈনিক সংবাদপত্র 'দ্য ট্রিবিউন'-এ প্রকাশিত একটি খবরে দেখা যায়, 'পাকিস্তানকে পুতিন দিয়েছেন ব্ল্যাঙ্ক চেক' শিরোনাম নিয়ে একটি খবর প্রকাশ করেছে। মূলত, রাশিয়া থেকে সেদেশের বিদেশমন্ত্রী সারজেই ল্যাভরোভ পাকিস্তানে এসে সর্বোত সাহায্যের কথা বলেন। সেই বার্তাই এভাবে তুলে ধরে ইমরানর খানের দেশের সংবাদপত্রটি। তবে সংবাদপত্রের শিরোনাম যাই থাক, রাশিয়ার সঙ্গে পাকিস্তানের এই সখ্যতা দিল্লির কূটনীতির প্রেক্ষিতে কতটা প্রাসঙ্গিক, দেখা যাক।

পাকিস্তান-রাশিয়া সম্পর্ক ও ভারত

পাকিস্তান-রাশিয়া সম্পর্ক ও ভারত

প্রসঙ্গত , বহু আগে থেকেই ঠান্ডা যুদ্ধের দুই প্রান্তে ছিল রাশিয়া ও পাকিস্তান। তবে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এশিয়ার কূটনৈতিক আঙিনায় এই দুই দেশের সম্পর্কের গতিবিধি অন্য খাতে বইতে দেখা যাচ্ছে। ৯ বছর পর পাকিস্তানে রাশিয়ার কোনও বিদেশমন্ত্রী সফর করলেন। আর এই সফরেই নজর ছিল দিল্লি। চিন আগ্রাসনের মাঝেই পাকিস্তান রাশিয়ার সম্পর্কের উষ্ণতা কোন খাতে বইছে ,তা দেখতে চাইছে দিল্লি।

একদিকে সফর, অন্যদিকে, বাতিল সামিট!

একদিকে সফর, অন্যদিকে, বাতিল সামিট!

একদিকে যখন পাকিস্তানে ৯ বছর বাদে রাশিয়ার কোনও বিদেশমন্ত্রী সফর করলেন, তখন দেখা যাচ্ছে ২০২০ সালে ভারত-রাশিয়া সামিট বাতিল হওয়ার মতো ঘটনা। জানা যায়, এই বার্ষিক সামিট বাতিলের নেপথ্যে ছিল পুতিনের রাশিয়া। যার কাছে ভারতের সঙ্গে আমেরিকার সখ্যতা কিছুটা অপছন্দের নজরে ছিল। এদিকে, সেই দিক থেকে ভারতও নেয় পাল্টা চাল। রাশিয়ার থেকে এস ৪০০ মিসাইল কিনে ভারত বুঝিয়ে দেয় যে সখ্য়তার মানদণ্ডে দিল্লি, মস্কোর থেকে দূরে চলে যায়নি। যদিও এই অস্তর কেনার বিষয়ে মার্কিনি তীক্ষ্ণ নজর ভারতের ওপর ছিল। তবে ভারত সাফ জানান দেয় যে সামরিক শক্তির প্রশ্নে দিল্লি কোনও আপসে রাজি নয়। যদিও এর সঙ্গে সঙ্গেই রাশিয়ার প্রতি ভারত নিজের সখ্যতার হাতছাডনি তুলে ধরতে চায়।

লাদাখ সংঘাতের আবহে কেন গুরুত্বপূর্ণ রাশিয়া?

লাদাখ সংঘাতের আবহে কেন গুরুত্বপূর্ণ রাশিয়া?

প্রসঙ্গত, লাদাখ পরিস্থিতিতে চিনের সপক্ষে কারা, আর বিপক্ষে কারা, তার সোজা হিসাবে মেপে নেওয়া বড় দিক ছিল ভারতের কূটনীতির সামনে। সেই জায়গা থেকে রাশিয়া একটি বড় শক্তি বিশ্বের আঙিনায়। আর চিনের হয়ে রাশিয়ার বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে গলা ফাটানোর ঘটনা দিল্লিকে চিন্তায় রাখে। তাই রাশিয়া ভারতের কূটনৈতিক আঙিনায় ক্রমেই প্রাসঙ্গিক হয়েছে বছরের পর বছর। এদিকে, লাদাখ আবহে রাশিয়ার বার্তায় চিনকে 'গ্লোবাল সুপিরিয়র পাওয়ার' হিসাবে মেনে নেওয়ার ইঙ্গিত রয়েছে কি না, তাও খতিয়ে দেখেছে দিল্লি। এই সমস্ত পরিস্থিতির বিচারে যেখানে চিনের আগ্রাসন ফুলেফেঁপে উঠছে , সেই জায়গা থেকে রাশিয়ার ভারতের কাছে বড় ফ্যাক্টর। আর এই দেশের সঙ্গে পাকিস্তানের সখ্যতা এবার ভাবিয়ে তুলছে মোদীর দেশের থিঙ্কট্যাঙ্ককে।

 পাকিস্তান প্রসঙ্গে রাশিয়া

পাকিস্তান প্রসঙ্গে রাশিয়া

দক্ষিণ এশিয়ায় রাশিয়ার নীতির একটি বড় দিক পাকিস্তান , বলে ব্যাখ্যা করেছে মস্কো। এশিয়া যখন একধিক শক্তিধর দেশের বড় কেন্দ্র হয়ে উঠছে, তখন পাকিস্তানের প্রসঙ্গে রাশিয়ার এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে বহু বিশ্লেষক দাবি করছে, মস্কো-দিল্লির সম্পর্কে পুরনো উষ্ণতা আর নেই! ফলে সম্পর্কের উন্নতিতেই দিল্লির কূটনীতি দাপটের জায়গা ধরে রাখতে পারবে দক্ষিণ এশিয়ার বুকে। এমনই মত বহু বিশ্লেষকের।

English summary
Is Russia's grwoing good relationship with Pakistan a concrn for New Delhi, here is a analysis
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X